রাজ্যের যে কোনো কেন্দ্র থেকেই লড়তে আপত্তি নেই মুকুল রায়ের

0
Mukul Roy
মুকুল রায়। ফাইল ছবি

ওয়েবডেস্ক: এ বারের লোকসভা ভোটে রাজ্যের ৪০টি আসনে প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেছে বিজেপি। এখনও পর্যন্ত হাতে রয়েছে আর মাত্র দু’টি। তবে এর কোনোটিতেই নেই বর্তমানে বঙ্গ-বিজেপির সব থেকে ‘করিতকর্মা’ মুখ মুকুল রায়ের নাম। কয়েক মাস আগে একাধিক কেন্দ্রে তাঁর নাম নিয়ে জল্পনা ছড়ালেও শেষমেশ তাঁর নাম নেই তালিকায়। তা হলে কি প্রার্থী হিসাবে সরাসরি ভোট-যুদ্ধে অংশ নিতে তিনি ভয় পাচ্ছেন?

২০০১-এর বিধানসভা ভোটে উত্তর ২৪ পরগনার জগদ্দল কেন্দ্র থেকে ঘাসফুল প্রতীকে প্রার্থী হয়ে দ্বিতীয় স্থান পেয়েছিলেন মুকুলবাবু। তার পর থেকে অলঙ্কৃত করেছেন রাজ্যসভার সাংসদের পদ। বিজেপিতে যোগ দেওয়ার আগেই সেই পদ ছেড়ে দেন। নতুন দলে যোগ দেওয়ার পর কয়েক পরেই শোনা গিয়েছিল, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নিজের কেন্দ্র দক্ষিণ কলকাতা থেকে তিনি এ বার প্রার্থী হতে পারেন। পাশাপাশি উঠে এসেছিল আরও কয়েকটি কেন্দ্রের নাম।

দলের রাজ্য ও কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের একাংশও চেয়েছিলেন মুকুলবাবু লোকসভায় প্রার্থী হন। বিশেষ করে দলে তাঁর বিরোধী শিবিরই বেশি করে তাঁকে ‘অগ্নিপরীক্ষা’র সামনে ঠেলে দিতে চেয়েছিলেন বলে জানা যায়। কিন্তু এক সময়ে তৃণমূলের ‘জেনারেল’, বর্তমানে বিজেপির ‘ম্যানেজার’ নিজের হাতযশেই সেই জটিলতা থেকে বেরিয়ে আসেন। কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে বুঝিয়ে দেন, তিনি প্রার্থী হলে একটি আসনেই তাঁকে বাঁধা পড়তে হবে। ফলে সার্বিক ভাবে নির্বাচনী কাজ করা তাঁর পক্ষে আর সম্ভব হবে না।

মুকুলবাবুর কথায়, “আমি রাজ্যের যে কোনও কেন্দ্র থেকে লড়তে প্রস্তুত ছিলাম। কিন্তু তাতে একটি কেন্দ্র নিয়েই আমাকে পড়ে থাকতে হতো। সব লোকসভা কেন্দ্রে মনোযোগ দিতে পারতাম না। কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব আমার যুক্তি মেনে নিয়েছেন”।

[ রাজ্যের ৪০ আসনে বিজেপির পার্থী তালিকা দেখুন এখানে ]

উল্লেখ্য, মুকুলবাবু যে প্রার্থী হতে চাইবেন না, সে কথা হাড়েহাড়ে টের পেয়েছিলেন বঙ্গ-বিজেপির অন্যান্য নেতৃত্ব। যে কারণে তাঁকে প্রার্থী করার সমস্ত চেষ্টাও করা হয়েছিল। এ বারের লোকসভা ভোটে প্রার্থী হয়েছেন দলের রাজ্য সভাপতি স্বয়ং। দুই সাধারণ সম্পাদকের নামও রয়েছে প্রার্থী তালিকায়। কিন্তু মুকুলবাবুকে এত সহজে যে হার মানানো সম্ভব হবে না, সেটাই প্রমাণ হল শেষমেশ। সেটা তিনি ভোটে দাঁড়ান বা না-দাঁড়ান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.