cutmoney
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: মুখ্যমন্ত্রীর ‘কাটমানি ফেরত দিন’ ঘোষণার পরই রাজ্য জুড়ে হয়ে গিয়েছে ‘কাটমানি-বিপ্লব’। পুরসভার কাউন্সিলার থেকে গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্যদের নামে উঠছে ঝুড়ি ঝুড়ি অভিযোগ। এরই মধ্যে কাটমানি খাওয়ার অভিযোগে বিদ্ধ হলেন তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ শান্তনু সেন।

সিঁথির এক ব্যবসায়ী সুমন্ত্র চৌধুরী ওরফে নান্তিবাবু অভিযোগ তুলেছেন শান্তনুর বিরুদ্ধে। তাঁর অভিযোগ, কলকাতা পুরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলার বর্তমানে ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি তথা সাংসদ শান্তনু তাঁর কাছ থেকে ৪০-৪২ লক্ষ টাকা আদায় করেছেন। সঙ্গে তিনি কবে কত টাকা নিয়েছেন, সে সবেরও একটা মৌখিক পরিসংখ্যান তুলে ধরেছেন।

বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে নান্তিবাবুর এই অভিযোগ ফলাও করে প্রকাশিত হওয়ার পরই প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন শান্তনু। তিনি জানিয়েছেন, “ওঁর সঙ্গে আদালতে দেখা হবে। এর বেশি কিছু এখন বলব না”।

তবে নিজের মতে অনড় নান্তিবাবু। তিনি জানিয়েছেন, “সিঁথির বুকে সিন্ডিকেট শুরু করেছিলেন শান্তনুবাবুই। আমার পরিবারের ইট-বালির ব্যবসা বহু দিনের। তবুও কোনো কাজ করতে গেলে সিন্ডিকেটের দ্বারস্ত হতে হতো। সরঞ্জামের গুণগত মান নিয়ে প্রশ্ন তুলে টাকা মারত”।

একই সঙ্গে তাঁর অভিযোগ, “প্রথমে গাড়ি-মাইক ভাড়ার জন্য ২৫ হাজার টাকা দিয়ে শুরু হয়েছিল। পরে কাঠা পিছু দু’লক্ষ টাকা ধার্য করা হয়”।

এত দিন কেন প্রতিবাদ করেননি? এমন প্রশ্নের উত্তরে ওই ব্যবসায়ী জানিয়েছেন, “মুখ্যমন্ত্রী কাটমানি নিয়ে সরব হতেই সাহস পেয়েছি”।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন