ধরনা তুলে নিলেন মুখ্যমন্ত্রী! আগামী গন্তব্য দিল্লি

মুখ্যমন্ত্রীর ধর্নার আপডেট

0
Mamata and Naidu
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং চন্দ্রবাবু নায়ডু। ফাইল ছবি

কলকাতা: মঙ্গলবার তৃতীয় দিনে পড়ল মুখ্যমন্ত্রীর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ধরনা। ধরনামঞ্চ থেকে বিভিন্ন খবরাখবর তুলে ধরছে খবর অনলাইন।

মঙ্গলবার, ৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

—অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নায়ডুকে পাশে নিয়ে ধর্মতলা থেকে ধরনা তুলে নিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি জানান, কেন্দ্রের বিরুদ্ধে এই প্রতিবাদ আন্দোলন চলবেই। আগামী ১৩-১৪ ফেব্রুয়ারি দিল্লিতে ধরনার কথা জানান তিনি।

—ধর্মতলায় ধরনামঞ্চে পৌঁছালেন অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নায়ডু। তিনি নিজের বক্তব্যে মমতাকে সমর্থন করে বলেন, যে ভাবে হোক দেশ থেকে এই স্বৈরাচারী শাসন উচ্ছেদ করতে হবে। মোদী জমানায় আজ বিপদের মুখে গণতন্ত্র। এই বিপদ থেকে দেশকে বাঁচাতে সমস্ত বিরোধী রাজনৈতিক দলকে এক সঙ্গে লড়তে হবে।

কলকাতা ছেড়ে পালানোর আগে সিবিআইকে চিঠি দিয়েছিলেন সারদা গোষ্ঠীর কর্ণধার সুদীপ্ত সেন। এমনটাই দাবি করে ধরনামঞ্চে একটি চিঠি প্রকাশ্যে নিয়ে এলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

— পাঁচটি চিঠি দিয়েছিলেন রাজীব কুমার।কিন্তু সিবিআই কোনো চিঠিরই প্রত্যুত্তর দেয়নি। ধরনা মঞ্চ থেকে বললেন মমতা।

— নৈতিক জয় দেখলেও এখনই ধরনা তিনি তুলবেন না বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। বিরোধী দলের নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করেই এই সিদ্ধান্ত নেবেন তিনি।

— রাজীব কুমারকে গ্রেফতার করা যাবে না, এই নির্দেশে নৈতিক জয় হয়েছে, দাবি করলেন মুখ্যমন্ত্রী।

— হাইকোর্টে পিছিয়ে গেল কলকাতা পুলিশের করা মামলা। বৃহস্পতিবার এই আবেদনের শুনানি হবে।

— সুপ্রিম কোর্টে ধাক্কা খেলেন রাজীব কুমার। ১৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে তাঁকে সিবিআইয়ের সামনে হাজিরার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। তবে তাঁকে গ্রেফতার করা যাবে না বলেও জানিয়েছে আদালত

— চিটফান্ড কাণ্ডে রাজীব কুমারের ভূমিকা নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে অতিরিক্ত নথি দাখিল করেছে সিবিআই।

— মঙ্গলবার মুখ্যমন্ত্রীর ধরনা মঞ্চে আসতে পারেন অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডু।

— সোমবার রাত সাড়ে ১১টা নাগাদ মঞ্চের পরদা ফেলে দেওয়া হয়। আলোও নিভিয়ে দেওয়া হয়। মঙ্গলবার সকালে এখনও পর্যন্ত সেই পরদা তোলা হয়নি।

— সোমবার রাতভর অনেক কর্মী সমর্থক মুখ্যমন্ত্রীর ধরনা মঞ্চের সামনে এসে জড়ো হয়েছে।

— তৃতীয় দিনে পড়ল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ধরনা।

সোমবার, ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

— বিজেপির বিরুদ্ধে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ধরনা আরও জোরদার হল যখন রাতে ধরনামঞ্চে হাজির হলেন ডিএমকে নেতা করুণানিধি-কন্যা কানিমোঝি ও আরজেডি নেতা লালু-পুত্র তেজস্বী যাদব।

মমতার সামনেই কানিমোঝি বলেন, বাংলার মুখ্যমন্ত্রী এই ব্যাপারটা আর একবার সুনিশ্চিত করলেন যে, দেশ একবার থেমে তাঁর দিকে ঘুরে দেখবে। তিনি বলেন, “১৯ জানুয়ারির সভার পর বিজেপি বুঝতে পেরেছে, তারা ক্ষমতায় ফিরবে না। তাই এই ঘটনা হল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে মোদীজির নির্বাচন-পূর্ব উপহার।

তেজস্বী যাদব বলেন, রাজনৈতিক প্রতিপক্ষদের বিরুদ্ধে সিবিআই লেলিয়ে দেওয়া রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র। নরেন্দ্র মোদী আমাদের চেয়ে বড়ো। তাঁর বোঝা উচিত প্রধানমন্ত্রী আসে, যায়, কিন্তু এই মহান দেশের প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে যায়। যারাই বিজেপির সঙ্গে আপস করবে না, তাদেরই হয়রান করবে সিবিআই আর অন্যান্য এজেন্সি।

তেজস্বী বলেন, সব রাজনৈতিক দল যদি এক না হয়, তা হলে জনগণ তাদের ক্ষমা করবে না।

দুই নেতাকে ধন্যবাদ দিয়ে মমতা বলেন, “সমস্ত বিরোধী দল এক হয়েছে। যত দিন মোদী ক্ষমতা থেকে সরে যান, তত দিন লড়াই চালিয়ে যাবে তারা।

mamata giving police awards
পুলিশ পদক প্রদান। ছবি রাজীব বসু।

— ধরনা মঞ্চের পাশেই পুলিশকে পদক মুখ্যমন্ত্রীর।

— ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত এই ধরনা চলবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। আসন্ন মাধ্যমিক পরীক্ষার কথা মাথায় রেখে এই সিদ্ধান্ত।

— এই ধরনা আসলে সত্যাগ্রহ, ধরনা মঞ্চে ফের বক্তব্য রেখে বললেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁরা কোনো এজেন্সির বিরুদ্ধে ধরনা দিচ্ছেন না বলেও জানিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

— এই ধরনা অরাজনৈতিক। বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। অন্য দিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের কাছে রিপোর্ট পেশ করলেন রাজ্যপাল।

— সিবিআইয়ের জয়েন্ট ডিরেক্টরকে নোটিশ কলকাতা পুলিশের।

রাজ্য বাজেটের আগে মেট্রো চ্যানেলের পাশেই রাজ্য মন্ত্রীসভার বৈঠক। ছবি: পিন্টু মণ্ডল

— সোমবার রাজ্য বাজেট। তার আগে রাজ্য মন্ত্রীসভার বৈঠক শুরু হয়েছে মেট্রো চ্যানেলেই।

— রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় অবরোধ বিক্ষোভ তৃণমূলের।

— হাইকোর্টে রাজ্যের দ্রুত শুনানির আর্জি খারিজ। মঙ্গলবার শুনানির সম্ভাবনা।

— সিবিআই যখন সুপ্রিম কোর্টে গেল, তখন হাইকোর্টের দ্বারস্থ হল রাজ্য। সিপির বাড়িতে সিবিআই হানা নিয়ে হাইকোর্টের দ্বারস্থ

— সকালে দেখা করেছেন সপা নেতা কিরণময় নন্দ। বেলা ১২টা নাগাদ মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে আসতে পারেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ্র কেজরিওয়াল।

ধর্নামঞ্চে মুখ্যমন্ত্রী। ছবি: পিন্টু মণ্ডল

— সোমবার সকাল থেকে মুখ্যমন্ত্রীর মঞ্চে রয়েছেন জয়া দত্ত, মহুয়া মৈত্র, রত্না চট্টোপাধ্যায়, রবীন্দ্রনাথ ঘোষরা।

— রবিবার রাতের পর সোমবার দ্বিতীয় দিনে পড়ল মুখ্যমন্ত্রীর ধরনা। রবিবার রাত তিনটে পর্যন্ত ধরনামঞ্চে ছিলেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম। অনেক ভোর পর্যন্ত ছিলেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here