sabysachi-dutta
সব্যসাচী দত্ত। ছবি: সোশ্যাল মিডিয়া থেকে

খবর অনলাইন ডেস্ক: বিধানসভা ভোটে ভরাডুবি নিয়ে কার্যত কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে নিশানা করেছিলেন বিজেপি নেতা সব্যসাচী দত্ত (Sabyasachi Dutta)। যার জেরে তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ জমা পড়েছিল দলের শৃঙ্খলারক্ষা কমিটিতে। কিন্তু নিজের অবস্থানেই তিনি অনড় থাকছেন বলে জানিয়ে দিলেন দ্ব্যর্থহীন ভাষায়।

কী বলেছিলেন সব্যসাচী?

মুকুল রায়ের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত তৃণমূলের প্রাক্তন বিধায়ক, বর্তমানে বিজেপি নেতা সব্যসাচী দত্ত একটি বৈদ্যুতিন সংবাদ মাধ্যমে বলেন, “বাংলার মানুষ হয়তো সে ভাবে নিতে পারেনি। মানুষের পালস হয়তো বুঝতে পারিনি। শিখে বলা আর জন্মগত ভাবে বাংলা বলা, দু’টোর মধ্যে একটা ফারাক আছে। তৃণমূলের বহিরাগত স্লোগানের জন্যই হয়তো হার”।

Loading videos...

কী বলছেন সব্যসাচী?

সংবাদমাধ্যমে এ ধরনের মন্তব্য করাটা দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গ বলেই মনে করে রাজ্য বিজেপি। ফলে দলের শৃঙ্খলারক্ষা কমিটিতে এ বিষয়ে অভিযোগও জমা পড়েছে। কিন্তু এর পরেও নিজের বক্তব্য অটল সব্যসাচী। আনন্দবাজার অনলাইনের কাছে তিনি বলেন, “আমি যা বলেছি ঠিকই বলেছি। এখনও বলছি, গ্রামবাংলার মানুষ ভিন্ রাজ্যের নেতাদের কথা বুঝতে পারেননি”।

সব্যসাচীকে বলতে বাধা!

শোনা যায়, গত মঙ্গলবার দলের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের বৈঠকে এ ধরনের কথাই বলতে চেয়েছিলেন সব্যসাচী। কিন্তু সময় কম জানিয়ে তাঁকে থামিয়ে দেওয়া হয়। তার পরেই সংবাদ মাধ্যমে মুখ খোলেন তিনি। ওই দিনই একটি শৃঙ্খলারক্ষা কমিটি গড়ে বিজেপি। বাঁকুড়ার সাংসদ সুভাষ সরকারের নেতৃত্বে ওই কমিটির কাছেই সব্যসাচীর বিরুদ্ধে অভিযোগ জমা পড়েছে।

আরও পড়তে পারেন: মুকুল রায় তৃণমূল ভবনে পৌঁছাতেই বিস্ফোরক অনুপম হাজরা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.