Locket Chatterjee

ওয়েবডেস্ক: প্রায় ৭৭ হাজার ভোটে হুগলি লোকসভা কেন্দ্রে জিতলেন লকেট চট্টোপাধ্যায়। তাঁকে প্রার্থী ঘোষণার পরই ‘বহিরাগত’ ইস্যুতে তৈরি হওয়া বিতর্ক যে কোনো প্রভাব ফেলেনি ইভিএমে, সেটাই প্রমাণ হল বৃহস্পতিবার প্রকাশিত ভোটের ফলে। তবে তিনি শুধু জিতলেন-ই না, ফিরিয়ে নিয়ে এলেন ১৯৫১ সালের সাধারণ নির্বাচনের স্মৃতিও।

গত ২০১৪ সালের লোকসভা ভোটে এই কেন্দ্রে জয়ী হন তৃণমূল প্রার্থী ডা. রত্না দে নাগ। তিনি সে বার ১ লক্ষ ১৪ হাজার ৪৪টি ভোটে। অন্য দিকে সে বার বিজেপি প্রার্থী তথা দলের প্রাক্তন রাজ্যসভার সাংসদ চন্দন মিত্র মাত্র ১৬.৪৪ শতাংশ ভোট পেয়ে অধিকার করেছিলেন তৃতীয় স্থান। এ বার সে সব অঙ্ক উলটে দিলেন লকেট।

নির্বাচন কমিশনের তথ্য অনুযায়ী, এ বারের ভোটে লকেট ওই কেন্দ্রে ভোট পেয়েছেন ৬৪৯৫১৪টি। যা শতাংশের হারে ৪৬.১৩%। কিন্তু রত্নাদেবী এ বার টপকাতে পারেননি ছ’লক্ষের গণ্ডি। তৃণমূলের প্রাপ্ত ভোট ৪০.৮৭%।

বরাবর বামঘাঁটি হিসাবে পরিচিত হুগলির এই কেন্দ্রে ২০০৯ সাল থেকেই জিতে আসছিলেন রত্নাদেবী। গতবার বিশিষ্ট সাংবাদিক তথা প্রাক্তন রাজ্যসভার সাংসদ চন্দনবাবুকে দিল্লি থেকে উড়িয়ে নিয়ে এসেছিল বিজেপি। কিন্তু বাস্তবিক ভাবে তা ব্যর্থ হয়। পরে তিনি অবশ্য তৃণমূলে যোগও দেন। তবে এ বার শুধু লকেট ওই কেন্দ্র থেকে জিতলেন-ই না, ফিরিয়ে নিয়ে এলেন দেশের প্রথম সাধারণ নির্বাচনের স্মৃতিও।

[ রান মদন রান! থেমে গেল মদন মিত্রের কামব্যাকের দৌড় ]

১৯৫১ সালে ওই কেন্দ্রে জয়ী হয়েছিলেন দক্ষিণপন্থী হিন্দু জাতীয়তাবাদী দল অখিল ভারতীয় হিন্দু মহাসভার প্রার্থী নির্মলচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়। সেই-ই শেষ। তার পর থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত জিতে এসেছেন বামপন্থীরা। মাঝে একবার ১৯৮৪ সালের ভোটে ইন্দিরা-আবেগে জয় পায় কংগ্রেস। এ বার ফের বিজেপির জয়ে রাজ্যে অন্য বার্তা পৌঁছে দিল লকেট চট্টোপাধ্যায়ের হুগলি।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here