Partha Chatterjee
মৃতদের পরিবারের সঙ্গে মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়-সহ অন্যান্য তৃণমূল নেতৃত্ব

ওয়েবডেস্ক: শান্তিপুরে বিষমদ খেয়ে মৃতদের পরিবারের সঙ্গে শুক্রবার দেখা করেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। এ দিন তিনি মৃতদের পরিবার পিছু দু’লক্ষ টাকার চেক তুলে দেন। এ দিনই সেখানে গিয়ে বিক্ষোভের মুখে পড়ল বিজেপির প্রতিনিধি দল। জানা গিয়েছে, মুকুল রায়, কৈলাশ বিজয়বর্গীয়-সহ বিজেপি নেতৃত্বকে কালো পতাকা দেখান স্থানীয় মানুষ।

গত বুধবার সকাল থেকে শান্তিপুরে বিষমদ খেয়ে মৃত্যুর মিছিল লেগে যায়। মৃতের সংখ্যা বাড়তে বাড়তে পৌঁছায় ১২-য়। বিষমদ খেয়ে মারা গিয়েছে এই কাণ্ডের অন্যতম অভিযুক্ত চন্দন মাহাতও। ঘটনার শুরু থেকেই পরেই নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। সাসপেন্ড করা হয় আবগারি দফতরের একাধিক আধিকারিককে। ক্লোজ করা হয় শান্তিপুর থানার ওসিকেও।

বৃহস্পতিবার বিষমদ কাণ্ডে অভিযুক্তদের ধরতে রাতভর অভিযান চলে শান্তিপুরে৷ এর পরেই লাগাতার তল্লাশি করে প্রথমে চার জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ধৃত সেই চার জনকে জেরা করেই চোলাই মদের কারবারের কিংপিন গণেশ হালদারের হদিশ পাওয়া যায়। ধৃত পাঁচ জনকেই জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিজেদের হেফাজতে নেয় পুলিশ।

এ দিন পার্থবাবুর সঙ্গে ছিলেন কারামন্ত্রী ও জেলার নেতা উজ্জ্বল বিশ্বাস৷ অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্রের ঘোষণা মতোই তাঁরা মৃতদের পরিবারের হাতে দু’লক্ষ টাকার চেক তুলে দেন। এমনকী শান্তিপুর স্টেট জেনারেল হাসপাতালে গিয়ে পার্থবাবু দেখা করেন অসুস্থদের সঙ্গেও। হাসপাতালের সুপারের সঙ্গেও তিনি কথা বলেন৷

আরও পড়ুন: হাজিরা না থাকা সত্ত্বেও পরীক্ষায় বসতে দেওয়ার দাবি, উত্তাল হেরম্বচন্দ্র কলেজ

অন্য দিকে এ দিনই মৃতের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাতে শান্তিপুরের উদ্দেশে রওনা দেয় বিজেপির প্রতিনিধি দল। কিন্তু শহরে ঢোকার মুখেই তারা স্থানীয় মানুষের বিক্ষোভের মুখে পড়ে। এমনকী মুকুলবাবু ও কৈলাশ বিজয়বর্গীয়দের কালো পতাকা দেখানো হয় বলেও জানা গিয়েছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here