Connect with us

রাজ্য

ষষ্ঠ দফায় আরও বাড়ল কেন্দ্রীয় বাহিনী, বিরোধীদের দাবিতেই সিলমোহর!

central forces in Bankura

ওয়েবডেস্ক: ষষ্ঠ দফার আটটি কেন্দ্রের মাত্র ৭৩ শতাংশ বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েনের সিদ্ধান্ত ঘোষণায় গর্জে উঠেছিল রাজ্যের বিরোধী দলগুলি। এর পরই কমিশন ৬৮৩ থেকে বাড়িয়ে ৭৪০ কোম্পানি আধা সেনা মোতায়েনের কথা জানায় নির্বাচন কমিশন। যা দিয়ে প্রায় ৯০ শতাংশ বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন সম্ভব। শুক্রবার কমিশন সূত্রে জানা যায়, আধা সেনার সংখ্যা বাড়িয়ে প্রায় ১০০ শতাংশ বুথেই নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, রাজ্যের পঞ্চম দফার লোকসভা ভোটে ৫৭৮ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছিল। সে বার ৭টি কেন্দ্রের একশো শতাংশ বুথেই ছিল আধা সেনা। স্বাভাবিক ভাবেই ষষ্ঠ দফাতেও একই দাবিতে সরব হয় বিরোধীরা। কমিশনে সদর দফতরের সামনে ধর্নায় বসে বিজেপি।

অবশ্য এক সময়ে মাওবাদী অধ্যুষিত এলাকা হিসাবে চিহ্নিত লোকসভা কেন্দ্রগুলিতে নির্বিঘ্ন ভোটগ্রহণে বাড়তি নিরাপত্তা নেওয়ার কথা আগেই জানিয়েছিল কমিশন। জানানো হয়, ষষ্ঠ দফায় ভোট ও স্ট্রংরুমের নিরাপত্তায় মোতায়ন থাকবে ৭৪০ কোম্পানি আধাসেনা। বুথের নিরাপত্তায় থাকবে ৭১৩ কোম্পানি বাহিনী। স্ট্রংরুমের দায়িত্বে ২৭ কোম্পানি বাহিনী।

[ ষষ্ঠ দফায় রাজ্যের ৮টি লোকসভা আসনের ১০টি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য ]

কিন্তু এর পরেও বিতর্ক থামেনি। শেষমেশ আগামী ১২ মে-র ভোটগ্রহণে একশো শতাংশ বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করতে আরও ৩০ কোম্পানি আধা সেনা বাড়াল কমিশন।

রাজ্য

রেকর্ড সংখ্যক টেস্ট, মৃত্যুর সংখ্যাতেও রেকর্ড, তবে রাজ্যে সুস্থতার হার ছুঁল ৭০ শতাংশ

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ২২,১২২টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রাজ্যে দৈনিক করোনা-আক্রান্তের সংখ্যায় কোনো লাগাম পড়ছে না। কিন্তু করোনামুক্তির সংখ্যাটি দিন দিন বাড়ছে। এর ফলে জোরকদমে এগিয়ে চলেছে করোনামুক্তির হারও। অন্য দিকে মৃত্যুর সংখ্যাতেও রেকর্ড তৈরি হয়েছে সোমবার।

রাজ্যের করোনা-তথ্য়

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২৭১৬ জন। এর ফলে রাজ্যে এখন মোট করোনা-আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৭৮,২৩২। ৫৩ জনের মৃত্যু হওয়ায় রাজ্যে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১,৭৩১। তবে সংখ্যায় রেকর্ড হলেও মৃত্যুহার কিন্তু আরও কমে ২.২১ শতাংশে নেমে এসেছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে সুস্থ হয়েছেন ২,০৮৮ জন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৫৪,৮১৮ জন। রাজ্যে বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ২১,৬৮৩।

রাজ্যে সুস্থতার হার এখন বেড়ে হয়েছে ৭০.০৭ শতাংশ। মোট রোগীর মধ্যে সক্রিয় রোগী রয়েছেন মাত্র ২৭.৭২ শতাংশ।

কলকাতা ও পার্শ্ববর্তী জেলার পরিস্থিতি অপরিবর্তিত

মোটের ওপরে অপরিবর্তিতই রইল কলকাতা ও তার পার্শ্ববর্তী জেলার পরিস্থিতি। গত ২৪ ঘণ্টায় শহরে নতুন করে ৭৫৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন আর সুস্থ হয়েছেন ৫৩১ জন। কলকাতায় এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২৩,৮১৮। সুস্থ হয়েছেন ১৫,৯১৭। মৃত্যু হয়েছে ৮২০ জনের। শহরে বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৬,৮০১ জন।

উত্তর ২৪ পরগণায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫১০ জন, সুস্থ হয়েছেন ৪৮৬ জন। এই জেলায় বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৫,০৫২ জন।

এ ছাড়া, হাওড়া, দক্ষিণ ২৪ পরগণায় আর হুগলিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন যথাক্রমে ১৮৫, ১৪৪ আর ৯১ জন।

দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলাতেও বাড়ছে সংক্রমণ

দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলাগুলিতে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের মধ্যে থাকলেও ইদানীং সেখানে বাড়ছে। কলকাতা ও তার পার্শ্ববর্তী জেলা নয়, দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলার সাম্প্রতিক পরিস্থিতির জন্যই রাজ্যের করোনা-চিত্রে এ রকম পরিবর্তন আসছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় বেশির ভাগ জেলাতেই ৫০-এর বেশি রোগীর সন্ধান মিলেছে। তবে এর পেছনে টেস্টের সংখ্যা ব্যাপক ভাবে বাড়াও একটা কারণ।

এর মধ্যে সব থেকে বেশি রোগীর সন্ধান মিলেছে মুর্শিদাবাদে (৯০)। এর পর রয়েছে পূর্ব মেদিনীপুর (৮২) আর পশ্চিম বর্ধমান (৮০)। এ ছাড়া উদ্বেগজনক ভাবে রোগী বেড়েছে পূর্ব বর্ধমান (৭১), নদিয়া (৬৬), বাঁকুড়া (৫২), পশ্চিম মেদিনীপুর (৫০) আর বীরভূম (৪৯)।

এমনকি করোনামুক্ত থাকা ঝাড়গ্রামেও নতুন করে চার জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর ফলে এই জেলায় এখন সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৮ জন।

কোচবিহার এখন নতুন মাথাব্যাথা

উত্তরবঙ্গেও এখন উদ্বেগজনক ভাবে রোগী বাড়ছে। এখন নতুন করে মাথাব্যাথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে কোচবিহার। রবিবার এই জেলায় ১৪৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। সোমবার হলেন আরও ৭১ জন।

দার্জিলিংয়ে নতুন করে ১৫১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তুলনায় সংক্রমণ বৃদ্ধির হার কিছুটা নিয়ন্ত্রণে এসেছে জলপাইগুড়ি, মালদা, আর দুই দিনাজপুরে। উত্তরবঙ্গে গত ২৪ ঘণ্টায় চার জনের মৃত্যু হয়েছে।

নমুনা পরীক্ষার তথ্য

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ২২,১২২টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এই প্রথম, রাজ্যে ২২ হাজারের বেশি নমুনা পরীক্ষা হল। এর ফলে রাজ্যে মোট ৯ লক্ষ ৫৬ হাজার ৬৫৯টি নমুনা পরীক্ষা হল। রাজ্যে বর্তমানে প্রতি দশ লক্ষ মানুষে ১০,৬৩০ জনের করোনা পরীক্ষা হচ্ছে।

Continue Reading

রাজ্য

সিপিএম নেতা মোহাম্মদ সেলিম কোভিড পজিটিভ, হাসপাতালে ভরতি

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী ও সিপিআইএম পলিটব্যুরো সদস্য মোহাম্মদ সেলিম (Md. Selim) কোভিড ১৯-এ (Covid 19) আক্রান্ত হয়েছেন।

সোমবার সন্ধ্যায় বাইপাসের ধারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে তিনি ভর্তি হয়েছেন। তবে তাঁর অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে।

দলীয় সূত্রে খবর, দলের কাজে এবং একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে দিন কয়েক আগে সেলিম মুর্শিদাবাদে যান। সেখান থেকে ফেরার পর তিনি অসুস্থতা বোধ করেন।

এর পরই তিনি কোভিড পরীক্ষা করেন। সোমবার পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসায় তিনি হাসপাতালে ভর্তি হন বলে দলীয় সূত্রে জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন: বর্ষীয়ান সিপিএম নেতা শ্যামল চক্রবর্তী করোনা পজিটিভ, সাহায্য প্রার্থনা কন্যা ঊষসীর

এর আগে গত বুধবার সিপিএমের বর্ষীয়ান নেতা শ্যামল চক্রবর্তী কোভিড ১৯-এ আক্রান্ত হন। তিনিও বাইপাসের ধারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী ও শিলিগুড়ির মুখ্য প্রশাসক অশোক ভট্টাচার্যও করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। তবে তিনি সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে এসেছেন।  

Continue Reading

রাজ্য

লকডাউনের সূচি ফের বদলাল রাজ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ফের সাপ্তাহিক লকডাউনের দিন বদল করল রাজ্য সরকার। আগস্ট মাসে সাত দিনই সম্পূর্ণ লকডাউন থাকবে রাজ্যে। তবে এ দিন বিজ্ঞপ্তি জারি করে তার নয়া দিনক্ষণ ঘোষণা করা হল।

আগামী ৫, ৮, ২০, ২১, ২৭, ২৮ এবং ৩১ আগস্ট রাজ্যে সম্পূর্ণ লকডাউন থাকবে বলে জানানো হয়েছে।

রাজ্যে ক্রমবর্ধমান করোনা-সংক্রমণকে নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য দ্বিসাপ্তাহিক লকডাউনের পথ বেছে নিয়েছে রাজ্য। জুলাইয়ের শেষ সপ্তাহে তিন দিন লকডাউন হয়। এর পর আগস্টে লকডাউনের দিনক্ষণ ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী।

প্রথমে আগস্টের ন’ দিন লকডাউনের কথা বলা হয়। কিন্তু পরে দু’টো দিন কমিয়ে সাত দিন করা হয়।

সেই সূচি অনুযায়ী প্রথমে ২ আর ৯ আগস্ট লকডাউনের কথা থাকলেও, সেগুলি বাতিল করা হয়। কিন্তু তার পরেও ফের একবার বদলানো হল লকডাউনের সূচি।

নতুন নির্ঘণ্টের ফলে ১৬, ১৭, ২৩ আর ২৪ আগস্ট রাজ্যে লকডাউন হচ্ছে না। তার বদলে লকডাউন হবে ২০,২১, ২৭ এবং ২৮ আগস্ট।

সাধারণ মানুষের ভাবাবেগ এবং অনুরোধ মেনেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে রাজ্য।

Continue Reading
Advertisement

রবিবারের খবর অনলাইন

কেনাকাটা

things things
কেনাকাটা3 days ago

করোনা আতঙ্ক? ঘরে বাইরে এই ১০টি জিনিস আপনাকে সুবিধে দেবেই দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনা পরিস্থিতিতে ঘরে এবং বাইরে নানাবিধ সাবধানতা অবলম্বন করতেই হচ্ছে। আগামী বেশ কয়েক মাস এই নিয়মই অব্যাহত...

কেনাকাটা6 days ago

মশার জ্বালায় জেরবার? এই ১৪টি যন্ত্র রুখে দিতে পারে মশাকে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: একে করোনা তায় আবার ডেঙ্গুর প্রকোপ শুরু হয়েছে। এই সময় প্রতি বারই মশার উৎপাত খুবই বাড়ে। এই বারেও...

rakhi rakhi
কেনাকাটা2 weeks ago

লকডাউন! রাখির দারুণ এই উপহারগুলি কিন্তু বাড়ি বসেই কিনতে পারেন

সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে মনের মতো উপহার কেনা একটা বড়ো ঝক্কি। কিন্তু সেই সমস্যা সমাধান করতে পারে অ্যামাজন। অ্যামাজনের...

কেনাকাটা2 weeks ago

অনলাইনে পড়াশুনা চলছে? ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ৪০ হাজার টাকার নীচে ৬টি ল্যাপটপ

ইনটেল প্রসেসর সহ কোন ল্যাপটপ আপনার অনলাইন পড়াশুনার কাজে লাগবে জেনে নিন।

কেনাকাটা2 weeks ago

করোনা-কালে ঘরে রাখতে পারেন ডিজিটাল অক্সিমিটার, এই ১০টির মধ্যে থেকে একটি বেছে নিতে পারেন

শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা বুঝতে সাহায্য করে এই অক্সিমিটার।

কেনাকাটা3 weeks ago

লকডাউনে সামনেই রাখি, কোথা থেকে কিনবেন? অ্যামাজন দিচ্ছে দারুণ গিফট কম্বো অফার

খবরঅনলাইন ডেস্ক : সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে দোকানে গিয়ে রাখি, উপহার কেনা খুবই সমস্যার কথা। কিন্তু তা হলে উপায়...

laptop laptop
কেনাকাটা3 weeks ago

ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ২৫ হাজার টাকার মধ্যে এই ৫টি ল্যাপটপ

খবরঅনলাইন ডেস্ক : কোভিভ ১৯ অতিমারির প্রকোপে বিশ্ব জুড়ে চলছে লকডাউন ও ওয়ার্ক ফ্রম হোম। অনেকেই অফিস থেকে ল্যাপটপ পেয়েছেন।...

কেনাকাটা3 weeks ago

হ্যান্ডওয়াশ কিনবেন? নামী ব্র্যান্ডগুলিতে ৩৮% ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস বা কোভিড ১৯ এর সঙ্গে লড়াই এখনও জারি আছে। তাই অবশ্যই চাই মাস্ক, স্যানিটাইজার ও হ্যান্ডওয়াশ।...

কেনাকাটা4 weeks ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

খবরঅনলাইন ডেস্ক : একে লকডাউন তার ওপর ঘরে থাকার একঘেয়েমি। মনটাকে বিষাদে ভরিয়ে দিচ্ছে। ঘরের রদবদল করুন। জিনিসপত্র এ-দিক থেকে...

কেনাকাটা4 weeks ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

নজরে

Click To Expand