ডিএ নিয়ে সরকারি কর্মচারীদের মৌলিক অধিকার খর্ব করা হচ্ছে: কলকাতা হাইকোর্ট

কলকাতা: ডিএ মামলায় বৃহস্পতিবার রাজ্য সরকারকে তীব্র আক্রমণ করল কলকাতা হাইকোর্ট। মঙ্গলবারের শুনানিতে সরকারের অ্যাডভোকেট জেনারেল বলেছিলেন, সরকার কত ডিএ দেবে বা কেন্দ্রের সঙ্গে রাজ্যের মহার্ঘ ভাতার ফারাক থাকবে কিনা, তা নিয়ে মতামত দেওয়ার এক্তিয়ার নেই রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের। সেই প্রসঙ্গে এদিন এজি-কে জোরালো ভর্ৎসনা করেন বিচারপতি দেবাশিস করগুপ্ত ও বিচারপতি এইচ বি শরাফের ডিভিশন বেঞ্চ।

ডিভিশন বেঞ্চ এদিন বলে,”সরকারি কর্মচারীদের সঙ্গে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের মহার্ঘ ভাতার বৈষম্য কেন ? এই রাজ্যের যে কর্মীরা রাজ্য সরকারের হয়ে চেন্নাই বা দিল্লিতে কাজ করেন তাদের সঙ্গে রাজ্যে কর্মরত সরকারি কর্মীদের মহার্ঘ ভাতায় বৈষম্য কেন ? বঙ্গভবন আর চেন্নাইতে কর্মরত সরকারি কর্মীরা কি রাজ্যের ব্লু আইড বয়?
এই প্রশ্নের উত্তর সরকারি কর্মীরা সরকার বা স্যাট, কারো কাছ থেকেই পাননি।
তারা নিরাশ হয়েছেন। তাদের মৌলিক অধিকার খর্ব করা হয়েছে। বৈষম্য করার অর্থই হচ্ছে মানুষের মৌলিক অধিকার খর্ব করা।
সরকার যদি তার কর্মচারীদের মধ্যে বৈষম্য করে তবে তার নির্দিষ্ট কারণ ব্যাখ্যা করা দরকার।“

মামলার পরবর্তী শুনানি আগামী ৩ জুলাই। সেদিন বিচারপতিদের এই প্রশ্নের কী উত্তর দেয় রাজ্য সরকার, সেটাই দেখার।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.