Connect with us

বীরভূম

বসন্ত উৎসবে বহিরাগতদের ‘বেলেল্লাপনা’ ঠেকাতে বিশ্বভারতীর বেনজির সিদ্ধান্ত জন্ম দিল নতুন বিতর্কের

শ্রীনিকেতন: গত বছর দোলের দিন চূড়ান্ত বেলেল্লাপনা দেখেছিল রবীন্দ্রভূম শান্তিনিকেতন। বহিরাগতদের ‘তাণ্ডবে’ কার্যত ধুলোয় মিশে গিয়েছিল শান্তিনিকেতনের ঐতিহ্য। এ বার যাতে সেই পরিস্থিতি না তৈরি হয়, সে কারণে বেনজির সিদ্ধান্ত নিল বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। যদিও এই সিদ্ধান্ত আবার নতুন বিতর্কেরও জন্ম দিয়েছে।

এ বারের বসন্ত উৎসব কেবলমাত্র বিশ্বভারতীর পড়ুয়া ও শিক্ষকশিক্ষিকাদের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবে। অর্থাৎ বাইরের কেউ আর শান্তিনিকেতনের বসন্ত উৎসবে যোগ দিতে পারবেন না। শুধু তা-ই নয়, প্রথামাফিক দোলের দিন নয়, বরং অনেক আগেই সেরে ফেলা হচ্ছে বসন্ত উৎসব।

সোমবার জানানো হয়েছে, আগামী ১৯ ফেব্রুয়ারি শান্তিনিকেতনে বসন্ত উৎসব সেরে ফেলা হবে। এই দিনক্ষণ বদলের সিদ্ধান্তে যথেষ্ট বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে।

যদিও বসন্ত উৎসবে বহিরাগতের প্রবেশ নিষিদ্ধ হওয়ার ব্যাপারটিকে স্বাগত জানিয়েছেন বিশ্বভারতীর সঙ্গে জড়িতরা। কিন্তু বসন্ত উৎসবের দিন বদলে দেওয়ার ব্যাপারটি অনেকেই মেনে নিতে পারছেন না। এ ব্যাপারে সাংবাদিকদের প্রশ্নের কোনো উত্তর দেননি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী।

আরও পড়ুন এটা বাঘ নাকি! সিসিটিভি ফুটেজ দেখে হতভম্ব কোন্নগরবাসী

উল্লেখ্য, গত বছরের বসন্তোৎসবে ভিড়ের চাপে বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি দেখা দিয়েছিল। বেশ কয়েক জন অসুস্থ হয়ে পড়েন।এই ঘটনার পর সমালোচনার মুখে পড়ে বিশ্বভারতী। মনে করা হচ্ছে তার প্রেক্ষিতেই বহিরাগত আটকানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

কিন্তু ঠিক কী কারণে দোলের দিন না করে বসন্ত উৎসব তার কুড়ি দিন আগে হবে, সেই প্রশ্নের সদুত্তর এখনও পাওয়া যায়নি।

কলকাতা

কলকাতায় চিকিৎসা করাতে এসে ৩০ বছর বয়সি মহিলা জানতে পারলেন তিনি ‘পুরুষ’

খবরঅনলাইন ডেস্ক: তিরিশ বছর ধরে স্বাভাবিক জীবন যাপন করে গেছেন। কোনো জটিলতা নেই। হঠাৎ শুরু হল তলপেটে ব্যথা। ছুটে এলেন ডাক্তারদের কাছে। ডাক্তাররা আবিষ্কার করলেন, রোগিণী হিসাবে যাঁর চিকিৎসা করছেন তাঁরা, তিনি আসলে রোগিণী নন, রোগী এবং তিনি অণ্ডকোষের ক্যানসারে (testicular cancer) ভুগছেন।

বিস্ময়ের ব্যাপার, এই ঘটনা প্রকাশ্যেই আসতেই সেই ‘রোগিণী’র ২৮ বছরের বোন প্রয়োজনীয় পরীক্ষানিরীক্ষা করান এবং জানা যায়, তাঁরও ‘অ্যান্ড্রোজেন ইনসেনসিটিভিটি সিন্ড্রোম’ (Androgen Insensitivity Syndrome) রয়েছে। এটা শরীরের এমন একটা অবস্থা যাতে একজন মানুষ জিন-ঘটিত দিক থেকে ‘পুরুষ’ হয়ে জন্মায়, কিন্তু তাঁর সব শারীরিক বৈশিষ্ট্য ‘মহিলা’র মতো হয়।

প্রায় এক দশক আগে বিবাহিত, বীরভুমের ৩০ বছর বয়সি সেই ‘মহিলা’ তলপেটের নীচের দিকে প্রচণ্ড ব্যথা নিয়ে মাস দুয়েক আগে কলকাতার নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বোস ক্যানসার হাসপাতালে (Netaji Subhas Chandra Bose Cancer Hospital) আসেন। তখন ক্লিনিক্যাল ক্যানসার বিশেষজ্ঞ ডা. অনুপম দত্ত এবং সার্জিক্যাল ক্যানসার বিশেষজ্ঞ ডা. সৌমেন দাস তাঁকে পরীক্ষা করেন এবং তাতেই তাঁর ‘প্রকৃত পরিচয়’ জানা যায়।

ডা. অনুপম দত্ত সংবাদসংস্থা পিটিআইকে বলেন, “তাঁকে দেখে মনে হয় তিনি মহিলাই। তাঁর কণ্ঠস্বর, তাঁর উন্নত স্তন, স্বাভাবিক বহিঃস্থ জননেন্দ্রিয় – সব কিছুই মহিলাদের মতো। তবে জন্ম থেকেই জরায়ু আর ডিম্বাশয় নেই। কখনও তাঁর ঋতুস্রাব হয়নি।”

এটা একটা বিরল ঘটনা। প্রতি ২২ হাজার মানুষের মধ্যে এক জনের হতে পারে বলে ডা. দত্ত জানান।

মহিলার শারীরিক পরীক্ষার রিপোর্টে বলা হয়েছে, তাঁর যোনিপথ গুপ্ত (ব্লাইন্ড ভ্যাজিনা, Blind vagina)। তখন ডাক্তাররা কারইয়োটাইপিং টেস্ট (Karyotyping test) করানোর সিদ্ধান্ত করেন। তখন দেখা যায় তাঁর ক্রমোসোম জোড়া হল ‘এক্সএক্স’ (এক্সএক্স), ‘এক্সওয়াই’ (XY) নয়, যা একজন মহিলার থাকে।

ডা. অনুপম দত্ত আরও বুঝিয়ে বলেন – ‘তলপেটে প্রচণ্ড ব্যথার দরুন আমরা ওঁর ক্লিনিক্যাল পরীক্ষা করাই। তাতে দেখা যায় তাঁর অণ্ডকোষ দু’টো শরীরের ভেতরে। বায়োপসি করা হয়। তারই পরই জানা যায় তিনি অণ্ডকোষের ক্যানসারে ভুগছেন, যাকে বলা হয় সেমিনোমা (seminoma)।”

এখন তাঁর কেমোথেরাপি চলছে এবং তাঁর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল আছে।

ডা. দত্ত জানান, তাঁর অণ্ডকোষ শরীরের মধ্যে থাকায় সেগুলো পরিণত হয়নি। ফলে টেস্টোস্টেরন নিঃসরণ হত না। অন্য দিকে তাঁর নারী হরমোনগুলো তাঁকে মহিলার চেহারা দিয়েছিল।

এটা জানার পর সেই ‘মহিলা’র প্রতিক্রিয়া কী, জানতে চাওয়া হলে ডা. দত্ত বলেন, “এক জন মহিলা হিসাবে তিনি বড়ো হয়ে উঠেছেন। প্রায় এক দশক হল এক জন পুরুষকে বিয়ে করেছেন। এখন আমরা সেই রোগিণী এবং তাঁর স্বামীর সঙ্গে কথা বলছি। তাঁদের বোঝাচ্ছি, জীবন যে ভাবে চলে এসেছে, সে ভাবেই চলুক।”

জানা গিয়েছে, ওই দম্পতি বার কয়েক সন্তানলাভের চেষ্টা করেছেন কিন্তু স্বাভাবিক ভাবেই ব্যর্থ হয়েছেন।

অতীতে ওই মহিলার দুই মাসিরও ‘অ্যান্ড্রোজেন ইনসেনসিটিভিটি সিন্ড্রোম’ ধরা পড়েছিল। “এটা সম্ভবত ওঁদের জিনেই রয়েছে”, জানালেন ওই ক্যানসার বিশেষজ্ঞ।

Continue Reading

বীরভূম

স্বাস্থ্যবিধি মেনে রথের সকালে খুলে গেল তারাপীঠ মন্দির

তারাপীঠ: দক্ষিণেশ্বর মন্দির, বেলুড় মঠ আগেই খুলেছে। এ বার খুলে গেল তারাপীঠ (Tarapith) মন্দিরও। তিন মাস বন্ধ থাকার পর রথের দিন সকালে ভক্তদের জন্য খুলে দেওয়া হল এই মন্দির।

মঙ্গলবার ভোর পাঁচটায় মন্দির খোলে। মঙ্গলারতি দিয়ে শুরু হয় পুজো। শারীরিক দূরত্ববিধি মেনে সকাল থেকে মন্দিরে আসতে শুরু করে আশেপাশের বাসিন্দারা। তবে করোনাভাইরাসের (Coronavirus) প্রকোপের কারণে ভক্তদের গর্ভগৃহে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি।

করোনা সংক্রমণ রুখতে কয়েক মাস ধরেই বন্ধ রাজ্যের প্রায় সমস্ত মন্দির। কিন্তু ১ জুন থেকে আনলক পর্ব শুরু হওয়ায় ধীরে ধীরে রাজ্যের বিভিন্ন ধর্মীয় স্থান খোলার অনুমতি দেওয়া হয়।

তবে তারাপীঠের মন্দির বন্ধই রাখা হয়েছিল। এই পরিস্থিতিতে চলতি মাসের ১৪ তারিখ বৈঠকে বসেন মন্দির কমিটির সদস্যরা। সেখানে কেউ দাবি করেন, খুলে দেওয়া হোক তারাপীঠ মন্দির।

১৪ তারিখের পর আরও কয়েকটি বৈঠক হয় মন্দির কমিটির সদস্যদের মধ্যে। এর পরেই সিদ্ধান্ত হয় মঙ্গলবার খোলা হবে মন্দিরের দরজা। স্বাস্থ্যবিধি নিয়ে অনেক কড়াকড়ি করা হয়েছে মন্দিরে।

ভক্তদের স্যানিটাইজেশন মেশিনের মধ্যে দিয়ে মন্দির চত্বরে ঢুকতে হচ্ছে। শারীরিক দূরত্ব যাতে মেনে চলা হয় তার জন্য মন্দির প্রাঙ্গণেই লাল দাগ কেটে দেওয়া হয়েছে। তার মধ্যেই দাঁড়াতে হচ্ছে ভক্তদের। রথযাত্রার দিন তারাপীঠেও রথ বেরোয়। তবে এ বার সেটা বন্ধ রাখা হয়েছে।

Continue Reading

বীরভূম

আনলক ১ পর্বে এ বার খুলছে তারাপীঠ মন্দিরও

তারাপীঠ (বীরভূম): আনলক ১ (Unlock 1)-এর মধ্যেই খুলেছে দক্ষিণেশ্বর মন্দির আর বেলুড় মঠ (Belur Math)। এ বার খুলতে চলেছে তারাপীঠ মন্দিরও।

রথের দিন, অর্থাৎ ২৩ জুন ভক্তদের জন্য খুলে দেওয়া হচ্ছে তারাপীঠ মন্দির (Tarapith Temple)। এমনই জানানো হয়েছে মন্দির কমিটির তরফে।

করোনা (Coronavirus) সংক্রমণ রুখতে কয়েক মাস ধরেই রাজ্যের সব ধর্মীয় স্থান বন্ধ ছিল। তবে আনলক-১ পর্বে একে একে খুলে দেওয়া হয়েছে বেশ কিছু মন্দির। কিন্তু তারাপীঠ মন্দির খোলা নিয়ে কিছুতেই সিদ্ধান্তে আসতে পারছিল না মন্দির কমিটি।

এই পরিস্থিতিতে চলতি মাসের ১৪ তারিখ বৈঠকে বসেন মন্দির কমিটির সদস্যরা। সেখানে কেউ দাবি করেন, খুলে দেওয়া হোক তারাপীঠ মন্দির। কেউ আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেন, বেশির ভাগ ভক্ত তথা পর্যটকরা হাওড়া-কলকাতার হওয়ায় মন্দির খুললে সংক্রমণ বাড়বে।

নানা টানাপোড়েনের মধ্যেই শনিবার ফের বৈঠকে বসে মন্দির কমিটি। সেখানেই মন্দির খোলার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তবে প্রচুর নিয়মকানুন মানতে হবে।

শারীরিক দূরত্ববিধি কঠোর ভাবে পালন করতে হবে ভক্তদের। পাশাপাশি গর্ভগৃহে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না কাউকে। দর্শনার্থীদের হয়ে পুজো দিয়ে আসবেন সেবায়েতরাই। ভোগের ক্ষেত্রেও বেশ কিছু কড়াকড়ি চালু করা হচ্ছে।

তবে মন্দির কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি কিছুটা থিতু হয়ে এলেই ফের গর্ভগৃহে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে ভক্তদের।

Continue Reading
Advertisement
দেশ41 mins ago

নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে ওড়িশায় মৃত কমপক্ষে চার মাওবাদী

ক্রিকেট2 hours ago

শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটার কুশল মেন্ডিস গ্রেফতার

modi and trump
বিদেশ3 hours ago

‘ভারতকে ভালোবাসে আমেরিকা’, স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা বিনিময়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প

শিক্ষা ও কেরিয়ার4 hours ago

সিবিএসই ২০২০: ফলাফল বেরোলে কী ভাবে মার্কশিট এবং সার্টিফিকেট পাওয়া যাবে?

দেশ4 hours ago

উত্তরপ্রদেশে ৮ পুলিশ হত্যা: ‘ভেতরের’ ভূমিকা নিয়ে পুলিশের তদন্ত, স্টেশন অফিসার সাসপেন্ড

দেশ4 hours ago

এই প্রথম ভারতে এক দিনে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২৪ হাজারের বেশি

দেশ6 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ২৪৮৫০, সুস্থ ৯৩৮১

Nitish Kumar
দেশ6 hours ago

বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার করোনা নেগেটিভ

দেশ6 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ২৪৮৫০, সুস্থ ৯৩৮১

কলকাতা1 day ago

কলকাতায় অতিসংক্রমিত ১৬টি অঞ্চলকে পুরোপুরি সিল করে দেওয়ার প্রস্তুতি

দেশ2 days ago

দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যায় নতুন রেকর্ড, সুস্থতাতেও রেকর্ড

দেশ2 days ago

‘সবার টিকা লাগবে না, আর পাঁচটা রোগের মতোই চলে যাবে করোনা’, আশ্বাস অক্সফোর্ডের বিজ্ঞানীর

SBI ATM
শিল্প-বাণিজ্য3 days ago

এসবিআই এটিএমে টাকা তোলার নিয়ম বদলে গেল

wfh
ঘরদোর2 days ago

ওয়ার্ক ফ্রম হোম করছেন? কাজের গুণমান বাড়াতে এই পরামর্শ মেনে চলুন

vladimir putin
বিদেশ3 days ago

২০৩৬ সাল পর্যন্ত রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট থাকছেন ভ্লাদিমির পুতিন!

বিনোদন3 days ago

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু-রহস্যে এ বার মুম্বই পুলিশের নজরে সঞ্জয়লীলা বনশালী!

নজরে