সকাল থেকেই পার্টি অফিসের রংবদলের ব্যস্ততা তুঙ্গে শুভ্রাংশু রায়ের বীজপুরে

0
শনিবার রং বদলায় বীজপুরের এই পার্টি অফিস

ওয়েবডেস্ক: বিজেপি নেতা বাবা (মুকুল রায়)-কে নিয়ে গর্বপ্রকাশ করেছিলেন তৃণমূল বিধায়ক ছেলে শুভ্রাংশু রায়। কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই তাঁকে দল থেকে ছ’বছরের জন্য সাসপেন্ড করা হয়। খবরটা শুনেই প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে শুভ্রাংশু দাবি করেছিলেন, “এলাকার কোনো ক্লাব বা পার্টি অফিস আর তৃণমূলের দখলে থাকবে না”। মাঝে একটা রাত। কার্যক্ষেত্রে হচ্ছেও তাই!

শনিবার সকাল থেকেই বীজপুরের একের পর এক তৃণমূল কার্যালয়ের রংবদলের খবর পাওয়া গিয়েছে। কয়েক দিন আগেই তৃণমূলের কর্মী-সমর্থক-স্থানীয় নেতা হিসাবে পরিচিতরাই এ দিন দাঁড়িয়ে থেকে সবুজ রঙের উপর সবুজ-গেরুয়ার প্রলেপ লাগাচ্ছেন। এ ব্যাপারে অবশ্য দলীয় ভাবে বিজেপির তরফে কোনো মন্তব্য করা হয়নি। কিন্তু ঘটনাস্থলে উপস্থিত মানুষ যা বলছেন, সেটা কপালে ভাঁজ ফেলার মতোই।

ক্যামেরার সামনেই মুখ খুলতে দ্বিধা করছেন তাঁরা। পিছনে চলছে রংবদল, সামনে দাঁড়িয়ে রতন কুণ্ডু নামে এক স্থানীয় বাসিন্দা জানান, এখন সারা দেশে বিজেপি আর মোদীর ঝড় বইছে। সেই ঝড়েই এই পার্টি অফিসের রং বদলে যাচ্ছে। অন্য আর এক জন জানান, এলাকার প্রায় চারশোর মতো ক্লাব সংগঠনও তৃণমূলের হাতছাড়া হয়ে যেতে চলেছে।

প্রসঙ্গত, তাঁর ছেলেকে তৃণমূল থেকে ছ’বছরের জন্য সাসপেন্ড করা হয়েছে শুনে মুকুলবাবু গত শুক্রবারই বলেছিলেন, “তৃণমূল দলটা ছ’বছর থাকে কি না সন্দেহ আছে”! তবে শুভ্রাংশু বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন কি না, তেমন প্রশ্নে তিনি বল ঠেলে দিয়েছেন বিজেপি এবং শুভ্রাংশুর কোর্টেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here