mamata

ওয়েবডেস্ক: বৃহস্পতিবার নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে দলের কোর কমিটির বৈঠকে সাংগঠনিক আলোচনার পাশাপাশি বিজেপির তীব্র সমালোচনা করলেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি নাম না করে রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষের “এনকাউন্টার” মন্তব্যের পাল্টা জবাবও দিলেন ওই মঞ্চ থেকে।

উত্তরবঙ্গের একটি সভায় দিলীপবাবু দলীয় সমর্থকদের উদ্দেশ্যে তৃণমূল কর্মীদের এনকাউন্টার করার নির্দেশ দিয়েছিলেন। তাঁর ওই মন্তব্য নিয়ে জাতীয় রাজনীতিতেও যথেষ্ট চাঞ্চল্য ছড়ায়। তাঁর বিরুদ্ধে স্থানীয় পুলিশ স্বতপ্রণোদিত হয়ে চারটি ধারায় মামলাও রজু করে। নেতাজি ইন্ডোরের সভায় দাঁড়িয়ে মমতা বলেন, “এ বছর রামনবমী থেকে বাংলায় নতুন করে সন্ত্রাস সৃষ্টি হয়েছে। বিজেপি সারা রাজ্য জুড়ে সন্ত্রাস ছড়াতে চাইছে। কেউ বলছেন, এনকাউন্টার করে দেব। আসুন ক্ষমতা থাকলে করে দেখান”।

বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে তিনি বলেন, বিজেপি সারা দেশে মানুষের টাকা লুঠ করেছে। আর পশ্চিমবঙ্গে সন্ত্রাস করে টিকে থাকথে চাইছে। বাংলায় গুলি-বন্দুক দিয়ে রাজনীতি চলবে না।

দলীয় কর্মী-সমর্থকদের উদ্দেশে মমতা বলেন, “যাঁরা গায়ে হাওয়া লাগিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস করছেন, দলে তাঁদের থাকার দরকার নেই। আমার কাছে সব ব্লকের খবর আসে। পঞ্চায়েত ভোটে কয়েকটা ব্লকে দলীয় নির্দেশ মানা হয়নি। জনসংযোগ গড়ে তোলায় খামতি থেকে গিয়েছে। জঙ্গলমহলে যে সব ব্লকে খারাপ ফল হয়েছে, আগামী ১০ দিনের মধ্যে কারণ দর্শিয়ে রিপোর্ট জমা দিতে হবে। তবে অধিকাংশ জায়গাতেই তৃণমূল কর্মীরা প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করেছেন”।

পাশাপাশি তিনি দলের মন্ত্রী-বিধায়ক-সাংসদদের উদ্দেশ্যে বলেন, নিজের নিজের দায়িত্বপ্রাপ্ত এলাকায় জনসংযোগ বাড়াতে হবে। পুরনো কর্মীদের ভুলে গেলে চলবে না। তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করে দলে তাঁদের প্রাপ্য সম্মান দিতে হবে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here