Congress

ওয়েবডেস্ক: গত কয়েক বছরে কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন প্রায় ডজনখানেক দলীয় বিধায়ক। তাঁদের মধ্যে কেউ কেউ কি ফের কংগ্রেসে ফিরতে চাইছেন? তৃণমূলের পতাকা হাতে তুলে নেওয়ার পরেও কি তাঁরা গোপনে যোগাযোগ রাখছেন প্রদেশ কংগ্রেস নেতৃত্বের সঙ্গে? বিধানসভার পরিষদীয় দলের সঙ্গে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমনে মিত্রের আলোচনার পর তেমন প্রশ্নই ঘুরে বেড়াচ্ছে রাজ্য রাজনীতিতে!

মঙ্গলবার বিধানসভায় কংগ্রেসের ঘরে দলীয় বিধায়কদের সঙ্গে মিলিত হন সোমেনবাবু। সেখানে তিনি আগামী ১২ ডিসেম্বর রানি রাসমণি অ্যাভিনিউয়ে জমায়েত নিয়ে বিশদ আলোচনা করেন। বিধায়কদের নির্দেশ দেন, তাঁর যেন নিজের নিজের এলাকায় সাংগঠিনক কাজে আরও বেশি করে মনোযোগ দেন। একই সঙ্গে তিনি মনে করিয়ে দেন, আগামী লোকসভা ভোটে অন্য কোনো রাজনৈতিক দলের সঙ্গে জোট নিয়ে তৈরি হওয়া জল্পনা মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলতে হবে। পাশাপাশি তিনি বলেন, বিভিন্ন কারণে যে সসমস্ত কর্মী দূরে সরে গিয়েছেন, যে বিধায়করা কংগ্রেসের প্রতীকে জিতে  অন্য দলে চলে গিয়েছেন, তাঁর ফিরতে চাইলে কংগ্রেস তাঁদের স্বাগত জানাবে। এ ব্যাপারে দলের বর্তমান নেতা-কর্মীদের সঙ্গে আলোচনা করেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনের পর থেকে যাঁরা কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে গিয়েছেন, তাঁরা এখনও খাতায়-কলমে কংগ্রেসের বিধায়কই আছেন। কারণ, বিধায়কপদ থেকে ইস্তফা দিয়ে তাঁরা পুনরায় নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে বিধায়ক হননি। কংগ্রেস সূত্রে দাবি করা হয়েছে, তাঁদের মধ্যেই কেউ কেউ ফের কংগ্রেসে ফিরতে যোগাযোগ করছেন। তবে তাঁরা কারা, সে বিষয়ে খোলসা করে এখনও পর্যন্ত কিছু জানানো হয়নি।

এ ব্যাপারে দলের বিশ্বস্ত সৈনিক তথা বিধায়ক মনোজ চক্রবর্তী সংবাদ মাধ্যমের কাছে জানিয়েছেন, বিভিন্ন রকমের প্রলোভনে অথবা মিথ্যা মামলায় ভয় পেয়ে কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যাঁরা নাম লিখিয়েছেন, তাঁদের অনেকেই স্বস্তিতে নেই।

ফলে সেই অস্বস্তিই কি ফের দলবদলের দিকে তাঁদের ঠেলে দিচ্ছে? এমন প্রশ্নের উত্তর হয়তো মিলতে পারে কয়েক মাসের মধ্যেই।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here