কবে উপ-নির্বাচন? চাপানউতোরের মাঝেই কমিশনের ইঙ্গিতবাহী নির্দেশ

    আরও পড়ুন

    খবর অনলাইন ডেস্ক: রাজ্যের পাঁচ কেন্দ্রের উপ-নির্বাচন নিয়ে চাপানউতোর চলছে তৃণমূল-বিজেপির। তবে এই কেন্দ্রগুলিতে আগস্ট অথবা সেপ্টেম্বরে ভোট করানোর ইঙ্গিতবাহী নির্দেশ দিল নির্বাচন কমিশন।

    ভবানীপুর-সহ যে পাঁচটি কেন্দ্রে উপ-নির্বাচন হওয়ার কথা প্রাথমিক ভাবে সেখানকার ইভিএম এবং ভিভিপ্যাট পরীক্ষার কাজ আগস্টের প্রথম সপ্তাহে শেষ করার নির্দেশ দিয়েছে কমিশন। এ ধরনের নির্দেশের প্রেক্ষিতেই অনুমান করা হচ্ছে, আগামী আগস্টের শেষ দিক অথবা সেপ্টেম্বরে উপ-নির্বাচন সম্ভাবনা রয়েছে। তবে রাজ্য নির্বাচন দফতরের তরফে এই নির্দেশ দেওয়া হলেও নির্বাচনের মতোই উপনির্বাচনের চূড়ান্ত দিনক্ষণ ঘোষণার সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকে কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশন।

    Loading videos...

    জঙ্গিপুর এবং সামশেরগঞ্জে যেহেতু ভোটগ্রহণ স্থগিত ছিল, তাই সেখানকার প্রস্তুতি আগে থেকেই সেরে রেখেছে কমিশন। কিন্তু বাকি পাঁচটি কেন্দ্রে উপ-নির্বাচন হবে, ফলে সেখানে নতুন করে ইভিএম এবং ভিভিপ্যাট পরীক্ষার প্রয়োজন রয়েছে।

    কোথায় কেন ভোট হবে?

    - Advertisement -

    রাজ্যে বর্তমানে পাঁচটি কেন্দ্রে উপনির্বাচন এবং দু’টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ বাকি রয়েছে। ভোট হবে ভবানীপুর, খড়দহ, শান্তিপুর, গোসাবা, দিনহাটা, সামশেরগঞ্জ এহং জঙ্গিপুরে। এর মধ্যে সামশেরগঞ্জ এবং জঙ্গিপুরে প্রার্থীদের মৃত্যুতে ভোটগ্রহণ স্থগিত হয়ে যায়। খড়দহ, গোসাবায় ভোটের পরে বিধায়কদের মৃত্যু হয়। শান্তিপুর, দিনহাটা এবং ভবানীপুরে নির্বাচিত বিধায়করা পদত্যাগ করেন।

    ২ মে বিধানসভা ভোটের ফলাফল ঘোষণা হয়। তবে এখনও পাঁচটি আসনে উপ-নির্বাচন ও দু’টি আসনে নির্বাচন বাকি রয়েছে রাজ্যে। কয়েক দিন আগেই রাজ্যের নির্বাচনী আধিকারিকের নির্দেশে কোচবিহার, কলকাতা দক্ষিণ, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, উত্তর ২৪ পরগনা, নদিয়া, মুর্শিদাবাদ জেলাকে বলা হয়েছে দ্রুত ইভিএম এবং ভিভিপ্যাটের ‘ফার্স্ট লেভেল চেকিং’-এর কাজ শুরু করতে হবে।

    তৃণমূল-বিজেপি চাপানউতোর

    রাজ্যের সাতটি বিধানসভা কেন্দ্রে দ্রুত ভোট চেয়ে দিল্লিতে নির্বাচন কমিশনের সদর দফতরে দরবার করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। অন্য দিকে কোভিড-পরিস্থিতির কথা উল্লেখ করে এখনই ভোট চাইছে না বিজেপি।

    বিরোধিতা দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী সম্প্রতি বলেন, “রাজ্যে লোকাল ট্রেন চলছে না। তার মানে কোভিড-পরিস্থিতির নিশ্চয় উন্নতি হয়নি। যারা লোকাল ট্রেন চালাতে পারছে না, তারা উপ-নির্বাচন চায় কী করে”? তাঁর সংযোজন, “যত দিন পর্যন্ত রাজ্যের কোভিড পরিস্থিতির না উন্নতি হচ্ছে এবং টিকাকরণ প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হচ্ছে তত দিন রাজ্যে কোনো নির্বাচন হোক, এমনটা আমরা চাই না”।

    অন্য দিকে, সাত আসনে দ্রুত উপ-নির্বাচন চেয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে দিল্লিতে নির্বাচন কমিশনের দফতরে যায় তৃণমূল কংগ্রেসের প্রতিনিধি দল। ওই দলে ছিলেন তৃণমূল সাংসদ সুদীপ বন্দোপাধ্যায়, সৌগত রায়, কল্যাণ বন্দোপাধ্যায়, কাকলি ঘোষ দস্তিদার, সুখেন্দুশেখর রায় ও ডেরেক ও’ব্রায়েন। কমিশনের কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক হয় তাঁদের।

    আরও পড়তে পারেন: রাজ্যসভায় দীনেশ ত্রিবেদীর ছেড়ে যাওয়া আসনে উপ-নির্বাচন, দিন ঘোষণা কমিশনের

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

    - Advertisement -

    আপডেট খবর