Blood Cancer
হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন সাধারণ মানুষ। (ডানদিকে) ছাত্রী

শুভদীপ চৌধুরী, পুরুলিয়া: “ব্লাড ক্যান্সার” শব্দটা শুনলেই যেন ভেতরটা শিউরে ওঠে সকলেরই। কিন্তু ক’জনই বা তা নিরাময়ের অর্থ জোগাড় করতে সফল হন, কিছু কিছু ক্ষেত্রে অর্থের অভাবে প্রাণনাশেরও আশঙ্কা রয়েই যায় ।
আর তাই এ বার ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত পূজা গঁরাইয়ের চিকিৎসার খরচ জোগাতে সহপড়ুয়া-সহ একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনও রাস্তায় নামল চিকিৎসার চাঁদা একত্রিত করতে।

Blood-Cancer
স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্যরা

জানা যায়, পুরুলিয়া জেলার গৌরাঙ্গডি গ্রামের বাসিন্দা তথা রঘুনাথপুর কলেজে প্রথম বর্ষের পড়ুয়া পূজা গঁরাইয়ের হঠাৎ ধরা পড়ে মারণ রোগ ব্লাড ক্যান্সার। কিন্তু সারিয়ে তোলার অর্থ কোথায়, তা নিয়ে প্রায় চিন্তায় পড়ে যান বাবা কৃষ্ণপদ গঁরাই । তিনি পেশায় সাধারণ সবজি বিক্রেতা, কোনোরকমে চলে সংসার । এর পর কৃষ্ণপদ তাঁর সমস্ত সঞ্চিত স্বল্প অর্থ দিয়ে টাটা হাসপাতালে ভর্তি করেন মেয়েকে । কিন্তু চিকিৎসা আদৌ পুরোপুরি সম্ভব হবে কিনা তা নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়েন তিনি ।

পড়তে পারেন: পড়তে পারেন: ৪৯৭৬ জন নার্স নিয়োগ করছে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর, কী ভাবে আবেদন করবেন?

তবে জীবনযুদ্ধে যে পূজা একা নয়, তা এ বার প্রমাণ করে দিল রঘুনাথপুর কলেজের সমস্ত পড়ুয়া এবং “দ‍্য ওয়ান” নামের এক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন । বুধবার ব্যানার ও বাক্স হাতে পুরুলিয়ার আদ্রায় তারা দলবদ্ধভাবে বেরোয় টাকা জোগাড় করতে । জানা যায়, ইতিমধ্যে রঘুনাথপুর ও আদ্রা থেকে তারা সংগ্রহ করেছে প্রায় ২০,০০০ টাকা । এ দিন সংস্থার সদস্য অর্ণব গঙ্গোপাধ্যায় ও সৌরভ চৌধুরী জানান, ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত পূজাকে তাঁরা কোনোভাবেই জীবনযুদ্ধে অর্থের কারণে হারতে দেবেন না, তাই তাঁদের এই প্রয়াস । এ ছাড়াও সোশ্যাল মিডিয়াকে কাজে লাগিয়েও সাধারণের কাছ থেকে অর্থের সংগ্রহ চালানো হচ্ছে বলে জানান সৌরভ ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here