আলিপুর আদালতে রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত পদক্ষেপের আর্জি সিবিআইয়ের

0

ওয়েবডেস্ক: একাধিক বার নোটিশ দেওয়া সত্ত্বেও সিবিআইয়ের মুখোমুখি হননি কলকাতার প্রাক্তন নগরপাল রাজীব কুমার। সারদা আর্থিক কেলেঙ্কারির তদন্তে এ বার তাঁর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির আবেদন জানাল সিবিআই। বৃহস্পতিবার আলিপুর আদালতে রাজীব বনাম সিবিআই মামলার শুনানিতে এই আবেদন জানানো হয়।

সিবিআইয়ের অভিযোগ, সারদা আর্থিক কেলেঙ্কারির তদন্তে রাজীবকে একাধিক বার জেরার জন্য নোটিশ পাঠানো হয়েছে। কিন্তু তিনি প্রকাশ্যে না এসে আত্মগোপন করে রয়েছেন।

আলিপুর আদালতের অ্যাডিশনাল চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (এসিজেএম)-এর কাছে সিবিআইয়ের আইনজীবী সওয়াল করতে গিয়ে স্পষ্টতই বলেন, তদন্তে সহযোগিতা করছেন না রাজীব।

বর্তমানে রাজীব সিআইডির অ্যাডিশনাল ডিরেক্টর জেনারেল (এডিজি) পদে নিযুক্ত রয়েছেন। এ দিনের শুনানিতে তাঁর আইনজীবী বলেন, সারদা মামলার তদন্তে তাঁর মক্কেল এক জন সাক্ষী মাত্র। ফলে তাঁর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির কোনো প্রসঙ্গই আসে না।

একই সঙ্গে সিবিআইয়ের তরফে রাজীবের বিরুদ্ধে করা আত্মগোপন করার অভিযোগ নস্যাৎ করেন তিনি। রাজীবের আইনজীবী বলেন, প্রাক্তন নগরপাল সিবিআইকে আগেই জানিয়েছেন, তিনি আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ছুটিতে রয়েছেন। এই সময় পর্যন্ত তাঁকে পাওয়া যাবে না।

বিচারপতি সুব্রত মুখোপাধ্যায় সিবিআইয়ের উদ্দেশে বলেন, সুপ্রিম কোর্ট, হাইকোর্ট সর্বোচ্চ ক্ষমতা দিয়েছে, তা সত্ত্বেও কেন গ্রেফতারি পরোয়ানার জন্য আদালতের শরণাপন্ন?

আদালতের প্রশ্নের পরেও সিবিআইয়ের আইনজীবী রাজীবের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির সপক্ষে অনড় থাকেন। তিনি কোর্টে টেনে নিয়ে আসেন দাউদ ইব্রাহিম প্রসঙ্গ। বলেন, রাজীব কুমার পলাতক। তিনি তদন্তে সহযোগিতা করছেন না। এমনকী রাজ্য সরকারও তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করছে না। যে কারণে হদিশহীন তাই রাজীবের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হোক। দাউদ ইব্রাহিমের খোঁজ পেতেও আদালতে যেতে হয়েছিল।

তবে রাজীবের আইনজীবী পাল্টা সওয়াল করেন, সিবিআই জানে রাজীব কুমারকে গ্রেফতার করতে পারবে না। তাই আদালতের নির্দেশ চাইছে।

দু’পক্ষের সওয়াল-জবাবের পর আর কিছুক্ষণের মধ্যেই রায় ঘোষণা। আপডেট আসছে…

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here