Mamata Banerjee meeting

সমীর মাহাত, ঝাড়গ্রাম: রাত পোহালেই মুখ্যমন্ত্রীর সভা ঝাড়গ্রামে, তৎপরতা তুঙ্গে। আগামী সোমবার, ২৬ নভেম্বর ঝাড়গ্রামের কাপগাড়ি স্কুল ময়দানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের সভা রয়েছে। প্রশাসনিক বিভিন্ন স্তরে তাই তৎপরতা তুঙ্গে । তার উপর পঞ্চায়েত নির্বাচনের পর, এটিই মুখ্যমন্ত্রীর প্রথম জঙ্গল মহল সফর।

প্রশাসন সুত্রে এই পর্যন্ত খবর, প্রথমে তিনি ঝাড়গ্রাম জেলা শাসক অফিসে প্রশাসনিক বৈঠক করবেন। বৈঠক শেষ তিনি যোগ দেবেন কাপগাড়ির দলীয় সভায়। ইতি মধ্যে সেখানে সভা মঞ্চের প্রস্তুতির কাজ জোর কদমে চলছে। প্রশাসনিক শীর্ষ অধিকর্তারা হেলিকপ্টারে সভাস্থল পরিদর্শন করেন। সামনের লোকসভা নির্বাচনের নিরিখে, মুখ্যমন্ত্রীর এই সফর তাৎপর্যপূর্ণ বলেই অভিমত রাজনৈতিক মহলের।

পঞ্চায়েত নির্বাচনে ঝাড়গ্রাম ও পুরুলিয়া জেলায় খানিকটা প্রভাব বাড়ায় প্রতিপক্ষ বিজেপি। এর আগে একাধিক বার দলের মহাসচিব মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ঝাড়গ্রামে এসেছেন। শেষমেশ তিনি ঝাড়গ্রামের বিজয়া সম্মিলনীর সভায় এসে নিজে চাক্ষুষ করেন দলীয় কোন্দল। সে বার্তা পৌঁছায় মুখ্যমন্ত্রীর কাছেও। পাশাপাশি এই এলাকার ‘উন্নয়ন’কে কালিমালিপ্ত করার জন্য বিরোধী শিবির লোধা-শবরদের মৃত্যুকে খাড়া করতে চেয়েছিল বলেও দাবি করা হয়। বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রী উত্তর দিয়েছেন, মঞ্চে তারও ব্যখ্যা দিতে পারেন তিনি।

রাজনৈতিক মহলের মতে, মুখ্যমন্ত্রী ঝাড়গ্রাম সভা থেকেই এক বছরের বেশি সময় আগ ঝাড়গ্রামকে নতুন জেলা ঘোষণা করেছেন। বাকি পরিকাঠামো, নতুন মহকুমা এ সবের কোনো অগ্রগতি হয়নি, সে দিকেও নজর দেওয়া প্রয়োজন। জঙ্গল মহলের অন্যতম সমস্যা হল বেকারত্ব ও সামাজিক সংগঠনগুলির দাবি -দাওয়া। সে গুলির দিকেও নজর দেওয়া জরুরি।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here