Mamata Banerjee
পুরুলিয়ার সভায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নিজস্ব ছবি

শুভদীপ চৌধুরী, পুরুলিয়া: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পুরুলিয়া সফরের দ্বিতীয় দিন ছিল বুধবার । এ দিনে  জনসভার আয়োজন হয় পুরুলিয়ার বলরামপুর কলেজ ময়দানে । জনসমাবেশে এসে মুখ্যমন্ত্রী পুরুলিয়া জেলাবাসীকে বার্তা দেন, পুরুলিয়া জেলা তাঁর মায়ের মতো, তাই জেলায় কেউ গেরুয়া ফেট্টি বেঁধে এসে অশান্তির সৃষ্টি করলে তিনি কখনোই তা মেনে নেবেন না ।

তিনি বলেন, কেন্দ্রীয় সরকারের জনবিরোধী নীতি,সাম্প্রদায়িক ও বাঙালি বিদ্বেষী রাজনীতির প্রতিবাদে এবং আগামী ১৯ জানুয়ারি ব্রিগেড সমাবেশের সমর্থনে এ দিনের জনসভায় জানান আগামী লোকসভা নির্বাচনে বিহার ঝাড়খণ্ড, আসাম থেকেও লড়বে তৃণমূল। বলরামপুরে নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি জানান, মানুষকে সংগঠিত করে বাংলার উন্নয়নের কথা প্রচার করে নিবিড় সম্পর্ক স্থাপন করতে হবে । তিনি বলেন,”অশান্ত জঙ্গল মহলে শান্তি বিরাজ করছে আজ তৃণমূলের জন্য, যা ৬৬ বছরে সিপিএম বা অন্যান্য রাজনৈতিক দল পারেনি তা আমরা করে দেখিয়েছি । পুরুলিয়ায় পর্যটকরা আসতে ভয় পেতেন, সেখানে জায়গায় জায়গায় পর্যটনকেন্দ্র বানিয়েছি। পুরুলিয়া আমার মায়ের মতো, তাই আমি বারবার আসি, হাজারবার আসি”।

একই সঙ্গে বিজেপি ও সিপিএমকে কড়া ভাষায় তোপ দাগেন মুখ্যমন্ত্রী । তিনি বলেন, “আগে যারা লাল জামা পরে সিপিএম করত, এখন তারা গেরুয়া পরে বিজেপির সঙ্গে মিলে সাঁওতাল, মাহাতোদের আলাদা করতে চাইছে । ওরা জগাই-মাধাই । ঠিক যেন, দুই পাশে দুই কলাগাছ, মাঝখানেতে যমরাজ”।

আরও পড়ুন: ন’বছরে ১৭ বার ফেল করে হাইকোর্টে পড়ুয়া, সম্পদ এবং সময় নষ্ট না করার নির্দেশ আদালতের!

এ দিনের জনসভায় তিনি পুরুলিয়াবাসীকে জানান, আগে সবাই অনাহারে ভুগত, এখন বিনামূল্যে স্বাস্থ্য, শিক্ষা, খাদ্য, সাইকেল পাচ্ছে । এছাড়াও মানুষের যাতে কোনো রকম সমস্যা না হয় সেদিকেও নজর রাখা হবে । তিনি বলেন, বেকার সমস্যা সমাধানে রঘুনাথপুরে শিল্প হবে, রাস্তার দু’পাশে থাকবে কারখানা । অযোধ্যায় হবে ন’শো মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কারখানা, যেখানে লক্ষ লক্ষ কর্মসংস্থান হবে।

1 মন্তব্য

  1. প্রশাসনিক খরচে দলীয় রাজনীতির প্রচার , কে বা কারা কলাগাছ প্রনাণিত, মেরুদন্ডহীন বঙ্গবাসী সাবাস!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here