ইন্দ্রাণী সেন

বাঁকুড়া: গত আগস্টের ঘটনা। প্রবল বৃষ্টির জেরে বাঁকুড়া শহরে তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়েছিল একটি বাড়ি। শহরের একটা বিস্তীর্ণ অঞ্চল বন্যা কবলিত হয়েছিল। দু’দিনের বৃষ্টিতে মানুষের মধ্যে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়। সমস্ত কিছু পর্যবেক্ষণ করে বিশেষজ্ঞের অভিমত ছিল, যত্রতত্র যথেচ্ছ ভাবে প্লাস্টিক ও থার্মোকলের ব্যবহারের ফলেই এই দশা হয়েছে বাঁকুড়া শহরের।

এ বার তাই প্রশাসনের তৎপরতায় প্লাস্টিক ও থার্মোকল মুক্ত বাঁকুড়া গড়তে পথে নামলেন জেলাশাসক ডা. উমাশঙ্কর এস। শুক্রবার বাঁকুড়া পুরসভার উদ্যোগে এ বিষয়ে এক সচেতনতামূলক পদযাত্রা বের হয়। এলাকার ছাত্রছাত্রী, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলির সদস্য এবং বিশিষ্টজনদের নিয়ে সুদৃশ্য ট্যাবলো-সহ এক পদযাত্রা শহর পরিক্রমা করে। জেলাশাসক ডা. উমাশঙ্কর এস ছাড়াও পদযাত্রায় অংশ নেন সদর মহকুমাশাসক  সুদীপ্ত দাস, বিধায়ক শম্পা দরিপা, পুরপ্রধান মহাপ্রসাদ সেনগুপ্ত ও উপ-পুরপ্রধান দিলীপ আগরওয়াল প্রমুখ।

জেলাশাসক বলেন, “মিশন নির্মল বাংলার প্রচারে জেলা জুড়েই প্লাস্টিক ও থার্মোকলের ব্যবহার বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সেই উপলক্ষ্যেই সচেতনতা শিবির অনুষ্ঠিত হল। গ্রাম পঞ্চায়েত থেকে পুরসভা সব জায়গাতেই এই ধরণের সচেতনতা মূলক পদযাত্রা ধারাবাহিক ভাবে চালানো হবে।” পুরপ্রধান মহাপ্রসাদ সেনগুপ্ত বলেন, “দু’বছর আগে প্লাস্টিক বর্জনের কাজ শুরু হলেও অনেকাংশে সফলতা আসেনি। পুনরায় প্লাস্টিক ব্যবহার শুরু হয়েছিল। এ বার শহরকে প্লাস্টিক মুক্ত করতে তাই মিশন নির্মল বাংলা ও জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে এই কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে।”

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here