mamata bandyopadhyay

কলকাতা: পশ্চিমবাংলার পরিকাঠামো উন্নয়নে শুক্রবার এক গুচ্ছ ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এর মধ্যে রয়েছে মহানগরীতে এক ডজন উড়ালপুল, রাজ্যে একাধিক সেতু, বেশ কিছু নতুন রাস্তা এবং বহু চালু রাস্তা প্রশস্ত করা ইত্যাদি। একই সঙ্গে কলকাতা-অন্ডাল ও দুর্গাপুর-শিয়ালদহ বুলেট ট্রেন চালানোর জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে প্রস্তাব দিয়েছে রাজ্য।

শুক্রবার নবান্নয় এই ঘোষণা করতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী জানান, পরিকাঠামো উন্নয়নে ২০১৭-১৮ অর্থবর্ষে খরচ ধরা হয়েছে ২০,১৫৫.৬১ কোটি টাকা। এর  মধ্যে উড়ালপুল, সেতু তৈরিতে খরচ ধরা হয়েছে ১২ হাজার ১০০ কোটি টাকা।

যে এক ডজন উড়ালপুল তৈরির কথা ঘোষণা করা হয়েছে তার মধ্যে রয়েছে মানিকতলা থেকে এজেসি বোস রোড, তারাতলা থেকে বালিগঞ্জ ফাঁড়ি, মা উড়ালপুল থেকে গুরুসদয় রোড, ইএম বাইপাস থেকে নিউটাউন, গণেশচন্দ্র অ্যাভিনিউ থেকে নিউ মার্কেট ইত্যাদি। তা ছাড়াও উড়ালপুল তৈরি হবে মহাত্মা গান্ধী রোড, গড়িয়াহাট রোড সাউথে প্রভৃতি রাস্তাতেও। পূর্ব বর্ধমান জেলার কালনায় ভাগীরথীর ওপর সেতু তৈরির পরিকল্পনা করা হয়েছে। সেতু হবে অজয় নদের ওপরেও।

মুখ্যমন্ত্রী আরও কিছু প্রকল্পের কথা ঘোষণা করেন। এর মধ্যে রয়েছে ডানকুনি, উত্তরপাড়া, চাঁপদানিতে পানীয় জল প্রকল্প, কোলাঘাট ও সাগরদিঘির বিদ্যুৎকেন্দ্রের আধুনিকীকরণ ইত্যাদি। এ ছাড়া শস্য ঘাটতি মেটাতে তৈরি হবে একাধিক ওয়্যারহাউস।

পরিকাঠামো উন্নয়নের সমস্ত কাজ আগামী তিন বছরের মধ্যে শেষ করার লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, সব প্রকল্প শেষ হলে রাজ্যে স্বর্ণযুগ আসবে। উল্লেখ্য, ২০১৭-১৮ অর্থবর্ষে এই প্রকল্পগুলির কাজ শুরু হলে হিসেবমতো ২০২১-এ পরবর্তী বিধানসভা নির্বাচনের আগে এ সবের কাজ শেষ করার লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here