কলকাতা হাইকোর্ট
কলকাতা হাইকোর্ট। প্রতীকী ছবি: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস থেকে

কলকাতা: স্কুল সার্ভিস কমিশন (এসএসসি)-এর গ্রুপ-ডি পদে বিতর্কিত নিয়োগ মামলায় ৯৮ জনের বেতন বন্ধের পাশাপাশি তাঁদের স্কুলে ঢোকায় নিষেধাজ্ঞা জারি করল বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের সিঙ্গল বেঞ্চ। একই সঙ্গে, এই মামলায় সিবিআই-কে এফআইআর দায়ের করার নির্দেশ দিল বেঞ্চ। আদালত জানিয়েছে, নির্দেশ যাতে মানা হয় তা নিশ্চিত করবেন জেলা স্কুল পরিদর্শক।

অর্থাৎ, এই ৯৮ জন যেমন গ্রুপ-ডি কর্মী হিসেবে কাজ করতে পারবেন না, তেমনই সিবিআইকে সম্পূর্ণ স্বাধীনতা দেওয়া হল। তারা এ বিষয়ে যে কোনো প্রশ্ন করতে পারে। এই মামলার পরবর্তী শুনানি আগামী সোমবার।

অন্য দিকে, ডিভিশন বেঞ্চে গিয়ে সিবিআই জেরা থেকে সাময়িক রেহাই পেয়েছেন এসএসসি-র প্রাক্তন উপদেষ্টা শান্তিপ্রসাদ সিন্হা। সিবিআই তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারবে না। শুক্রবার এমনই নির্দেশ দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ।

বৃহস্পতিবার বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের একক বেঞ্চের নির্দেশ দিয়েছিল, এসএসসি-র তৎকালীন উপদেষ্টা শান্তিপ্রসাদ সিনহাকে রাত ১২টার মধ্যে ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে সিবিআই। তবে হাইকোর্টের বিচারপতি সৌমেন সেন এবং বিচারপতি অজয়কুমার মুখোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ অন্তর্বর্তীকালীন নির্দেশিকায় জানিয়েছে, শান্তিপ্রসাদকে সোমবার পর্যন্ত জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারবে না সিবিআই। তাঁকে আর সিবিআইয়ের কাছে যেতেও হবে না।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে গ্রুপ-ডি পদে ৯৮ জন নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছিল। প্যানেলের মেয়াদ শেষ হয় ৪ মে ২০১৯। তখন অভিযোগ ওঠে, ৯০ জনের নাম প্যানেলে নেই। সেই ৯৮ জনেরই বেতন বন্ধের নির্দেশ দেয় আদালত। অন্য দিকে, প্রাক্তন উপদেষ্টা শান্তিপ্রসাদের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে। রাজ্যে বিভিন্ন স্কুলে লাগাতার বেআইনি নিয়োগ নিয়ে আদালতের কাছে একের পর এক মামলা আসছে। সেক্ষেত্রে বহু মামলায় সিনহার নির্দেশ নিয়োগ হয়েছে বলে তথ্য রয়েছে আদালতের কাছে।

আরও পড়তে পারেন:

ঝালদার কংগ্রেস কাউন্সিলার তপন কান্দু খুনে গ্রেফতার মূল চক্রী

প্রেসিডেন্টের পদত্যাগের দাবিতে উত্তাল কলম্বো, বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে দফায় দফায় সংঘর্ষ পুলিশের

টেস্ট বাড়ার ফলে সামান্য বেড়ে তেরোশোর ঘরে ঢুকল ভারতের করোনা সংক্রমণ

মাস্ক না পরলে আর জরিমানা নয় দিল্লিতে

সব কোভিডবিধি উঠিয়ে দিয়ে মহারাষ্ট্র জানিয়ে দিল মাস্কও আর বাধ্যতামূলক নয়

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন