metiaburuj ps

কলকাতা: থানার মধ্যে এক আসামির ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হওয়াকে কেন্দ্র করে এলাকায় সৃষ্টি হল চাঞ্চল্য৷ পরিস্থিতির মোকাবিলায় এল বিরাট পুলিশবাহিনী। নামল র‍্যাফ।

পুলিশ সুত্রে জানা গিয়েছে, নাদিয়াল এলাকার বাসিন্দা ১৮ বছরের যুবক আকিবুল ইসলাম৷ মঙ্গলবার তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মেটিয়াবুরুজ থানায় ডেকে পাঠানো হয়৷ সোনার গয়না চুরির অভিযোগ ছিল তাঁর বিরুদ্ধে৷ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানার দোতলায় একটি ঘরে তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয়৷ তদন্তকারী অফিসার ঘরের বাইরে যান। পরে দেখা যায় ঘরের মধ্যেই বেল্ট ও জুতোর ফিতের সাহায্যে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে বাঁধা অবস্থায় ঝুলছেন তিনি। উদ্ধার করা হয় তাঁর ঝুলন্ত দেহ৷

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে থানা চত্বরে তৈরি হয় ব্যাপক উত্তেজনা। বিরাট পুলিশবাহিনী ও র‍্যাফ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। দেহ ময়নাতদন্তের জন্য এসএসকেএম হাসাপাতালে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনায় অস্বাভাবিক মৄত্যুর মামলা রুজু করেছে পুলিশ।

থানার মধ্যেই কী করে এক যুবক আত্মহত্যা করলেন তা নিয়ে পুলিশের ভুমিকায় প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে৷ বিষযটি তদন্ত করে খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন ডিসি পোর্ট ওয়াকার রাজা৷ তিনি বলেন, এই ঘটনায় কারোর গাফিলতি সামনে এলে আইন অনুযায়ী উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে তাঁর বিরুদ্ধে৷

ঘটনার তদন্ত দাবি করেছে মানবাধিকার সংগঠন এপিডিআর। বুধবার সংগঠনের একটি প্রতিনিধি দল মেটিয়াবুরুজ থানায় তদন্ত অনুসন্ধানে যাবে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here