Connect with us

রাজ্য

বিদ্যুতের বিলে বাড়তি বোঝা! সিইএসসির বিরুদ্ধে অভিযোগের বহর বাড়ছে

বিদ্যুতের বিলে অসংখ্য অসঙ্গতি এবং অতিরিক্ত ইউনিট জুড়ে দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ করছেন গ্রাহকরা।

Published

on

electricity meter

কলকাতা: সিইএসসি (CESC)-র বিদ্যুতের বিল নিয়ে বিতর্ক তুঙ্গে। সংস্থার পাঠানো বিদ্যুতের বিলে অসংখ্য অসঙ্গতি এবং অতিরিক্ত ইউনিট জুড়ে দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ করছেন গ্রাহকরা।

লকডাউনের জেরে বন্ধ ছিল বিদ্যুতের মিটার দেখা। তবে আনলক শুরু হতেই ফের তা শুরু হয়েছে। কিন্তু মিটার দেখা বন্ধ থাকলেও মোবাইল এসএমএসে সিইএসসির বিদ্যুতের বিল ঠিক পৌঁছে গিয়েছে। অনেকেই অনলাইন জমা করেছেন, আবার অনেকেই তা করেননি।

চলতি জুলাই মাসে কলকাতা জুড়ে ফের বিদ্যুতের বিল বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিয়েছে সিইএসসি। তবে সেই বিল মোটেই মিটার রিডিংয়ের প্রেক্ষিতে নয়। গ্রাহকের বিদ্যুৎ ব্যবহারের অতীত গড় দেখেই ওই বিল পাঠানো হয়েছে এতদিন। এপ্রিল এবং মে মাসের মিটার রিডিং বন্ধ ছিল লকডাউনের কারণে। ফলে গ্রাহকরা ওই মাসগুলিতে যে বিল পেয়েছেন (এসএমএস), তা আগের ছ’মাসের গড় ইউনিট খরচের ভিত্তিতে করা হয়েছে।

সিইএসসি গত ৮ জুন থেকে ফের বাড়ি বাড়ি গিয়ে মিটার রিডিং শুরু করে। কিন্তু ওই মাসের জন্য যে বিল পাঠানো হচ্ছে, তাতে অসংখ্য অসঙ্গতি এবং অতিরিক্ত বিল জুড়ে দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলছেন গ্রাহকরা।

গ্রাহকদের অভিযোগ

কোনো গ্রাহক অভিযোগ তুলছেন, তাঁর মিটার রিডিংয়ের সঙ্গে ব্যবহৃত বিদ্যুৎ ইউনিটের পরিমাণের অসঙ্গতি রয়েছে।

কেউ অভিযোগ করছেন, অযৌক্তিক বিল পাঠানো হচ্ছে। বাড়তি বিল পাঠিয়ে আর্থিক সমস্যায় ফেলা হচ্ছে গ্রাহককে।

সংস্থার যুক্তি

সংস্থার তরফে ক্ষেত্র বিশেষে সমস্যার সমাধান করার আশ্বাস দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু, অভিযোগকারীদের সংখ্যা উত্তরোত্তর বেড়েই চলেছে।

এ প্রসঙ্গে সিইএসসির ভাইস-প্রেসিডেন্ট (বিদ্যুৎ বণ্টন), অভিজিৎ ঘোষ ‘এই সময়’ সংবাদপত্রের কাছে জানান, “জুন মাসের ৮ তারিখ থেকে আমরা ফের মিটার রিডিং শুরু করি। ওই রিডিং হিসাবে একজন গ্রাহকের যত টাকা দেওয়া হচ্ছে তার থেকে আগের দু’মাসের প্রভিশনাল বিলের টাকা বাদ দিয়ে যা বকেয়া থাকে সেটা জুন মাসের বিলে যোগ করে আমরা বিল পাঠিয়েছি”।

এই কারণেই অনেক গ্রাহকেরই জুন মাসের বিল এতো বেশি এসেছে বলে দাবি করছে সিইএসসি।

রাজনৈতিক আন্দোলন

বিদ্যুতের বিল বিতর্কে রাজ্য সরকারের হস্তক্ষেপ দাবি করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে মঙ্গলবার চিঠি দিয়েছেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র।

রীতি মতো হুঁশিয়ারির সুরে তিনি বলেছেন, “লকডাউনে মানুষের রোজগার প্রায় বন্ধ ছিল। ঘরবন্দি হয়ে তাদের কাটাতে হয়েছে। এর পর এখন তারা সিইএসসির থেকে যে অঙ্কের বিল পাচ্ছে, তাতে তাদের চোখ ছানাবড়া হওয়ার জোগাড় হয়েছে। লকডাউনের আগের তুলনায় কয়েক গুণ বেশি বিল আসছে মানুষের কাছে। এই অবস্থায় আমরা মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চাইছি। নতুবা বাধ্য হয়ে রাস্তায় নামতে বাধ্য হব”।

সপ্তাহ দুয়েক আগেই সিইএসসির বিরুদ্ধে অস্বাভাবিক বিল পাঠানোর অভিযোগে সরব হয়েছিলেন বালির তৃণমূল বিধায়ক বৈশালী ডালমিয়া। তাঁর অভিযোগ স্বাভাবিকের থেকে কোনও কোনও ক্ষেত্রে ৭০ থেকে ৮০ শতাংশ বেশি বিল পাঠানো হচ্ছে। কোনও কোনও ক্ষেত্রে দ্বিগুণ বেশি বিল পাঠানো হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছিলেন তিনি।

অভিযোগ মন্ত্রীর কাছেও

বিদ্যুৎমন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়ের বক্তব্য, “সিইএসসি-র অনেক গ্রাহকের কাছ থেকে আমি অভিযোগ পাওয়ার পর সংস্থার সঙ্গে কথা বলেছি। ওরা জানিয়েছে, লকডাউনের জন্য মিটার রিডিং না করতে পারাতেই এই সমস্যা হয়েছে। কমিশনের নির্দেশিকা অনুযায়ী, কোনও নির্দিষ্ট মাসের মিটার রিডিং না করতে পারলে গ্রাহককে তার আগের ছ’মাসের গড় ইউনিট খরচ হিসাব করে বিল পাঠাতে হয়। এই সমস্যা বণ্টন সংস্থার ক্ষেত্রেও হতে পারে”।

বীরভূম

‘বড়ো’ নেতা খুনের ছক, শান্তিনিকেতন থেকে ধৃত ৪ বাংলাদেশি ‘সুপারি কিলার’

এই ষড়যন্ত্রের পেছনে বড়ো কোনো নামও জড়িয়ে থাকতে পারে বলে আশঙ্কা করছে পুলিশ।

Published

on

Supari Killer
ধৃতদের কাছ থেকে আগ্নেয়াস্ত্র এবং প্রচুর পরিমাণে বিস্ফোরক উদ্ধার হয়েছে।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: কোনো ‘বড়ো’ নেতাকে খুন করার চক্রান্ত চলছিল। তার আগেই বীরভূম জেলা পুলিশের জালে পড়ল বাংলাদেশি চার সুপারি কিলার। সোমবার শান্তিনিকেতন (Santiniketan) থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে দুষ্কৃতীদের।

ধৃতদের কাছ থেকে আগ্নেয়াস্ত্র এবং প্রচুর পরিমাণে বিস্ফোরক উদ্ধার হয়েছে। দুষ্কৃতীদের আত্মগোপনে সাহায্য এবং খুনের পরিকল্পনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে স্থানীয় দুই ব্যক্তিকেও গ্রেফতার করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, মেদিনীপুর জেলে বন্দি বীরভূমেরই কোনো নেতাকে খুনের জন্য ‘সুপারি’ পেয়েছিল এই চার জন। মনে করা হচ্ছে, স্থানীয় কয়েক জনের সাহায্য বাংলাদেশি চার দুষ্কৃতী কয়েক দিন আগে এ রাজ্যে আসে। পরে বীরভূমের শান্তিনিকেতনে গা ঢাকা দিয়েছিল।

গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি শুরু করে জেলা পুলিশ। অবশেষে শান্তিনিকেতনের একটি বাড়ি থেকে ওই চার জনকে পাকড়াও করা হয়। শান্তিনিকেতন ছাড়াও, নানুর এবং লাভপুর জুড়ে আরও কয়েক জনের খোঁজে তল্লাশি শুরু হয়েছে। তদন্তভার যেতে পারে রাজ্য এসটিএফ-এর হাতে।

বড়ো ধরনের হামলা চালানোর পরিকল্পনা ছিল বলে মনে করা হচ্ছে। এই ষড়যন্ত্রের পেছনে বড়ো কোনো নামও জড়িয়ে থাকতে পারে বলে আশঙ্কা করছে পুলিশ। ওই চার জন কাদের মদতে এ রাজ্যে ঢুকল, কী ভাবেই বা তারা এত অস্ত্রশস্ত্র এবং বিস্ফোরক পেল, এই সব কিছুই খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

পরীক্ষা পিছিয়ে দেওয়া সম্ভব নয়, সুপ্রিম কোর্টে জানাল ইউপিএসসি

Continue Reading

রাজ্য

মুখ্যসচিব হচ্ছেন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়, বিজ্ঞপ্তি নবান্নের

চাকরি জীবনের শুরুতে মহকুমাশাসক, আন্ডার সেক্রেটারি এবং একাধিক জেলার জেলাশাসক হিসেবে কাজ করেছিলেন আলাপনবাবু।

Published

on

alapan banerjee
৩০ সেপ্টেম্বর থেকে মুখ্যসচিবের দায়িত্ব নিচ্ছেন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সব জল্পনার অবসান। পশ্চিমবঙ্গের পরবর্তী মুখ্যসচিব হচ্ছেন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় (Alapan Banerjee)। সোমবার এই মর্মে নির্দেশিকা জারি করেছে নবান্ন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর অবসর নিচ্ছেন বর্তমান মুখ্যসচিব রাজীব সিংহ। তাঁর জায়গায় আসছেন ১৯৮৭-এর ব্যাচের আইএএস অফিসার আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। এত দিন রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিব হিসাবে দায়িত্ব পালন করছিলেন আলাপনবাবু। এ ছাড়াও সংসদ বিষয়ক এবং তথ্য ও সংস্কৃতি দফতরের দায়িত্বও তাঁর হাতে ছিল।

এই বিজ্ঞপ্তি জারি হওয়ার আগেই নিজের টুইটারে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় লেখেন, “আমি এটা জানাতে পেরে খুব আনন্দিত যে বর্তমান স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে রাজ্যের নতুন মুখ্যসচিব নিযুক্ত করা হচ্ছে। বর্তমান অর্থ দফতরের সচিব এইচ কে দ্বিবেদীকে রাজ্যের নতুন স্বরাষ্ট্রসচিব নিযুক্ত করা হল। অন্য দিকে অর্থ দফতরের সচিবের দায়িত্ব পেলেন মনোজ পন্থ। আগামী ১ অক্টোবর থেকে দায়িত্ব নেবেন তিন জন।”

আলাপনবাবুই যে পরবর্তী মুখ্যসচিব হতে চলেছেন, সে ব্যাপারে অনেক দিন আগে থেকেই জল্পনা চলছিল। চাকরি জীবনের শুরুতে মহকুমাশাসক, আন্ডার সেক্রেটারি এবং একাধিক জেলার জেলাশাসক হিসেবে কাজ করেছিলেন আলাপনবাবু। কলকাতা পুরসভার কমিশনার ছাড়াও পুর, পরিবহণ, শিল্প, এসএসএমই-এর মতো দফতরে কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে তাঁর।

বর্তমান সরকারের সময় কিছু দিন রাজ্য নির্বাচন কমিশনের দায়িত্বও সামলেছিলেন তিনি। প্রশাসনের অন্দরের ব্যাখ্যা, দীর্ঘ অভিজ্ঞতা এবং সরকারকে বহু বার নানা সমস্যা থেকে বার করে আনার সুবাদে পরবর্তী মুখ্যসচিব পদের অন্যতম দাবিদার তিনিই। 

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

হাসিনার জন্মদিনে ভারতের শুভেচ্ছা, মুক্তিযুদ্ধে ভারতের অবদান স্মরণ হাসিনার

Continue Reading

রাজ্য

অক্টোবরের দ্বিতীয় সপ্তাহে আসতে পারে নিম্নচাপ, তত দিন বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিই ভরসা দক্ষিণবঙ্গের

অক্টোবর পড়লেও দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টি চলবে বলেই ইঙ্গিত দিয়েছেন ওয়েদার আল্টিমার কর্ণধার রবীন্দ্র গোয়েঙ্কা।

Published

on

low pressure west bengal rain
বৃষ্টি এখন চলবে।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: খাতায় কলমে বর্ষার মরশুম শেষ হবে ৩০ সেপ্টেম্বর। কিন্তু দক্ষিণপশ্চিম মৌসুমি বায়ু (Monsoon 2020) এখনও বহাল তবিয়তেই বিরাজ করবে গোটা পশ্চিমবঙ্গের ওপরে। কিছুটা দুর্বল থাকার ফলে হয়তো এখনই ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই, তবে বিক্ষিপ্ত ভাবে বৃষ্টি চলতেই থাকবে।

বিহারের ওপরে একটি ঘূর্ণাবর্ত আর অন্ধ্রপ্রদেশ উপকূলে একটি নিম্নচাপ থাকার ফলে আগামী ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণবঙ্গে বিক্ষিপ্ত ভাবে মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে কোথাও কোথাও। উপকূলবর্তী অঞ্চলে বৃষ্টি কিছুটা বেশি হতে পারে। তবে সেই বৃষ্টিও মঙ্গলবার থেকে কমে যাবে।

বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা ওয়েদার আল্টিমা জানাচ্ছে, মঙ্গলবার থেকে বৃহস্পতিবার বৃষ্টি এক্কেবারেই কমে যাবে দক্ষিণবঙ্গে। আর এই সুযোগে আগামী কয়েক দিন দক্ষিণবঙ্গ জুড়ে বাড়বে পারদ। তৈরি হবে অসহনীয় পরিস্থিতি।

পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতে পারদ উঠে যেতে পারে ৩৮ ডিগ্রিতে। কলকাতায় তাপমাত্রা ৩৫-৩৬ ডিগ্রির আশেপাশে ঘোরাফেরা করতে পারে। এই তীব্র গরমকে কাজে লাগিয়ে স্থানীয় ভাবে বজ্রগর্ভ মেঘের সঞ্চার হয়ে অবশ্য কোথাও কোথাও অল্প সময়ের জন্য ভারী বৃষ্টি হতে পারে।

তবে অক্টোবর পড়লেও দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টি চলবে বলেই ইঙ্গিত দিয়েছেন ওয়েদার আল্টিমার কর্ণধার রবীন্দ্র গোয়েঙ্কা। উত্তরপশ্চিম ভারত থেকে বর্ষার বিদায়যাত্রা শুরু হলেও পশ্চিমবঙ্গ থেকে বর্ষা বিদায় নিতে অনেকটাই সময় নেবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

অক্টোবরের দ্বিতীয় সপ্তাহে বঙ্গোপসাগরে নতুন করে নিম্নচাপ তৈরি হওয়ারও ইঙ্গিত দিয়েছেন রবীন্দ্রবাবু। তখন ফের জোর বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে দক্ষিণবঙ্গে।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

অতিবৃষ্টির হাত থেকে অবশেষে রেহাই পেল উত্তরবঙ্গ, আপাতত স্বস্তি

Continue Reading
Advertisement
সংস্কৃতি4 hours ago

বালার্ক ও সাঁওতাল বিদ্রোহ সার্ধ শতবার্ষিকী মহাবিদ্যালয়ের উদ্যোগে নাট্য সাহিত্য নিয়ে দু’ দিনের আলোচনাচক্র

জীবন যেমন4 hours ago

ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে প্রতিদিন গোলাপ জল ব্যবহার করেন তো? না করলে আজই শুরু করুন

ক্রিকেট5 hours ago

কিষানের অবিশ্বাস্য ইনিংস শেষে সুপার ওভারে স্বস্তির জয় বেঙ্গালুরুর

কেনাকাটা5 hours ago

পছন্দসই নতুন ধরনের গয়নার কালেকশন, দাম ১৪৯ টাকা থেকে শুরু

ক্রিকেট8 hours ago

ফর্ম হাতড়াচ্ছেন বিরাট কোহলি, ডেভিলিয়ার্সের ব্যাটে ফের ঝড়

Covid situation kolkata
দেশ8 hours ago

রাজ্যে কোভিডরোগীর সংখ্যা আড়াই লক্ষ পার, কলকাতা-উত্তর ২৪ পরগণায় সক্রিয় রোগী ফের ৫ হাজার অতিক্রান্ত

শরীরস্বাস্থ্য10 hours ago

আপনি কি কোনো কারণে হতাশা বা ডিপ্রেশনে ভুগছেন? বুঝবেন এই লক্ষণগুলি থেকে: পর্ব ১

Rahul Tewatia
ক্রিকেট11 hours ago

একটা বল মিস করার জন্য রাহুল তেওয়াটিয়াকে ধন্যবাদ দিলেন যুবরাজ সিংহ

দেশ19 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৮২১৭০, সুস্থ ৭৪৮৯৩

দেশ1 day ago

জল্পনার অবসান! নীতীশ কুমারের দলে যোগ দিলেন বিহারের প্রাক্তন ডিজি

গ্রেবাল ক্লাইমেট স্ট্রাইক
পরিবেশ3 days ago

জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে নৈহাটিতে ফ্রাইডে ফর ফিউচারের প্রতীকী ধর্মঘট

deepika padukone
দেশ3 days ago

মাদক মামলায় জেরার মুখোমুখি হতে এনসিবির দফতরে দীপিকা পাড়ুকোন

দেশ2 days ago

প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী এবং বিজেপি নেতা জসবন্ত সিংহ প্রয়াত

Mamata Banerjee
রাজ্য2 days ago

১ অক্টোবর থেকে শর্তসাপেক্ষে খুলছে সিনেমা হল, চালু খেলাধুলো-সহ অন্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

coronavirus
দেশ3 days ago

কোভিডের প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার পর এই প্রথম ভারতে ‘আর নম্বর’ নামল ১-এর নীচে

কলকাতা2 days ago

পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতে চালু হল ‘বেহালার হেঁশেল’, ১০ টাকায় মিলবে খাবারের প্যাকেট

কেনাকাটা

কেনাকাটা5 hours ago

পছন্দসই নতুন ধরনের গয়নার কালেকশন, দাম ১৪৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজোর সময় পোশাকের সঙ্গে মানানসই গয়না পরতে কার না মন চায়। তার জন্য নতুন গয়না কেনার...

কেনাকাটা3 days ago

নতুন কালেকশনের ১০টি জুতো, ১৯৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো এসে গিয়েছে। কেনাকাটি করে ফেলার এটিই সঠিক সময়। সে জামা হোক বা জুতো। তাই দেরি...

কেনাকাটা4 days ago

পুজো কালেকশনে ৬০০ থেকে ১০০০ টাকার মধ্যে চোখ ধাঁধানো ১০টি শাড়ি

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজোর কালেকশনের নতুন ধরনের কিছু শাড়ি যদি নাগালের মধ্যে পাওয়া যায় তা হলে মন্দ হয় না। তাও...

কেনাকাটা6 days ago

মহিলাদের পোশাকের পুজোর ১০টি কালেকশন, দাম ৮০০ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পুজো তো এসে গেল। অন্যান্য বছরের মতো না হলেও পুজো তো পুজোই। তাই কিছু হলেও তো নতুন...

কেনাকাটা1 week ago

সংসারের খুঁটিনাটি সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে এই জিনিসগুলির তুলনা নেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিজের ও ঘরের প্রয়োজনে এমন অনেক কিছুই থাকে যেগুলি না থাকলে প্রতি দিনের জীবনে বেশ কিছু সমস্যার...

কেনাকাটা2 weeks ago

ঘরের জায়গা বাঁচাতে চান? এই জিনিসগুলি খুবই কাজে লাগবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ঘরের মধ্যে অল্প জায়গায় সব জিনিস অগোছালো হয়ে থাকে। এই নিয়ে বারে বারেই নিজেদের মধ্যে ঝগড়া লেগে...

কেনাকাটা3 weeks ago

রান্নাঘরের জনপ্রিয় কয়েকটি জরুরি সামগ্রী, আপনার কাছেও আছে তো?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরের এমন কিছু সামগ্রী আছে যেগুলি থাকলে কাজ করাও যেমন সহজ হয়ে যায়, তেমন সময়ও অনেক কম খরচ...

কেনাকাটা3 weeks ago

ওজন কমাতে ও রোগ প্রতিরোধশক্তি বাড়াতে গ্রিন টি

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ওজন কমাতে, ত্বকের জেল্লা বাড়াতে ও করোনা আবহে যেটি সব থেকে বেশি দরকার সেই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা...

কেনাকাটা3 weeks ago

ইউটিউব চ্যানেল করবেন? এই ৮টি সামগ্রী খুবই কাজের

বহু মানুষকে স্বাবলম্বী করতে ইউটিউব খুব বড়ো একটি প্ল্যাটফর্ম।

কেনাকাটা1 month ago

ঘর সাজানোর ও ব্যবহারের জন্য সেরামিকের ১৯টি দারুণ আইটেম, দাম সাধ্যের মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘর সাজাতে কার না ভালো লাগে। কিন্তু তার জন্য বাড়ির বাইরে বেরিয়ে এ দোকান সে দোকান ঘুরে উপযুক্ত...

নজরে