Connect with us

রাজ্য

চারটি পয়েন্ট থেকে মিছিল করে নবান্ন অভিযানে বিজেপি, আটকাতে তৎপর পুলিশ

কলকাতা এবং হাওড়ার চারটি পয়েন্ট থেকে মিছিল রওনা দেবে নবান্নের উদ্দেশে।

Published

on

আজ বিজেপির নবান্ন অভিযান। প্রতীকী ছবি

কলকাতা: বৃহস্পতিবার বিজেপির নবান্ন অভিযান। তবে গতকাল রাজ্য সরকার ঘোষণা করেছে, স্যানিটাইজেশনের জন্য বৃহস্পতিবার এবং শুক্রবার নবান্ন বন্ধ থাকবে।

নবান্ন বন্ধ থাকলেও বিজেপির পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচি রূপায়ণ করতে জেলা থেকে দলীয় সমর্থকরা আসতে শুরু করে দিয়েছেন। কলকাতা এবং হাওড়ার চারটি পয়েন্ট থেকে মিছিল শুরু হবে বলে জানা গিয়েছে। ওই চারটি পয়েন্ট থেকেই বেলা ১২টা নাগাদ মিছিলগুলি নবান্নের দিকে এগিয়ে যাবে।

রাজ্য বিজেপির সদর দফতর থেকে যে মিছিলটি নবান্নের দিকে যাবে, সেটিতে থাকবেন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। হেস্টিংস থেকে নবান্নে যাওয়া মিছিলের নেতৃত্বে থাকবেন মুকুল রায় এবং কৈলাস বিজয়বর্গীয়। অন্যদিকে, হাওড়ার সাঁতরাগাছি বাসস্ট্যান্ড থেকে শুরু হওয়া মিছিলের নেতৃত্বে থাকবেন রাজ্য বিজেপির সহ-সভাপতি রাজু বন্দ্যোপাধ্যায় ও সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু। হাওড়া ময়দান থেকে শুরু হওয়া মিছিলে নেতৃত্ব দেবেন বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ এবং বিজেপি যুব মোর্চার সর্বভারতীয় সভাপতি তেজস্বী সূর্য।

Loading videos...

মিছিল আটকাতে পুলিশ-প্রশাসনের তৎপরতাও তুঙ্গে। জানা গিয়েছে, হাওড়া ব্রিজ এবং বিদ্যাসাগর সেতুতে ওঠার আগেই কলকাতা থেকে নবান্নগামী মিছিলগুলিকে আটকানো হবে। অন্য দিকে, হাওড়ার সাঁতরাগাছি বাসস্ট্যান্ড থেকে শুরু হওয়ার মিছিলটিকে আটকানো হবে সাঁতরাগাছি ব্রিজে ওঠার আগে। হাওড়া ময়দান থেকে আসা মিছিলটিকে বঙ্গবাসী মোড়ের কাছে আটকাবে পুলিশ।

দলীয় সূত্রে খবর, প্রায় দু’লক্ষ লোকের জমায়েত হবে আজ। সব মিলিয়ে বিজেপির কর্মসূচি ঘিরে আজ শহর উত্তপ্ত হতে পারে বলে আশঙ্কা রয়েছে।

আপডেট দেখুন: বিজেপির নবান্ন অভিযান ঘিরে ধন্ধুমার! উদ্ধার আগ্নেয়াস্ত্র, ইটের ঘায়ে জখম ডানকুনির এসআই

আরও পড়তে পারেন: বিজেপির অভিযান বৃহস্পতিবার, জীবাণুমুক্ত করতে দু’দিন বন্ধ নবান্ন

রাজ্য

“এক দল, এক ভাষা আনতে চাইছে বিজেপি”, কেন্দ্রের শাসক দলকে নিশানা সৌগত রায়ের

“মমতাই পারেন ধর্মনিরপেক্ষ শক্তিকে এক করতে”, বললেন সৌগত রায়।

Published

on

সৌগত রায়

কলকাতা: ঘোষণা মতোই মঙ্গলবার তৃণমূল ভবনে সাংবাদিক বৈঠক করলেন তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়। গত কয়েক দিন ধরেই লাগাতার সাংবাদিক বৈঠক করে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল নিশানা করে চলেছে বিজেপিকে।

দেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি প্রসঙ্গে সৌগত বলেন, “দেশে যেটা ঘটছে, সেটা আমাদের জন্য চিন্তার বিষয়। বিজেপি সারা দেশে এক দল, এক ভাষা করতে চাইছে। সমালোচনা নয়, এ বিষয়ে আমরা ইতিবাচক বার্তা দিতে চাই। যা ভয়ঙ্কর চিন্তাভাবনা। আমাদের দেশের স্বশাসিত সংস্থাগুলি ধীরে ধীরে ভেঙে পড়ছে। দেশের মানুষ এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান”।

একুশের নির্বাচন

সারা দেশ জুড়ে বিজেপির ক্ষমতা দখলের রাজনীতি প্রসঙ্গে দমদমের তৃণমূল সাংসদ বলেন, “বিজেপি দেশের অনেক রাজ্যে ক্ষমতায় রয়েছে। আবার যেখানে ক্ষমতায় ছিল না, সেখানে দলত্যাগে উৎসাহ দিয়ে বিজেপি-বিরোধী রাজ্য সরকারকে ফেলে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি এটা করতে পারবে না। অন্য রাজ্য়ে বিজেপি যেটা করছে, এখানে সেটা করতে পারবে না”।

Loading videos...

আসন্ন বিধানসভা ভোটের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, “আমাদের রাজ্যে একুশের নির্বাচন গুরুত্বপূর্ণ। মমতাই পারেন ধর্মনিরপেক্ষ শক্তিকে এক করতে”।

নিজের রাজনৈতিক জীবনে রাজনীতির মান এতটা নীচে নামতে দেখেননি বলে দাবি করে সৌগত বলেন, “রাজ্য বিজেপি অন্তর্কলহে ক্লান্ত। বিজেপি মমতার সমান্তরাল মুখ তৈরি করতে পারছে না, যে কারণে ভিন রাজ্য থেকে বিজেপি নেতাদের নিয়ে আসছে। আমাদের আশঙ্কা তাঁরা এখানে বিভাজনের রাজনীতি করতে আসছেন। যাতে আমাদের রাজ্যের শান্তির পরিবেশ বিঘ্নিত হতে পারে”।

রাজ্যপালের কড়া সমালোচনা

রাজ্যপালের সমালোচনা করে তিনি বলেন, “আমাদের রাজ্যে এমন একজন রাজ্যপাল রয়েছেন, যিনি বিজেপি নেতার মতো কাজ করছেন। আমাদের বিরুদ্ধে তিনি কী বললেন, সেটা বিষয় নয়। কিন্তু প্রতিষ্ঠানের সম্মানহানি হচ্ছে, রাজ্যপালপদের মর্যাদা ক্ষুণ্ণ হচ্ছে”।

কেন্দ্রীয় সরকার কৃষকদের নিয়ে দেওয়া প্রতিশ্রুতি পূরণে ব্যর্থ হয়েছে বলে দাবি করে তিনি বলেন, “রাজ্য সরকার কৃষকদের পাশে রয়েছে। কেন্দ্র কৃষকদের কথা ভাবে না। এমনিতে কেন্দ্রের কাছে রাজ্যের প্রাপ্যের পরিমাণ ৫০ হাজার কোটি টাকা। সেই টাকা মেটানো হচ্ছে না। এই সংকটের মধ্যে দিয়ে চলেও রাজ্য সরকার নিজের দায়িত্ব পালন করে চলেছে”।

আর শুভেন্দু অধিকারী?

রাজ্যের পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী সম্পর্কে সৌগত বলেন, “শুভেন্দু এখনও দলেই রয়েছেন। অন্য কোনো কথা তো তিনি বলেননি”।

দলের একাংশের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন কোচবিহার দক্ষিণের তৃণমূল বিধায়ক মিহির গোস্বামী। এ দিন তাঁর বাড়িতে যান রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। অন্য দিকে গত সোমবার শুভেন্দুর সঙ্গে দীর্ঘ আলোচনার পরেও কোনো সমাধান সূত্র মেলেনি বলে জানা যায়। এ ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে সৌগত বলেন, “হিমালয়, হিমাচল, হিমবাহ অনেক বড়ো ব্যাপার। আমরা দলের মধ্যে সব রকমের আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছি। এটা বলার বিষয় নয়, দল সকলকে নিয়ে ঐক্যবদ্ধ ভাবে এগিয়ে যাবে। আমি শুভেন্দু অধিকারী সম্পর্কে পৃথক ভাবে কোনো মন্তব্য করব না। শুভেন্দু দলেই রয়েছেন, এতে কিছু বলার নেই”।

আরও পড়তে পারেন: টিকাকরণে এক সঙ্গে কাজ করতে প্রস্তুত রাজ্য, প্রধানমন্ত্রীকে জানালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

Continue Reading

রাজ্য

টিকাকরণে এক সঙ্গে কাজ করতে প্রস্তুত রাজ্য, প্রধানমন্ত্রীকে জানালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে, প্রধানমন্ত্রীকে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী!

Published

on

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

খবর অনলাইন ডেস্ক: মঙ্গলবার কোভিড পরিস্থিতি এবং টিকাকরণ পরিকল্পনা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ওই বৈঠকে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী জানালেন, টিকাকরণে এক সঙ্গে কাজ করতে প্রস্তুত রাজ্য।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এ দিন বলেন, “ভ্যাকসিনটি পাওয়া মাত্রই সবার জন্য দ্রুত এবং সর্বজনীন টিকাকরণের জন্য আমরা কেন্দ্রীয় এবং অন্যান্য সমস্ত অংশীদার সংস্থার সঙ্গে কাজ করার জন্য প্রস্তুত”।

সংবাদ সংস্থা পিটিআই-এর খবর অনুযায়ী, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “রাজ্যে করোনা পরিস্থিতি যথাযথ ভাবে মোকাবিলা করা হচ্ছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের মধ্যেই রয়েছে”।

Loading videos...

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে মমতা বলেন, রাজ্যে সুস্থতার হার সন্তোষজনক। অন্যদিকে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যাও ধারাবাহিক ভাবে কমছে।

পূর্ব পরিকল্পনা মতোই এ দিন বাঁকুড়া থেকেই প্রধানমন্ত্রী মোদীর সঙ্গে ভিডিয়ো কনফারেন্স বৈঠকে যোগ দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। কোভিড-পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার পাশাপাশি জিএসটি বাবদ রাজ্যের বকেয়ার বিষয়টিও এ দিন প্রধানমন্ত্রীকে স্মরণ করিয়ে দেন মমতা।

আরও পড়তে পারেন: কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, উপস্থিত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

Continue Reading

রাজ্য

কলকাতা হাইকোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি অমিতাভ লালা প্রয়াত

লালা বলেছিলেন, কলকাতা শহরে কাজের দিনে অফিস টাইমে রাস্তা আটকে মিছিল বন্ধ করা উচিত। এই নিয়ে তৎকালীন সিপিএম নেতাদের রোষের মুখে পড়তে হয় বিচারপতি লালাকে।

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: করোনামুক্ত হয়েছিলেন তিনি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত বাড়ি ফেলা হল না তাঁর। কোভিড-পরবর্তী শারীরিক সমস্যার জেরে প্রয়াত হলেন কলকাতা হাইকোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি অমিতাভ লালা (Amitabh Lala)।

সোমবার গভীর রাতে বাইপাস লাগোয়া একটি বেসরকারি হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়। বয়স হয়েছিল ৭০ বছর।

করোনামুক্ত হয়েও তাঁর ইনফেকশন ধরা পড়ে। শরীরে প্লাজমার ঘাটতি দেখা দেয়। তাঁর পরিবার প্লাজমার আবেদন জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় আহ্বান জানায়। কিন্তু সেই চিকিৎসা শুরু হওয়ার আগেই তিনি মারা গেলেন।

Loading videos...

১৯৭৫ সালে কলকাতা হাইকোর্টে আইনজীবী হিসেবে কর্মজীবন শুরু করে অমিতাভবাবুর। পরবর্তী কালে সেখানেই বিচারপতি হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন তিনি। ২০০৫-এ এলাহাবাদ হাইকোর্টে বদলি হন তিনি। ২০১২ সালে অবসর নেওয়া আগে সেখানে বেশ ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি হিসেবে কাজ করেন।

বিচারপতি হিসেবে এ রাজ্যে থাকাকালীন তিনিই প্রথম রাস্তা আটকে মিছিল-মিটিং করার বিরুদ্ধে স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে মামলা দায়ের করার নির্দেশ দিয়েছিলেন। সেটা ২০০৪ সাল। এক দিন হাইকোর্টে যাওয়ার পথে তাঁর গাড়ি প্রবল যানজটে আটকায়।

আদালতে পৌঁছোতে তাঁর অনেক দেরি হয়। তিনি বলেছিলেন, কলকাতা শহরে কাজের দিনে অফিস টাইমে রাস্তা আটকে মিছিল বন্ধ করা উচিত। এই নিয়ে তৎকালীন সিপিএম নেতাদের রোষের মুখে পড়তে হয় বিচারপতি লালাকে।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

‘প্রিয়ঙ্কা-সালামাতকে আমরা হিন্দু-মুসলিম হিসেবে দেখি না,” ঐতিহাসিক রায় এলাহাবাদ হাইকোর্টের

Continue Reading
Advertisement
ফুটবল6 seconds ago

জীবনের প্রথম ডার্বিতে নামার জন্য মুখিয়ে রয়েছেন সন্দেশ জিঙ্ঘান

ক্রিকেট22 mins ago

প্রথম দুটি টেস্ট থেকে বাদ রোহিত-ইশান্ত, সংশয়ে শেষ দুটি টেস্টে উপস্থিতি নিয়েও

শিক্ষা ও কেরিয়ার42 mins ago

টেট-২০১৪ পাশ যোগ্য প্রার্থীদের শিক্ষকপদে নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি

রাজ্য1 hour ago

“এক দল, এক ভাষা আনতে চাইছে বিজেপি”, কেন্দ্রের শাসক দলকে নিশানা সৌগত রায়ের

Feni Railway Station
দেশ2 hours ago

ফেনী-বিলোনিয়া রেলপথের কাজ শুরু হচ্ছে শিগগিরই, দাউদকান্দি-সোনামুড়া জলপথ খননে হাত লাগাবে বাংলাদেশ

দেশ2 hours ago

দুর্ভাগ্য! ভ্যাকসিন নিয়ে রাজনীতি হচ্ছে, বৈঠকে বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

রাজ্য3 hours ago

টিকাকরণে এক সঙ্গে কাজ করতে প্রস্তুত রাজ্য, প্রধানমন্ত্রীকে জানালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

কলকাতা3 hours ago

পাইপ ফেটে বিপত্তি, শনিবার সকাল থেকে রবিবার বিকেল পর্যন্ত বন্ধ টালা থেকে জল সরবরাহ

কেনাকাটা

কেনাকাটা3 days ago

লিভিংরুমকে নতুন করে দেবে এই দ্রব্যগুলি

খবর অনলাইন ডেস্ক: ঘরের একঘেয়েমি কাটাতে ও সৌন্দর্য বাড়াতে ডিজাইনার আলোর জুড়ি মেলা ভার। অ্যামাজন থেকে তেমনই কয়েকটি হাল ফ্যাশনের...

কেনাকাটা6 days ago

কয়েকটি প্রয়োজনীয় জিনিস, দাম একদম নাগালের মধ্যে

খবর অনলাইন ডেস্ক: কাজের সময় হাতের কাছে এই জিনিসগুলি থাকলে অনেক খাটুনি কমে যায়। কাজও অনেক কম সময়ের মধ্যে করে...

কেনাকাটা3 weeks ago

দীপাবলি-ভাইফোঁটাতে উপহার কী দেবেন? দেখতে পারেন এই নতুন আইটেমগুলি

খবর অনলাইন ডেস্ক : সামনেই কালীপুজো, ভাইফোঁটা। প্রিয় জন বা ভাইবোনকে উপহার দিতে হবে। কিন্তু কী দেবেন তা ভেবে পাচ্ছেন...

কেনাকাটা4 weeks ago

দীপাবলিতে ঘর সাজাতে লাইট কিনবেন? রইল ১০টি নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আসছে আলোর উৎসব। কালীপুজো। প্রত্যেকেই নিজের বাড়িকে সুন্দর করে সাজায় নানান রকমের আলো দিয়ে। চাহিদার কথা মাথায় রেখে...

কেনাকাটা2 months ago

মেয়েদের কুর্তার নতুন কালেকশন, দাম ২৯৯ থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজো উপলক্ষ্যে নতুন নতুন কুর্তির কালেকশন রয়েছে অ্যামাজনে। দাম মোটামুটি নাগালের মধ্যে। তেমনই কয়েকটি রইল এখানে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা2 months ago

‘এরশা’-র আরও ১০টি শাড়ি, পুজো কালেকশন

খবর অনলাইন ডেস্ক : সামনেই পুজো আর পুজোর জন্য নতুন নতুন শাড়ির সম্ভার নিয়ে হাজর রয়েছে এরশা। এরসার শাড়ি পাওয়া...

কেনাকাটা2 months ago

‘এরশা’-র পুজো কালেকশনের ১০টি সেরা শাড়ি

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো কালেকশনে হ্যান্ডলুম শাড়ির সম্ভার রয়েছে ‘এরশা’-র। রইল তাদের বেশ কয়েকটি শাড়ির কালেকশন অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা2 months ago

পুজো কালেকশনের ৮টি ব্যাগ, দাম ২১৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : এই বছরের পুজো মানে শুধুই পুজো নয়। এ হল নিউ নর্মাল পুজো। অর্থাৎ খালি আনন্দ করলে...

কেনাকাটা2 months ago

পছন্দসই নতুন ধরনের গয়নার কালেকশন, দাম ১৪৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজোর সময় পোশাকের সঙ্গে মানানসই গয়না পরতে কার না মন চায়। তার জন্য নতুন গয়না কেনার...

কেনাকাটা2 months ago

নতুন কালেকশনের ১০টি জুতো, ১৯৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো এসে গিয়েছে। কেনাকাটি করে ফেলার এটিই সঠিক সময়। সে জামা হোক বা জুতো। তাই দেরি...

নজরে