আসানসোল: গরু পাচার মামলায় চার্জশিট জমা দিল সিবিআই। শুক্রবার আসানসোল সিজেএম আদালতে জমা দেওয়া চার্জশিটে বীরভূমের জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের বিপুল সম্পত্তির তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে।

গ্রেফতারের ৫৭ দিনের মাথায় চার্জশিট, বিপুল সম্পত্তির তথ্য

অনুব্রতকে গ্রেফতার করার ৫৭ দিনের মাথায় এই চার্জশিট জমা পড়ল। সেখানে অনুব্রতর নাম রয়েছে বলে সূত্রের খবর। গরু পাচার মামলায় এই নিয়ে চতুর্থ চার্জশিট জমা পড়ল। এর আগে তিনটি সাপ্লিমেন্টারি চার্জশিট জমা পড়েছে আগে।

চার্জশিটে উল্লেখ রয়েছে ১৮ কোটি টাকার ফিক্সড ডিপোজিট, ৫৩টি দলিল। পাশাপাশি অনুব্রতের নামে চার্জশিটে প্রায় ২৫টি বেনামি দলিলের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। সূত্রের খবর, এই বিপুল সম্পত্তি রয়েছে অনুব্রতের পরিবারের।  যদিও তাঁর কোনো বেনামি সম্পত্তি নেই বলে দাবি করেছেন অনুব্রত।

অনুব্রতের নামে চার্জশিটে চালকলের কথাও উল্লেখ করা হয়েছে। তিনটি চালকলের কথা বলা হয়েছে। চালকলগুলির নামে বিভিন্ন ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের তথ্যও তুলে ধরা হয়েছে।

এ বার নাম রয়েছে অনুব্রত মণ্ডলের!

এতদিন পর্যন্ত যে তিনটি সাপ্লিমেন্টারি চার্জশিট জমা দেওয়া হয়েছিল। গত বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে প্রথম চার্জশিট দেওয়া হয়েছিল। চার্জশিটে মোট ১২ জনের নাম ছিল বলে সূত্রের খবর। নাম রয়েছে এনামুল হক, এনামুলের স্ত্রী, আব্দুল লতিফ, সায়গল হোসেনের। এর আগে যে চার্জশিট জমা দেওয়া হয়েছিল, তাতে সরাসরি অনুব্রত সম্পর্কিত তথ্যের উল্লেখ ছিল না। তবে এ বার অনুব্রত নাম রয়েছে বলেই সূত্রের খবর।

৩৫ পাতার চার্জশিটে অনুব্রতের নামে একাধিক ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে। ভারতীয় দণ্ডবিধির ১০৯, ১২০বি, ৪২০, ৭,৯, ১১, ১২, ১৩(২), ১৩(১)(ডি) ধারা উল্লেখ করেছে সিবিআই। আগামী ২৯ অক্টোবর সিবিআই আদালতে ফের অনুব্রতর মামলার শুনানি রয়েছে।

খবর অনলাইন-এ আরও পড়ুন:

কোন দিকে ভারত-মার্কিন সম্পর্ক? তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য পেন্টাগনের

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন