বিশ্বভারতী থেকে বাংলাদেশি ছাত্রীকে ভারত ছাড়ার নির্দেশ কেন্দ্রের

0

ওয়েবডেস্ক: বিশ্বভারতীর শিল্পসদনের ডিজাইন বিভাগের প্রথম বর্ষের পড়ুয়া আপসারা মিমকে ভারত ছাড়ার নোটিশ দিয়েছে কেন্দ্র। বিদেশমন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, আগামী ১৫ দিনের মধ্যে তাঁকে ভারত ছেড়ে চলে যেতে হবে। কেন্দ্রের এ ধরনের সিদ্ধান্ত নিয়ে দ্বিধাবিভক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা।

গত ৪ জানুয়ারি একাধিক দাবিতে ২৪ ঘণ্টা ধর্মঘটের ডাক দিয়েছিল বামপন্থী সংগঠনগুলি। সেই ধর্মঘটে শামিল হয় বিশ্বভারতীর বামপন্থী ছাত্র সংগঠনও।

একটি মহলের বক্তব্য, ছাত্র সংগঠনের ওই কর্মসূচিতে শামিল হন আপসারা। কিন্তু বিদেশি নাগরিক হয়ে, কেন্দ্রের বিরুদ্ধে কোনো কর্মসূচিতে যোগ দিলে তা ভিসার আইন বিরুদ্ধে হয়। তবে আপসারা এ ধরনের কোনো বিক্ষোভে অংশ নেননি বলেই তাঁর সহপাঠীরা দাবি করেছেন।

অন্য একটি সূত্রের মতে, বিক্ষোভের ছবি ফেসবুকে পোস্ট করার জন্যই তাঁকে ভারত ছাড়ার নোটিশ দেওয়া হয়েছে। এর আগে ক্যাম্পাসে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (সিএএ)-এর বিরুদ্ধে বিক্ষোভের বেশ কয়েকটি ছবি তিনি ফেসবুকে পোস্ট করেন।

ওই কারণটিকে সামনে রেখেই আপসারাকে ভারত ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এই ঘটনায় বিশ্বভারতীর একাংশের পড়ুয়াদের অভিযোগ, বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র আন্দোলন বন্ধ করতেই এ হেন পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।

নোটিশে স্পষ্ট ভাবেই বলা হয়েছে, সরকার-বিরোধী কাজে যুক্ত থাকার জন্যই তাঁকে ভারত ছাড়ার নোটিশ দেওয়া হয়েছে। বলা হয়েছে, একজন বিদেশি হয়ে ভিসার যে আইন রয়েছে, সেই আইন তিনি মানেননি।

আরও পড়ুন: পেঁয়াজের উপর থেকে ছ’মাসের পুরনো নিষেধাজ্ঞা তুলে নিচ্ছে কেন্দ্র

এই কারণকে সামনে রেখেই ভারত সরকারের বিদেশমন্ত্রক চিঠি দিয়ে জানিয়েছে, ১৫ দিনের মধ্যে আপসারা মিম নামে ওই বাংলাদেশি ছাত্রীকে ভারত ছেড়ে চলে যেতে হবে। এমন পরিস্থিতিতে বিশ্বভারতীর পড়ুয়ারা তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছেন।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.