১২৫ কোম্পানির প্রথম দশ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী এল রাজ্যে

0
রাজ্যে কেন্দ্রীয় বাহিনী।

ওয়েবডেস্ক: রাজ্যে পা রাখল কেন্দ্রীয় বাহিনী। শুক্রবার রাজ্যে ন’জেলায় মোট ১০ কোম্পানি বাহিনী এসেছে। শনিবারই বিভিন্ন জায়গায় রুটমার্চ শুরু করে দিতে পারে বাহিনী। পাশাপাশি গোটা ভোটপর্বে মোট ১২৫ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনীকে রাজ্যে নিয়ে আসা হতে পারে। এমনই ইঙ্গিত বিভিন্ন সূত্রে।

নির্বাচন কমিশনের তরফ থেকে জানা গিয়েছে, তিনটি পর্যায়ে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে রাজ্যে আনা হবে। পাশাপাশি শনিবারই রাজ্যে আসছেন উপ নির্বাচন কমিশনার। সঙ্গে আসছে উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধিদল। রাজ্যের নির্বাচনী আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠকও করবেন তাঁরা।

কমিশন সূত্রে খবর, শুধুমাত্র ‘স্ট্রং রুম’ ও গণনা পর্বের নিরাপত্তার জন্য ১৫ কোম্পানি বাহিনীকে রেখে দেওয়া হবে। ২০১৪-এর লোকসভা নির্বাচনে যে ভাবে সব বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছিল এ বারও তাই থাকছে। মূলত বুথ ও বুথের আশপাশের ১০০ মিটারের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবেন শুধুমাত্র কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা। জেলাপ্রশাসনকেও এই খবর জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

যে সব ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে একটি মাত্র বুথ রয়েছে সেখানে নিরাপত্তার দায়িত্বে দু’ জন আধাসেনা মোতায়েন রাখা হবে। দু’টি বুথ রয়েছে এমন কেন্দ্রে মোতায়েন করা হবে তিন জন আধা সেনার জওয়ান। যে সব ভোটকেন্দ্রে দুয়ের অধিক বুথ থাকবে সেখানে সর্বোচ্চ পাঁচ জন কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ান থাকবেন নিরাপত্তার দায়িত্বে।

আরও পড়ুন পশ্চিমবঙ্গ নয়, উত্তরের এই রাজ্যেই দল ভাঙানোর খেলায় শীর্ষে বিজেপি

‘সুষ্ঠু ও অবাধ ভোটের স্বার্থে’ রাজ্যের প্রতিটি বুথকে স্পর্শকাতর ঘোষণার দাবি তুলেছে বিরোধী পক্ষ। তা ঘিরে শাসক-বিরোধী চাপানউতোরও আপাতত তুঙ্গে। তবে ইতিমধ্যেই রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক আরিজ আফতাব কমিশনে একটি রিপোর্ট পাঠিয়ে জানিয়ে দিয়েছেন এ বার রাজ্যে ‘বিশেষ’ বা ‘অতি’ স্পর্শকাতর বুথ নেই।

তবে কোন কোন জেলায় ক’টা স্পর্শকাতর বুথ রয়েছে তার একটা তালিকা তৈরি করেছে কমিশন। দেখা যাচ্ছে দক্ষিণ ২৪ পরগনায় এমন বুথ রয়েছে ২৩৫৭টি, বীরভূমে ১৫৫৬টি, দুই বর্ধমানে ১২৮৯টি, উত্তর দিনাজপুরে ৬৫৭টি, মালদহে ১২২০টি, মুর্শিদাবাদে ১১৯৭টি, কলকাতায় ৪৫৬টি, কোচবিহারে ৫০৩টি, হুগলিতে ১০০৮টি ও উত্তর ২৪ পরগনায় ৯৮১টি বুথ উত্তেজনাপ্রবণ। তবে প্রয়োজনে স্পর্শকাতর বুথের সংখ্যা আরও বাড়ানো হবে বলে জানিয়েছে কমিশন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here