দাপট বাড়ছে উত্তুরে হাওয়ার, প্রবল শীত আর ২৪ ঘণ্টা দূরে!

0

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ধীরে ধীরে দাপট বাড়ছে উত্তুরে হাওয়ার। বৃহস্পতিবার সকালের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা বুধবারের থেকে এক ডিগ্রি কমেছে। শুক্রবার সকালে তা আরও ২-৩ ডিগ্রি কমতে পারে। শনিবার ভোরে তা ১০ ডিগ্রির কাছাকাছি নেমে যেতে পারে।

বৃহস্পতিবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা কেমন ছিল

বুধবারের থেকে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা সামান্য কমেছে বৃহস্পতিবার। এ দিন কলকাতায় তাপমাত্রা নেমে গিয়েছে ১৭.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বুধবার পারদ ছিল ১৮ ডিগ্রির ওপরে। ব্যারাকপুরে তাপমাত্রা নেমে গিয়েছে ১৫ ডিগ্রির নীচে।

রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চলেও তাপমাত্রা একটু একটু করে কমছে। পানাগড়ে এ দিন তাপমাত্রা নেমে গিয়েছে ১২ ডিগ্রিতে। একই ভাবে বেশ বড়ো রকম ভাবে কমেছে বাঁকুড়া, শান্তিনিকেতন, আসানসোলের তাপমাত্রাও।

এ দিকে উত্তরবঙ্গের তাপমাত্রাও জোর কদমে কমতে শুরু করে দিয়েছে। দার্জিলিংয়ে পারদ নেমে এসেছে ৪ ডিগ্রিতে। কোচবিহার, জলপাইগুড়িতে তাপমাত্রা নেমে গিয়েছে ১০-১১ ডিগ্রিতে। শিলিগুড়িতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৯.৭ ডিগ্রি।

শৈত্যপ্রবাহের সম্ভাবনা

সমস্ত বাধা দূর হয়ে যাচ্ছে। এর ফলে বৃহস্পতিবার থেকেই দাপট বাড়তে শুরু করেছে উত্তুরে হাওয়ার। শুক্রবার থেকে দাপট আরও বাড়বে। শনিবার সকাল থেকেই দক্ষিণবঙ্গে শৈত্যপ্রবাহ শুরু হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

আশা করা হচ্ছে যে পুরুলিয়া, পানাগড়, শান্তিনিকেতনের মতো জায়গায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৫-৬ ডিগ্রিতে নেমে যেতে পারে। আবহাওয়া দফতরের পরিভাষায় শীতকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা যদি স্বাভাবিকের থেকে পাঁচ ডিগ্রি কম থাকে তা হলে সেই পরিস্থিতিকে শৈত্যপ্রবাহ বলা হয়।

কলকাতায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা দশ ডিগ্রির কাছাকাছি পৌঁছে যেতে পারে। শহরতলিতে তাপমাত্রা ১০-এর নীচেও নামতে পারে।

এই শীত কিন্তু আপাতত দীর্ঘস্থায়ী হবে বলেই মনে করা হচ্ছে। আপাতত আগামী দু’ সপ্তাহের যা প্রাথমিক পূর্বাভাস, তাতে মনে হচ্ছে বড়োদিনের সময়ে পারদ ১৩ ডিগ্রিতে উঠলেও বছরের শেষ দিন পর্যন্ত গড় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১-১২ ডিগ্রির আশেপাশেই ঘোরাফেরা করবে। সব মিলিয়ে জব্বর শীতেই শেষ হবে এই বছরটা।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

পূর্বাভাস উলটে কেরলে সুইপ বামজোটের, বিজেপির প্রভাব নগণ্য

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন