সাহিত্যিক বুদ্ধদেব গুহ প্রয়াত

0

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সাহিত্যিক বুদ্ধদেব গুহ প্রয়াত। বয়স হয়েছিল ৮৫ বছর। রবিবার রাত ১১টা নাগাদ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন এই প্রবীণ সাহিত্যিক। তাঁর মৃত্যুতে বাংলার সাহিত্যজগতের একটি যুগের অবসান হল।

গত ৩১ জুলাই থেকে দক্ষিণ কলকাতার বেলভিউ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন বুদ্ধদেব। সেখানেই রবিবার রাতে মারা যান তিনি।

চলতি বছরের এপ্রিলে কোভিডে আক্রান্ত হয়েছিলেন অশীতিপর এই সাহিত্যিক। সেই সময় শহরের একটি হোটেলে নিভৃতবাসে থাকার পর, তাঁকে হাসপাতালেও ভরতি হতে হয়। ৩৩ দিন লড়াইয়ের পর করোনামুক্ত হয়ে বাড়ি ফেরেন বুদ্ধদেব। কোভিডযুদ্ধ জিতলেও বর্তমান অসুস্থতা আর কাটিয়ে উঠতে পারলেন না সাহিত্যিক।

হাসপাতাল সূত্রে খবর, শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যার পাশাপাশি বুদ্ধদেবের মূত্রনালীতে সংক্রমণ ধরা পড়েছিল। এ ছাড়া তাঁর লিভার এবং কিডনিতেও সামান্য সমস্যা ছিল বলে জানিয়েছিলেন চিকিৎসকেরা। দৃষ্টিশক্তির সমস্যায় ভোগা বুদ্ধদেব বয়সজনিত নানা সমস্যাতেও ভুগছিলেন

সমকালীন বাংলা সাহিত্যে নিজের জায়গা গড়ে নিয়েছিলেন বুদ্ধদেব। প্রথম প্রকাশিত গ্রন্থ ‘জঙ্গল মহল’-এর পর থেকে একাদিক্রমে তাঁর উপন্যাস প্রকাশিত হয়েছে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ‘কোয়েলের কাছে’, ‘একটু উষ্ণতার জন্য’, খেলা যখন’ ‘মাধুকরী’, ‘কোজাগর’, ‘অববাহিকা’, ‘বাবলি।’ ইত্যাদি। তাঁর সৃষ্ট ‘ঋজুদা’ বা ‘ঋভু’র মতো চরিত্র আকৃষ্ট করে রেখেছে কয়েক প্রজন্মের বহু কিশোর-কিশোরীর মনকে।

প্রখ্যাত রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী ঋতু গুহ তাঁর স্ত্রী ছিলেন। তিনি ২০১১ সালে প্রয়াত হন। বুদ্ধদেব নিজেও সুকণ্ঠের অধিকারী ছিলেন।

আরও পড়তে পারেন

সংক্রমণ কমল রাজ্যে, আপাত স্বস্তি কলকাতায়

কোভোভ্যাক্সের পরীক্ষামূলক প্রয়োগে ২-১৭ বছর বয়সি স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ শুরু হল

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন