মুকুল রায়ের আবেদন ফেরাল সিবিআই

0
Mukul Roy on narada case
মুকুল রায়। প্রতীকী ছবি

কলকাতা: শুক্রবার নারদকাণ্ডের তদন্তে বিজেপি নেতা মুকুল রায়কে তলব করেছিল সিবিআই। কিন্তু দলীয় কর্মসূচিতে ব্যস্ত থাকার কারণ দেখিয়ে তিনি চিঠি মারফত জানিয়ে দেন, এ দিন তিনি নিজাম প্যালেসে সিবিআই দফতরে যেতে পারবেন না। হাজিরার জন্য তাঁকে আগামী ২ অক্টোবর পর্যন্ত সময় দেওয়া হোক। কিন্তু এ দিনই ফের মুকুলকে জেরার জন্য তলব করল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা।

সূত্রের খবর, শুক্রবার রাজ্যে আসবেন বিজেপির কার্যনির্বাহী সভাপতি জেপি নাড্ডা। স্বাভাবিক ভাবেই কেন্দ্রীয় নেতাকে নিয়ে দলীয় কাজে ব্যস্ত থাকতে পারেন মুকুল। সম্ভবত সেই কারণেই তিনি সিবিআইয়ের ডাকে হাজিরা দিতে পারছেন না বলে জানা যায়। একই সঙ্গে মুকুল সিবিআইকে দেওয়া চিঠিতে জানান, আগামী ২ অক্টোবর পর্যন্ত তাঁকে সময় দেওয়া হোক।

মুকুলের এই দাবি নস্যাৎ করে ফের তাঁকে তলব করল সিবিআই। জানা গিয়েছে, আগামী শনিবারই তাঁকে সিবিআইয়ের মুখোমুখি হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার ধৃত আইপিএস এস এম এইচ মির্জার মুখোমুখি বসিয়ে মুকুলকে জেরা করতে চায় সিবিআই। সে কারণেই মির্জাকে গ্রেফতার করার পরেই মুকুলকে ডেকে পাঠায় সিবিআই।

নারদ স্টিং অপারেশনের ভিডিও ফুটেজে দেখা গিয়েছিল, নারদকর্তা ম্যাথিউ স্যামুয়েলকে তৎকালীন বর্ধমান জেলা পুলিশ সুপার মির্জার কাছে যেতে বলছেন মুকুল।

মির্জাকে গ্রেফতারের পরই সাংবাদিক বৈঠক ডেকে মুকুল দাবি করেন, তাঁকে টাকা দিতে কেউ আসেননি। তিনি কোনো টাকা নেননি। এমন ছবিও কোথাও নেই। টাকা লেনদেনের ব্যাপারেও তিনি কিছু জানেন না।

একই সঙ্গে মুকুল স্বীকার করেন, “বর্ধমানে ব্যবসা করতে চেয়েছিলেন ম্যাথিউ। তাই আমি তাঁকে বর্ধমানের তৎকালীন পুলিশ সুপারের নাম বলেছিলাম। ব্যবসার জমি পেতে এসপির সাহায্য লাগে, সেই জন্য তাঁকে মির্জার কথা বলেছিলাম। তদন্ত নিজের গতিতেই এগোবে”।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.