LPG
ছবি: ২৪ঘণ্টা থেকে

কলকাতা: শনিবার জোড়াসাঁকো থানার পুলিশ গ্রেফতার করল বিজেপি নেতা রণজিৎ মজুমদারকে। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি এলপিজি ডিস্ট্রিবিউটরশিপ পাইয়ে দেওয়ার নাম করে দলেরই নেতা-কর্মীদের কাছ থেকে কয়েক লক্ষ টাকা তুলেছিলেন। বিজেপিরই এক প্রাক্তন নেতা রণজিৎবাবুর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন। জানা গিয়েছে, সেই অভিযোগের ভিত্তিতে তাঁকে গ্রেফতার করা হয় শনিবার।

যদিও রণজিৎবাবুর এই গ্রেফতারিকে চক্রান্ত হিসাবেই দেখছে বিজেপি। তাদের দাবি, মুর্শিদাবাদ থেকে কোনো এক জনকে নিয়ে এসে ভুয়ো অভিযোগে দলের নেতাকে গ্রেফতার করল পুলিশ। তবে দল যে এই ঘটনায় রণজিৎবাবুর পাশেই থাকবে, সে কথা দ্ব্যর্থহীন ভাষায় জানিয়ে দেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সংবাদ মাধ্যমের কাছে তিনি বলেন, ‘আমাদের নেতাকে ফাঁসানোর চেষ্টা হচ্ছে। দল রণজিত্ বাবুর পাশে আছে। মুর্শিদাবাদ থেকে একজনকে তুলে এনে বয়ান লিখিয়ে সেই বয়ানের ভিত্তিতে গ্রেফতার করা হয়েছে রণজিত বাবুকে। এর বিরুদ্ধে আদালতে লড়াই করবে বিজেপি।’


আরও পড়ুন: নারদ কাণ্ড: সিবিআই দফতরে বিজেপি নেতা মুকুল রায়

উল্লেখ্য, এলপিজি ডিস্ট্রিবিউটরশিপ দেওয়া হয় কেন্দ্র থেকে। রাজ্যের ছোটো-বড়ো বিজেপি নেতা-কর্মীদের সেই ডিস্ট্রিবিউটরশিপ পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে রণজিৎবাবুর বিরুদ্ধে। তিনি বর্তমানে বিজেপির পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য কমিটির সদস্য। তবে কেন্দ্রীয় প্রকল্পগুলির কাজ সঠিক ভাবে বাস্তবায়িত হচ্ছে কি না, সে বিষয়ে দলীয় ভাবে নজরদারি চালানোর দায়িত্ব রয়েছে তাঁর উপর। সেই সূত্রেই দিল্লির বিজেপি নেতৃত্বের সঙ্গে তাঁর যোগাযোগ গড়ে ওঠাও আশ্চর্যের বিষয় নয়। ্অভিযোগ, ওই যোগাযোগকে কাজে লাগিয়েই তিনি ডিস্ট্রিবিউটরশিপ পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন