Mamata Banerjee

ওয়েবডেস্ক: বিদায়ী কংগ্রেস সাংসদ অধীররঞ্জন চৌধুরীর খাসতালুক হিসাবে পরিচিত বহরমপুর থেকে প্রচারে ঝড় তুললেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এ দিন কান্দি ও জঙ্গিপুরে জোড়া সভা করেন তৃণমূল নেত্রী। ওই সভা থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর পাশাপাশি এ দিন তিনি সাংসদ অধীরবাবুর বিরুদ্ধেও তীব্র আক্রমণ শানান।

মমতা বলেন, মুর্শিদাবাদে সিপিএম এবং কংগ্রেস একজোট হয়ে লড়াই করছে। আবার বিজেপি এবং কংগ্রেস এক হয়ে কাজ করছে বলেও কটাক্ষ করেন মমতা।

এর আগেও তিনি উত্তর দিনাজপুরের সভা থেকে দাবি করেছিলেন, রাজ্যের বেশ কয়েকটি আসনে কংগ্রসকে সহযোগিতা করছে আরএসএস। এ দিনও তিনি বলেন, “কংগ্রেসের কোনও আদর্শ নেই। এ রাজ্যে কংগ্রেস-বিজেপি-সিপিএম সবই এক। বহরমপুর ও জঙ্গিপুরে কংগ্রেসের হয়ে প্রচার করছে আরএসএস”।

মমতা এ দিন দ্ব্যর্থহীন ভাষায় দাবি করেন, “তৃণমূলই আগামী দিনে ভারতবর্ষের সরকার গড়বে। ফলে ভয় পাওয়ার কিছু নেই। নাগরিকপঞ্জি নিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করা হচ্ছে। অসমে ২২ লক্ষ হিন্দু ভাই-বোনদের তাড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু
বংলায় নাগরিকপঞ্জি করতে দেব না। বাংলা ভাঙার চক্রান্ত হচ্ছে, এই চক্রান্ত একমাত্র রুখতে পারে তৃণমূল”।

[ আরও পড়ুন: অর্জুন সিংয়ের সেই ‘ট্রেড সিক্রেট’ প্রকাশ্যে আসতে পারে বলেই কি মেজাজ হারাচ্ছেন তড়িৎ তোপদার? ]

একই সঙ্গে অধীরবাবুর বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ তুলে মমতা বলেন, “ভোটের সময় ছাড়া ক’দিন বহরমপুরে থাকেন সাংসদ? কেবল মুখে বড়ো বড়ো কথা বলেন, তৃণমূলে বিরুদ্ধে কুৎসা করেন। বহরমপুর ও জঙ্গিপুরে কংগ্রেসে পাশে দাঁড়িয়েছে আরএসএস”।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here