তৃণমূলের সেলেব-সাংসদদের উদ্দেশে বিজেপির প্রত্যুত্তর?

0
BJP Film
প্রতিনিধিত্বমূলক ছবি

ওয়েবডেস্ক: গত লোকসভায় ভোটে জিতে সংসদে গিয়েছেন তৃণমূলের নতুন দুই সেলেব্রিটি-সাংসদ। তাঁদের সামনে রেখেই তৃণমূলকে প্রত্যুত্তর দিতেই কি টলিউডে ঢেলে সাজছে বিজেপি? গত কয়েক দিন আগে টালিগঞ্জ স্টুডিয়াপাড়ায় যাত্রা শুরু করা গেরুয়া বাহিনীর বৃহস্পতিবারের কর্মকাণ্ড সেই প্রশ্নই তুলে দিচ্ছে।

‌টলি-পাড়ায় বিজেপি এবং আরএসএসের পৃথক দুই সংগঠন নিয়ে সংবাদ মাধ্যমে তরজা চলছে গত কয়েক দিন ধরেই। দিন তিনেক আগে বামপন্থী হিসাবে পরিচিত বিপ্লব চট্টোপাধ্যায় এবং তৃণমূলের প্রতীকে বিধানসভা ভোটে দাঁড়ানো মাধবী মুখোপাধ্যায়কে ওই সংগঠনের সদস্য করা নিয়েও কম বিতর্ক হয়নি। বিপ্লব অথবা মাধবী স্পষ্টতই জানিয়ে দিয়েছেন, তাঁরা বিজেপি অথবা বিজেপি প্রভাবিত কোনো সংগঠনে যোগ দেওয়ার কথা ভাবতেই পারেন না।

পাল্টা দাবিও করেছেন বিজেপি-পন্থী বাংলা ছবির প্রযোজক মিলন ভৌমিক। তিনি বৃহস্পতিবার জানিয়েছেন, তৃণমূলের চাপের মুখে ভয় পাচ্ছেন মাধবী। তবে অনেকেই যে সে ধরনের কোনো ভয় পান না, তা দেখা গেল এ দিন দিল্লিতে বিজেপির প্রধান কার্যালয়ে।

দলের মুখপাত্র সম্বিত পাত্র-সহ রাজ্যনেতা দিলীপ ঘোষ, মুকুল রায় এবং রাহুল সিনহার উপস্থিতিতে বিজেপিতে যোগ দিলেন বাংলা টেলিভিশনের চেনা ১৩ মুখ। এ দিন বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন কাঞ্চনা মৈত্র, অরিন্দম হালদার, পার্নো মিত্র, ঋষি কৌশিক, সৌরভ চক্রবর্তী, রূপাঞ্জনা মিত্র, বিশ্বজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়, মৌমিতা গুপ্ত, দেবরঞ্জন নাগ, অনিন্দ্য বন্দ্যোপাধ্যায়, কৌশিক চক্রবর্তী, অঞ্জনা বসু এবং রূপা ভট্টাচার্য।

mimi-nusrat
মিমি-নুসরত। ফাইল ছবি

তবে শাসক দলের চাপের কথা ফের একবার তুলে ধরেছেন দিলীপ। তিনি সাংবাদিক বৈঠকে দাবি করেন, “এখনকার দিনে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপিতে যোগ দেওয়া সব থেকে বেশি ঝুঁকির”। একই সঙ্গে তিনি বলেন, “আমরা তাঁদের সাহস জোগাচ্ছি। তাঁরা যদি বিজেপিতে যোগদানের চিন্তাভাবনা করেন, আমরা তাঁদের পাশে থাকব”।

প্রসঙ্গত, গত লোকসভা নির্বাচনে প্রথমবার প্রার্থী হয়েই জিতে গিয়েছেন মিমি চক্রবর্তী এবং নুসরত জাহানের মতো টলিউড অভিনেত্রী। তাঁদেরকে সামনে রেখেই তৃণমূলের উদ্দেশে বার্তা দিতে বিজেপির এই ‘সেলেব-হান্ট’ বলে ধারণা করছেন রাজনীতির কারবারিরা। মিমি বা নুসরত হতে পারেন বড়ো পরদায় জনপ্রিয়, কিন্তু আগামী ২০২১ রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনে টেলি-তারকাদের নিয়ে রণকৌশল সাজাতে চাইছে বিজেপির বঙ্গ-ব্রিগেড!

যার ইঙ্গিতটা দিয়ে দিয়েছেন অভিনেত্রী পার্নো মিত্র। বিজেপিতে যোগ দিয়ে এ দিন তিনি বলেন, “বাংলায় পরিবর্তনের পরিবর্তন চাই”।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.