Connect with us

বাঁকুড়া

সোস্যাল মিডিয়ার বাইরে গিয়ে সত্যিকারের বন্ধু পাতাতে চলে আসুন ‘সয়লা’য়

ইন্দ্রাণী সেন

বাঁকুড়া: এখানে বন্ধুত্ব আনুষ্ঠানিক, আমৃত্যু চিরস্থায়ী। গোটাহলুদ, পান, সুপুরি, বাতাসা আর সিঁদুর-হলুদ-দইয়ের ফোঁটায় অক্ষয়। ঠাকুর এখানে বন্ধু, তাই তো বন্ধুঠাকুরের সামনে শপথ করে বলতে হয় “উপরে খই নীচে দই তুই আর আমি চিরকালের সই” আর বন্ধু বাছার ক্ষেত্রেও রয়েছে অভিনবত্ব। অবিবাহিত বিবাহিত শিশু কিশোর কিশোরী বৃদ্ধ বৃদ্ধা সবার জন্য আজ সয়লাতলায় বন্ধুত্বের হাতছানি। মেয়েদের জন্য বিশেষ কিছু নিয়ম থাকলেও ছেলেরা শোলার মালা একে অপরকে পরিয়ে স্যাঙাত পাতান।

সোস্যাল মিডিয়ার বাইরে গিয়ে সত্যিকারের বন্ধু পাতাতে গেলে অবশ্যই আপনাকে আসতে হবে বাঁকুড়ার ইন্দাসের আকুইয়ের এই বন্ধুত্বের উৎসবে। স্থানীয় ভাষায় ‘সহেলা’ আর গাঁয়ের লোক বলে ‘সয়লা’।

এ বারে আসুন জেনে নিই এই উৎসব শুরুর কথা। আকুই গ্রামের প্রবীণ নাগরিকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেল, এই উৎসব শুরুর ইতিহাস আজও অজানা। ছোটো থেকেই বাপ-ঠাকুরদার হাত ধরে সয়লা দেখতে অভ্যস্ত তাঁরা।

স্থানীয় বাসুদেব গুঁই, অর্ধেন্দু রক্ষিত, তারাপদ দত্তরা বলেন, “আকুইয়ে পরমানিক বা বর্গক্ষত্রিয়দের ঠাকুর হলেন দেবী মনসা। তৎকালীন সমাজে অন্ত্যজ শ্রেণীর মানুষের হাতেই পুজিত হতেন মা। কিন্তু আকুইয়ের সয়লা উৎসবে ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সবাই অংশগ্রহণ করেন। এমনটাই আশি বছর ধরে দেখে আসছি”।

আকুইয়ের সয়লার সঙ্গে অন্যান্য সয়লার পার্থক্য এখানেই যে প্রতি পাঁচ বছর অন্তর এই উৎসব অনুষ্ঠিত হয়। সয়লার প্রস্তুতি শুরু হয় একমাস আগে। গ্রামের সমস্ত দেবদেবীদের মন্দিরে ‘গোয়া’ অর্থাৎ আনুষ্ঠানিক নিমন্ত্রণ করা হয় পান-সুপুরি আর গোটাহলুদ দিয়ে। ‘গোয়া চালানো’ নামে পরিচিত এই লোকাচার। সয়লার দিন আকুই স্কুল সংলগ্ন মনসামন্দির থেকে শোভাযাত্রা সহকারে দেবীমুর্তি ও তাঁর সহচর সঙ্গীদের আকুই স্কুলমাঠের স্থায়ী মঞ্চে নিয়ে আসা হয় উৎসবের জন্য। ঠাকুরের নিত্যসেবার জন্য রয়েছে জমিজমা ও এই উৎসবের জন্য বিশেষ পুজো কমিটি। সারাবছর ধরে এরাই সমস্ত কিছু দেখাশোনা করে।

তিনদিনব্যাপী নানারকম সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, যাত্রাপালা, মেলায় লক্ষাধিক মানুষের সমাগম ঘটে। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে বিশেষ নিরাপত্তার ব্যবস্থা করে ইন্দাস থানার পুলিশ। পুরুষ ও মহিলাদের জন্য পৃথক পৃথক ব্যবস্থা থাকে।

[ আরও পড়ুন: ৭ দিন পর জিয়াগঞ্জ হত্যাকাণ্ডের কিনারা করল পুলিশ ]

এই বছর উৎসব কমিটির সম্পাদক সুদীপ দের কথায়,”সয়লা হল মিলনের উৎসব। ছোটো থেকেই দেখে আসছি এই উৎসব ঘিরে গোটা গ্রাম মেতে ওঠে। প্রত্যেকের বাড়ি কুটুম্ব-সজ্জন আসে। প্রত্যেক বাড়িতে থাকে রাঁধুনির ব্যবস্থা। শতাব্দী প্রাচীন ঐতিহ্য মেনে আমরাও এবার এই উৎসবের আয়োজন করেছি। আকুই সয়লা কমিটির পক্ষ থেকে প্রত্যেকেই সাদর আমন্ত্রণ জানাই”।

বাঁকুড়া

রেশন থেকে তুলে অন্যত্র পাচারের ছক বানচাল, ১৪০ কুইন্টল আটা উদ্ধার বাঁকুড়া পুলিশের

ইন্দ্রানী সেন, বাঁকুড়া: করোনা (Coronavirus) আবহে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় রেশন দুর্নীতির অভিযোগ উঠছে। এই নিয়ে সরব হচ্ছে বিরোধীরা। এই পরিস্থিতিতেই বড়োসড়ো সাফল্যে পেল বাঁকুড়া জেলা পুলিশ (Bankura District Police)। তাদের জন্যই বানচাল হয়ে গেল আটা পাচারের ছক।

বুধবার রাতে গোপনসূত্রে খবর পেয়ে একটি আটা ভর্তি পিকআপ ভ্যান আটক করে কোতুলপুর থানার পুলিশ। সেখান থেকে উদ্ধার হয় এই আটার বস্তাগুলি।

স্থানীয় সূত্রে খবর, বুধবার কোতুলপুরে নাকা চেকিংয়ের সময়ে কর্তব্যরত পুলিশকর্মী এবং খাদ্য ও পরিবহণ বিভাগের পরিদর্শক আটাবোঝাই একটি পিক আপভ্যান আটক করেন। ওই পিকআপ ভ্যানটি গোপীনাথপুর থেকে গড়বেতা যাচ্ছিল। গাড়ির চালক কোনো বৈধ কাগজপত্র দেখাতে না পারলে আধিকারিকদের সন্দেহ হয়।

এর পর পুলিশ আর খাদ্য দফতরের আধিকারিকরা ওই গাড়িচালকের বাড়িতে গিয়ে তল্লাশি শুরু করলে সেখান থেকেও বেশ কয়েক বস্তা আটা উদ্ধার হয়। খাদ্য দফতরের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে কোতুলপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

জিজ্ঞাসাবাদের পর বুধবার রাতেই পুলিশ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে। জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে গত ছ’ মাস ধরে বাড়িতে রেশনের আটার প্যাকেট খুলে বস্তা বন্দি করে ওই আটা মেদিনীপুরের বিভিন্ন জায়গায় অনেক হোটেলে সরবরাহ করা হচ্ছিল। বৃহস্পতিবার কোতুলপুর থানার পুলিশ অভিযুক্তকে বিষ্ণুপুর মহকুমা আদালতে পেশ করেছে।

স্থানীয় বিধায়ক ও রাজ্যের মন্ত্রী শ্যামল সাঁতরা ঘটনার বিবরণ দিয়ে বলেন, “রাজ্য সরকারের রেশন দ্রব্য নিয়ে কোনো ধরনের কালোবাজারি বরদাস্ত করা হবে না, সকলেই যাতে নিজেদের প্রয়োজনীয় রেশন পান তা নিয়ে সচেতন আমরা।”

Continue Reading

বাঁকুড়া

করোনা নিয়ে সচেতনতা বাড়াতে গান বাঁধলেন বাঁকুড়ার পুলিশ আধিকারিক

ইন্দ্রাণী সেন

বাঁকুড়া: কোতুলপুর থানার সিআই অজয় কুমার সিংহ পেশায় পুলিশ আধিকারিক হলেও গান তাঁর নেশা। ইতিমধ্যেই বাংলার জনপ্রিয় সংগীতশিল্পীদের কন্ঠে জনপ্রিয় হয়েছে তাঁর লেখা গান। এ বার করোনা সচেতনতায় গান লিখে এবং সেটা গেয়ে ভাইরাল হলেন ওই আধিকারিক।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে এক মাসের বেশি সময় ধরে লকডাউন চলছে। কিন্তু তার মধ্যে অনেকেই রাস্তায় বেরিয়ে লকডাউন ভাঙছে বলে অভিযোগ। সেই সমস্ত মানুষদের বাগে আনতে এই গানকেই সঙ্গী করেছে বাঁকুড়ার থানাগুলি। ফল মিলছেও হাতে নাতে।

আরও পড়ুন দেশে ৩৫ হাজারের বেশি মানুষ এখন করোনায় সংক্রমিত, বাড়ছে সুস্থতাও

অজয়বাবুর লেখা গান জেলাপুলিশের তরফে ইতিমধ্যে রেকর্ড করেছেন গোলোকবিহারী মাহাতো।

অজয়বাবুর কথায়, “এখনও পর্যন্ত করোনা নিয়ে তিনটি গান লিখে সুর করে গেয়েছি। একটি আধুনিক, একটি বাউল আর একটা প্রার্থনা সংগীত।”

গান গাইছেন গোলোকবিহারী মাহাতো।

তাঁর এক সহকর্মী বলেন, “এই কঠিন পরিস্থিতিতে স্যারের গান আমাদের সহকর্মীদের মনোবল চাঙ্গা রাখতেও বেশ ভালো কাজ করছে।”

Continue Reading

বাঁকুড়া

করোনাভাইরাস নিয়ে বাঁকুড়া পুলিশের তৈরি সচেতনতার তথ্যচিত্র জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে

ইন্দ্রাণী সেন

বাঁকুড়া: করোনাভাইরাস (Coronavirus) নিয়ে সচেতনতা বৃদ্ধিতে একটি বিশেষ তথ্যচিত্র প্রকাশ করল বাঁকুড়া জেলা পুলিশ (Bankura District Police)। জেলা পুলিশের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে এই তথ্যচিত্রটি প্রকাশ করা হয়েছে এক সপ্তাহ আগে।

উল্লেখ্য, বাঁকুড়ার কোতুলপুর (Kotulpur) থানার আধিকারিক রাজীব কুমার পাল প্রথম এই ধরনের তথ্যচিত্র প্রকাশে আগ্রহ প্রকাশ করেন। পরে জেলা পুলিশ সুপার কোটশ্বর রাও এই ব্যাপারটিতে শিলমোহর দেন।

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় বাঁকুড়া জেলা পুলিশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে চলেছে। জেলার প্রত্যন্ত গ্রামগুলির প্রান্তিক মানুষের জন্য খাবার পৌঁছে দেওয়া থেকে নিজেদের সান্মানিকের অর্ধেক প্রদান বা রক্তদান, সব দিকেই নজর কেড়েছে জেলা পুলিশ। এই অবস্থায় জেলা জুড়ে সাড়া ফেলেছে এই তথ্যচিত্রটি।

লকডাউনের (Lockdown) জেরে গৃহবন্দি মানুষদের কাছে সোশ্যাল মিডিয়া এখন অন্যতম পছন্দের সঙ্গী। কোতুলপুর থানার আধিকারিকের কথায়, “আমরা এই সুযোগটাই কাজে লাগিয়েছি মানুষকে সচেতন করতে। এই কাজে আমাদের বিশেষ সহায়তা করেছেন সার্কেল ইনসপেক্টর অজয় কুমার সিংহ। চিত্রনাট্যের রচনা করেছেন শিক্ষক ডঃ প্রসেনজিৎ সরকার। ইতিমধ্যে এটি সোশ্যাল মিডিয়ার সৌজন্য যথেষ্ট জনপ্রিয় হয়েছে।”

কুশীলব হিসাবে এই থানারই আধিকারিক ও স্থানীয় মানুষ অংশ নিয়েছেন এই তথ্যচিত্রে। নাম দেওয়া হয়েছে ‘এ কোন ভোর।’ একজন সাধারণ মানুষ এই লকভাউনে কী ভাবে সমস্যায় পরে পুলিশের সাহায্যে সমাধান পেয়েছেন তা দেখানো হয়েছে। হেলমেট, মাক্স ও লকভাউন মানাতে পুলিশ প্রশাসন যে ভাবে তৎপর তাও উঠে এসেছে এই তথ্যচিত্রে। জেলা পুলিশের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সাধারণ মানুষ।

Continue Reading
Advertisement
ক্রিকেট1 hour ago

করোনাভাইরাস অতিমারির জের, ২০২১-এর জুন পর্যন্ত এশিয়া কাপ স্থগিত

কেনাকাটা4 hours ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

দঃ ২৪ পরগনা4 hours ago

‘গরিবের প্রাপ্য টাকা হজম করে দিচ্ছেন তৃণমূল নেতৃত্ব’, অভিযোগ শমীক লাহিড়ির

বিনোদন5 hours ago

শারীরিক দূরত্বের সঙ্গেই কেক কেটে নিজের জন্মদিন পালন করলেন সঙ্গীতা বিজলানি

ক্রিকেট5 hours ago

ক্যারিবিয়ান পেস-দাপটে উড়ে গেল ইংল্যান্ড ব্যাটিং

রাজ্য5 hours ago

কলকাতায় কমলেও এই প্রথম রাজ্যে নতুন করে আক্রান্ত হাজারের ওপর

শিক্ষা ও কেরিয়ার6 hours ago

শুক্রবার আইসিএসই, আইএসসি-র ফল

দেশ6 hours ago

করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লেও ভারতে এখনও গোষ্ঠী সংক্রমণ নেই: স্বাস্থ্যমন্ত্রক

দেশ16 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ২৪৮৭৯, সুস্থ ১৯৫৪৭

কলকাতা1 day ago

কলকাতায় লকডাউনের আওতায় পড়া এলাকাগুলির পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশিত

দেশ2 days ago

দ্রুত গতিতে বাড়ছে সুস্থতা, ভারতে এক সপ্তাহেই করোনামুক্ত লক্ষাধিক

রাজ্য3 days ago

পশ্চিমবঙ্গের বেশ কিছু জায়গায় ফের কড়া লকডাউনের জল্পনা

বিদেশ2 days ago

অনলাইনে ক্লাস করা ভিনদেশি পড়ুয়াদের আমেরিকা ছাড়তে হবে, নির্দেশ ডোনাল্ড ট্রাম্প সরকারের

রাজ্য2 days ago

বৃহস্পতিবার বিকেল পাঁচটা থেকে রাজ্যের কনটেনমেন্ট জোনগুলিতে কড়া লকডাউন

ক্রিকেট1 day ago

১১৬ দিন পর শুরু আন্তর্জাতিক ক্রিকেট, হাঁটু গেড়ে বসে জর্জ ফ্লয়েডকে স্মরণ ক্রিকেটারদের

কেনাকাটা2 days ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

কেনাকাটা

কেনাকাটা4 hours ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

খবরঅনলাইন ডেস্ক : একে লকডাউন তার ওপর ঘরে থাকার একঘেয়েমি। মনটাকে বিষাদে ভরিয়ে দিচ্ছে। ঘরের রদবদল করুন। জিনিসপত্র এ-দিক থেকে...

কেনাকাটা2 days ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

কেনাকাটা3 days ago

রান্নাঘরের টুকিটাকি প্রয়োজনে এই ১০টি সামগ্রী খুবই কাজের

খবরঅনলাইন ডেস্ক : লকডাউনের মধ্যে আনলক হলেও খুব দরকার ছাড়া বাইরে না বেরোনোই ভালো। আর বাইরে বেরোলেও নিউ নর্মালের সব...

কেনাকাটা4 days ago

হ্যান্ড স্যানিটাইজারে ৩১ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

অনলাইনে খুচরো বিক্রেতা অ্যামাজন ক্রেতার চাহিদার কথা মাথায় রেখে ঢেলে সাজিয়েছে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের সম্ভার।

নজরে