দেড় ঘণ্টা পর অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়ি ছাড়লেন সিবিআই আধিকারিকরা

0

খবর অনলাইন ডেস্ক: মঙ্গলবার সকালে পূর্বনির্ধারিত ভাবেই তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়িতে পৌঁছালো সিবিআইয়ের বিশেষ প্রতিনিধি দল। এ দিন সিবিআই আধিকারিকরা জিজ্ঞাসাবাদ করছেন অভিষেকের স্ত্রীকে।

এ দিন সকালে দক্ষিণ কলকাতায় অভিষেকের বাড়িতে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি সেখানে আট-ন’মিনিট কাটান। মমতা ওই বাড়ি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার চার মিনিটের মাথায় পৌঁছান সিবিআই আধিকারিকেরা। এ দিন সকাল ১১.৩৬ মিনিটে সিবিআই-এর বিশেষ প্রতিনিধি দল অভিষেকের বাড়িতে পৌঁছায়।

Loading videos...

সিবিআইয়ের বিশেষ প্রতিনিধি দলে রয়েছেন অ্যাডিশনাল এসপি পদমর্যাদার তদন্তকারী অফিসার উমেশ কুমার, ডিএসপি পদমর্যাদার দুই মহিলা আধিকারিক এবং আইনজীবী-সহ ন’জন।

একটি সূত্রের খবর, অভিষেক-পত্নী রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে মূলত তাঁর ব্যাঙ্ককের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট সংক্রান্ত তথ্য জানতে চাইবে সিবিআই । ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের লেনদেন সংক্রান্ত কপি দেখিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে।

প্রসঙ্গত, রবিবার কয়লাপাচার মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রুজিরা এবং তাঁর বোনকে নোটিশ ধরায় সিবিআই। ফৌজদারি আইনের ১৬০ ধারায় তাঁদরে নোটিস পাঠানো হয়েছে। রুজিরার বোন মেনকা গম্ভীরকে সোমবার জিজ্ঞাসাবাদ করে সিবিআই। পৌনে তিন ঘণ্টা ধরে ম্য়ারাথন জিজ্ঞাসাবাদ করে সিবিআই। এ দিন চলছে রুজিরাকে জিজ্ঞাসাবাদ।

সিইবিআই সূত্রের খবর, অভিযুক্ত হিসেবে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে না রুজিরাকে, তাঁর সাক্ষ্যগ্রহণ করা হচ্ছে। আগের দিন তাঁর বোনের কাছ থেকে যে তথ্য পেয়েছে সিবিআই, সে সবই মিলিয়ে দেখা হচ্ছে। তাঁর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে যে সমস্ত আর্থিক লেনদেন হয়েছে, সে সবের বৈধতা নিয়েই প্রশ্ন করা হয়।

জানা গিয়েছে, রুজিরা তদন্তে সবরকম ভাবে সহযোগিতা করছেন সিবিআই-কে। তাঁর বয়ান ভিডিও রেকর্ড করা হয়।

অভিষেকের বাড়ি থেকে বেরিয়ে গেল সিবিআই টিম। প্রায় দেড় ঘণ্টার জিজ্ঞাসাবাদ শেষে অভিষেকের বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান তদন্তকারী অফিসাররা। সূত্রের খবর, রুজিরাকে জিজ্ঞাসাবাদ করার পর বেলা ১.১০টা নাগাদ সিবিআই আধিকারিকরা নিজাম প্যালেসের দিকে রওনা দেন। সেখানে গিয়ে তাঁরা বৈঠক করবেন। সেখান থেকেই স্থির হবে পরবর্তী পদক্ষেপ।

আপডেট আসছে…

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.