Connect with us

উঃ দিনাজপুর

করোনা পরিস্থিতি উদ্বেগজনক হুগলির, গ্রিন জোনের তকমা ঘুচল আরও দুই জেলার

Published

on

খবর অনলাইনডেস্ক: পরিযায়ী শ্রমিকদের নিজেদের বাড়ি ফিরে যাওয়ার অনুমতি দিয়েছে কেন্দ্র। এর পর বিভিন্ন রাজ্যের করোনারোগীর সংখ্যা যে আরও বেশ কিছুটা বৃদ্ধি পাবে তা আন্দাজ করাই হচ্ছিল। ঠিক সে ভাবেই গ্রিন জোনের তকমা ঘুচল পশ্চিমবঙ্গের আরও দুই জেলার। অন্য দিকে করোনা পরিস্থিতি ঘোরালো হয়ে উঠল হুগলির (Hugli)।

রবিবার রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর যে বুলেটিন প্রকাশ করে তাতে দেখা যায় করোনা সংক্রমণের তালিকায় এ বার নাম লিখিয়েছে উত্তর দিনাজপুর (Uttar Dinajpur) আর ঝাড়গ্রাম (Jhargram) জেলাও। দুই জেলাতেই আক্রান্ত তিন জন করে।

সূত্রের খবর, দুই জেলার আক্রান্তরাই কিছু দিন আগেই জেলায় ফিরেছেন, কেউ দিল্লি থেকে বা কেউ কলকাতা থেকে। ফলে পরিযায়ী শ্রমিকদের মধ্যে দিয়ে সংক্রমণ বাড়ার ব্যাপারটি বাস্তব রূপ নিচ্ছে। যদিও, বিভিন্ন জেলার সীমান্তেই কড়া নজরদারি চালাচ্ছে সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসন। সন্দেহভাজনদের দেখলেই কোয়ারান্টাইন কেন্দ্র পাঠানো হচ্ছে। ফলে উত্তর দিনাজপুর আর ঝাড়গ্রামের আক্রান্তদের মধ্যে দিয়ে সংক্রমণ বিশেষ ছড়াবে না বলেই আশা করছে প্রশাসন।

তবে এখন প্রশাসনের চিন্তার ব্যাপারটি হল বাস চলাচলের কী হবে। শুক্রবার থেকে উত্তর দিনাজপুরে বাছাই করা কিছু রুটে বাস চলাচল শুরু হয়েছে। অন্য দিকে সোমবার থেকে ঝাড়গ্রামেও বাস চলাচল শুরু হওয়ার কথা ছিল।

এখনও সরকারি ভাবে অরেঞ্জ জোনে আসেনি এই দুই জেলা। ফলে বাস চলাচলের ব্যাপারে স্পষ্ট করে কোনো নির্দেশিকাও আসেনি।

এ দিকে হুগলির পরিস্থিতি ক্রমশ উদ্বেগজনক হচ্ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় হুগলিতে আক্রান্তের সংখ্যা সব থেকে বেশি। কলকাতায় যেখানে নতুন করে ৩৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন, সেখানে হুগলিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৪৯।

সূত্রের খবর চন্দননগরের (Chandannagar) নির্দিষ্ট একটি জায়গা থেকে অধিকাংশ আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া গিয়েছে। চন্দননগর পুরসভার ১১ ও ১২ নম্বর ওয়ার্ড সংলগ্ন উর্দিবাজার এলাকার পরিস্থিতি গুরুতর হয়ে উঠছে। ওই অঞ্চলে স্থানীয় সংক্রমণ শুরু হয়ে গিয়েছে বলেই মনে করা হচ্ছে।

এর আগে হুগলির ডানকুনি, শ্রীরামপুর, রিষড়া, আরামবাগ থেকেও কোভিড ১৯ রোগীর সন্ধান মিলেছিল। কিন্তু কোনো জায়গাতেই সংক্রমণ ব্যাপক হারে ছড়ায়নি, যেটা চন্দননগরের ক্ষেত্রে হচ্ছে। উর্দিবাজার এলাকা সিল করে দিয়েছে পুলিশ প্রশাসন। কিন্তু তার পরেও এক শ্রেণির মানুষের মধ্যে কোনো সচেতনতা দেখা যায়নি। তাঁরা বাইরে বেরিয়েছিলেন পুলিশি নিষেধাজ্ঞা অবজ্ঞা করে।

এর পর শনিবার ওই এলাকার প্রবেশপথগুলিতে টিন লাগানোর পাশাপাশি প্লাইউড দিয়ে আটকে দেওয়া হয়েছে যাতে আর কেউ না বেরোতে পারেন ওই এলাকা থেকে। সব মিলিয়ে উর্দিবাজার এলাকায় এখন যুদ্ধকালীন পরিস্থিতি।

উঃ দিনাজপুর

রাজ্যের দুটি জেলায় সক্রিয় কোভিডরোগীর থেকে বেশি কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা

গোটা রাজ্যে বর্তমানে কনটেনমেন্ট জোন ৩,২৩৬।

Published

on

containment zones in west bengal
এই দুই জেলা পূর্ব বর্ধমান আর উত্তর দিনাজপুর।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রাজ্যের দু’টি জেলায় যত জন সক্রিয় কোভিডরোগী রয়েছেন, তার থেকে বেশি সংখ্যায় কনটেনমেন্ট জোন রয়েছে। অদ্ভুত এই ব্যাপার ঘটেছে উত্তর দিনাজপুর আর পূর্ব বর্ধমানের ক্ষেত্রে।

রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর প্রকাশিত সর্বশেষ রিপোর্ট অনুযায়ী পূর্ব বর্ধমানে এই মুহূর্তে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৫৪৮। অথচ এই জেলায় কনটেনমেন্ট জোন রয়েছে ৫৬৩টি। অন্য দিকে উত্তর দিনাজপুরে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৩০৮ হলেও সেখানে কনটেনমেন্ট জোন ৫০২টি।

মনে করা হচ্ছে, গত কয়েক দিনে এই দুই জেলায় সুস্থতার সংখ্যায় বৃদ্ধি আসা এর পেছনে অন্যতম কারণ। বর্তমানে পূর্ব বর্ধমানে মোট ৫,৮০৮ জন রোগীর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৪,৮০১ জন। সুস্থতার হার ৮২.৬২ শতাংশ।

গত সোমবার পূর্ব বর্ধমানে সক্রিয় রোগী ছিলেন ৬২৮ জন। অর্থাৎ চার দিনে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা এই জেলায় কমেছে ৭৬। অথচ, গত কয়েক দিনে কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা এই জেলায় কমেনি। কিন্তু নতুন কিছু জায়গা এই তালিকায় যোগ হয়েছে। সাধারণত একটা অঞ্চলকে কনটেনমেন্ট জোন হিসেবে চিহ্নিত করা হলে ১৪ দিন কড়াকড়ি আরোপিত থাকে। সে কারণেই কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা সক্রিয় রোগীর থেকে বেশি।

একই কথা উত্তর দিনাজপুরের ক্ষেত্রেও। সপ্তাহখানেক আগেই এই জেলায় সক্রিয় রোগীর সংখ্যা পাঁচশোর বেশি ছিল। সেটা এখন ক্রমে কমে তিনশোতে এসে ঠেকেছে। যে দ্রুততায় সক্রিয় রোগীর সংখ্যা কমছে, কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা কমার ক্ষেত্রে কিন্তু সেই দ্রুততা দেখা যাচ্ছে না।

বর্তমানে, রাজ্যে মোট কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা ৩,২৩৬। কলকাতায় কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা ১ থেকে বেড়ে হয়েছে ৩।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

ফ্যাশন ডিজাইনার শর্বরী দত্ত প্রয়াত

Continue Reading

উঃ দিনাজপুর

যোগেন্দ্র যাদবের ‘স্বরাজ ইন্ডিয়া’র নেতৃত্বে উত্তরবঙ্গে দানা বাঁধছে ভুট্টা চাষিদের আন্দোলন

মঙ্গলবার অঞ্চলের একাংশের কৃষক একত্রিত হয়ে একটি মিছিলে অংশ নেন। মিছিলটি করণদিঘির বিডিও পর্যন্ত যায়…

Published

on

করণদিঘি, উত্তর দিনাজপুর: ভুট্টার ন্যূনতম সমর্থন মূল্যের (MSP) দাবিতে যোগেন্দ্র যাদবের দল স্বরাজ ইন্ডিয়ার কৃষক সংগঠন ‘জয় কিষাণ আন্দোলন’-এর নেতৃত্বে উত্তরবঙ্গের বিস্তীর্ণ অঞ্চলের ভুট্টা কৃষকরা কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে গণআন্দোলনে নেমেছে বলে দাবি করা হচ্ছে।

মঙ্গলবার অঞ্চলের একাংশের কৃষক একত্রিত হয়ে একটি মিছিলে অংশ নেন। মিছিলটি করণদিঘির বিডিও পর্যন্ত যায় এবং সেখানে স্মারকলিপি জমা দেয়। বিডিও-র সঙ্গে বৈঠকে নেতৃত্ব নিজেদের দাবিগুলির অবিলম্বে সমাধানের উপর জোর দেন।

সংগঠন দাবি করেছে, কয়েক হাজার কৃষক ইতিমধ্যেই পত্র মারফত কেন্দ্রীয়স্তরে প্রধানমন্ত্রী, কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী ও কৃষি সচিব এবং রাজ্যস্তরে রাজ্যপাল, মুখ্যমন্ত্রী, রাজ্যের কৃষিমন্ত্রী, রাজ্যের কৃষি সচিব, সংশ্লিষ্ট সাংসদ, বিধায়ক, জেলা শাসক ও বিডিও-দের সমস্যার কথা জানিয়ে প্রতিকার দাবি করেছিল। সাড়া না পেয়ে এখন কৃষকরা পথে নেমে আন্দোলন শুরু করেছে।

সেই আন্দোলনের অংশ হয়ে এ দিন করণদিঘি ব্লক ও আশপাশের কৃষকরা বিডিও-র দফতরের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশে অংশ নেন। দলীয় নেতৃত্ব জানান, স্বরাজ ইন্ডিয়ার (Swaraj India) সর্ব-ভারতীয় সভাপতি যোগেন্দ্র যাদব (Yogendra Yadav) ও স্বরাজ ইন্ডিয়ার সর্ব-ভারতীয় সাধারণ সম্পাদক ও অখিল ভারতীয় কৃষক সংঘর্ষ সমন্বয় সমিতির আহ্বায়ক অভীক সাহা এই আন্দোলনকে সমর্থন করে কৃষকদের অভিদন্দন বার্তা পাঠিয়েছেন। সমাবেশে তা শোনানো হয়।

যোগেন্দ্র যাদব বলেন, “ভুট্টার ন্যূনতম সমর্থন মূল্য আদায়ের দাবিতে পশ্চিমবঙ্গের কৃষকেরা যে আন্দোলন করছে, আমি তাকে পূর্ণ সমর্থন জানাচ্ছি। ন্যায্য অধিকার আদায়ের এই আন্দোলনের জন্য পশ্চিমবঙ্গের কৃষকদের অভিনন্দন জানাই ও আন্দোলনের সর্বাঙ্গীণ সাফল্য কামনা করি”।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন দীনেশ সিংহ, শম্ভুলাল রায়, ইমদাদুল হক, আব্দুল হালিম, তুফান সিংহ, ফণীভূষণ সিংহ প্রমুখ স্থানীয় কৃষক নেতৃত্ব।

যে দাবিগুলো উঠে আসছে:

(১) ভুট্টা উৎপাদনকারী অঞ্চলগুলোতে সুবিধাজনক জায়গায় সরাসরি কৃষকদের থেকে ভুট্টা কেনার জন্য পর্যাপ্ত সংখ্যক রাজ্য সরকারের ক্রয় কেন্দ্র খুলতে হবে

(২) ওই ক্রয় কেন্দ্রগুলোতে পর্যাপ্ত কর্মচারী এবং অর্থের জোগান নিশ্চিত করতে হবে, যাতে বিনা বাধায় সমস্ত কৃষকরা ভুট্টা বিক্রি করতে পারেন।

(৩) কম দামে বিক্রি করে ফেলতে বাধ্য হওয়া কৃষকদের লোকসান পূরণের জন্য পঞ্চায়েতস্তরে ব্যবস্থা করতে হবে।

(৪) রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে ভুট্টার জন্য কার্যকরী মুল্য সহায়তা প্রকল্প ঘোষণা ও তার রূপায়ণ করতে হবে।

(৫) রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে ভুট্টার জন্য কার্যকরী মুল্য ঘাটতি পূরণ প্রকল্প ঘোষণা ও তার রূপায়ণ করতে হবে।

Continue Reading

উঃ দিনাজপুর

চোপড়া-কাণ্ডে মেলেনি ধর্ষণের প্রমাণ, অশান্তির ঘটনায় গ্রেফতার ১৬

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: চোপড়া-কাণ্ডে কোনো ধর্ষণের প্রমাণ পায়নি পুলিশ। ময়নাতদন্তের রিপোর্টে ওই কিশোরীর বিষক্রিয়ায় মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। তবে রবিবার দুপুরে অশান্তিতে জড়িত থাকার অভিযোগে এখনও পর্যন্ত ১৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, এক কিশোরীকে ধর্ষণ করে খুনের অভিযোগকে ঘিরে রবিবার উত্তাল হয়ে উঠেছিল উত্তর দিনাজপুরের চোপড়া। পুলিশ ও জনতার খণ্ডযুদ্ধে রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় চোপড়ার কালাগছ এলাকা।

তবে ময়নাতদন্তে বিষক্রিয়ার কথা বলা হলেও মৃত কিশোরীকে কেউ জোর করে বিষ খাইয়েছে কিনা, তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। যদিও বিজেপি এখনও সেই দাবি মানতে নারাজ। তাঁদের অভিযোগ, ঘটনার পরপরই দেহ সৎকার করে দিতে চাইছিল পুলিশ।

তবে বিজেপি বিষয়টি নিয়ে রাজনীতির সুর কমাতে নারাজ। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের কাছে চোপড়াকাণ্ড নিয়ে অভিযোগ জানাতে এ দিনই যাচ্ছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা রায়গঞ্জের সাংসদ দেবশ্রী চৌধুরী ও দার্জিলিংয়ের সাংসদ রাজু সিং বিস্ত।

রবিবার সকালে চোপড়া থানার সোনাপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের চতুরাগছে এক কিশোরীর মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে উত্তেজনা ছড়ায় গ্রামবাসীদের মধ্যে। অজ্ঞান অবস্থায় তাঁকে প্রথমে চোপড়া স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও পরে ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন। এর পর উত্তপ্ত হয়ে ওঠে চোপড়ার কালাগছ এলাকা।

ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ তুলে ধর্ষণকারী ও খুনিকে গ্রেফতারের দাবিতে ৩১ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন স্থানীয় লোকজন। হাতে লাঠিসোটা নিয়ে রাস্তায় নামেন পুরুষ ও মহিলারা। সেই বিক্ষোভে শামিল হয় বিজেপিও। ওই কিশোরী বিজেপি নেতার বোন বলেও দাবি করা হয়।

দীর্ঘক্ষণ টায়ার জ্বালিয়ে সড়ক বন্ধ রেখেই চলতে থাকে বিক্ষোভ। পুলিশ অবরোধ তুলতে গেলে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন আন্দোলনকারীরা। মুহূর্তে রণক্ষেত্র হয়ে ওঠে জাতীয় সড়ক। পোড়ানো হয় একাধিক বাস। পুলিশের গাড়িও জ্বালানো হয়।

তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্টে বিজেপির দাবি ধোপে না টিকলেও তারা যে ব্যাপারটিকে হালকা ভাবে নিচ্ছে না, সেটা বিজেপির এ দিনের পদক্ষেপ দেখেই বোঝা যাচ্ছে।

Continue Reading
Advertisement
প্রযুক্তি2 hours ago

সাবধান! এই জাতীয় অ্যাপগুলি ডাউনলোড করতে নিষেধ করছে কেন্দ্র

দেশ3 hours ago

বৃদ্ধি দৈনিক সংক্রমণে, আশা জোগাচ্ছে ১৪টি রাজ্য

দেশ3 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৮৩৩৪৭, সুস্থ ৮৯৭৪৬

রাজ্য5 hours ago

রাজ্যের ৯ জেলায় দৈনিক আক্রান্তের থেকে সুস্থ কোভিডরোগীর সংখ্যা বেশি

Narendra Modi
দেশ12 hours ago

২০১৫ থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিদেশ সফরে খরচ হয়েছে প্রায় ৫১৮ কোটি টাকা

দেশ13 hours ago

অর্থনীতিতে নতুন হাতছানি বাংলাদেশ-ভারত পণ্যবাহী রেল চলাচল

IPL rajasthan Royals
ক্রিকেট14 hours ago

রানের বন্যা শেষে চেন্নাই-জয় রাজস্থান রয়্যালসের

Sherpa Ang Rita
অ্যাডভেঞ্চার16 hours ago

অক্সিজেন সিলিন্ডার ছাড়াই ১০ বার মাউন্ট এভারেস্ট বিজয়ী আং রিটা প্রয়াত

দেশ3 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৮৩৩৪৭, সুস্থ ৮৯৭৪৬

coronavirus west bengal
দেশ1 day ago

এই প্রথম ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ কোভিডরোগীর সংখ্যা এক লক্ষ ছাড়াল

দেশ3 days ago

সোমবার থেকে স্কুল খোলা বাধ্যতামূলক নয়, দেখে নিন কোন রাজ্য কী সিদ্ধান্ত নিল

mamata banerjee
রাজ্য3 days ago

সোমবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উত্তরবঙ্গ সফর স্থগিত

বিনোদন2 days ago

অনুমতি না নিয়েই ডেটিং অ্যাপে ছবি, কলকাতা পুলিশের দ্বারস্থ নুসরত জাহান

coronavirus west bengal
রাজ্য2 days ago

রাজ্যের চার জেলার কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে বিশেষ ভাবে উদ্বিগ্ন স্বাস্থ্য দফতর

corona
দেশ3 days ago

৫টি রাজ্যেই মোট সক্রিয় কোভিডরোগীর ৬০ শতাংশ!

রাজ্য3 days ago

বঙ্গোপসাগরে তৈরি নিম্নচাপের জেরে বৃষ্টি, হলুদ সর্তকতা জারি করল আবহাওয়া দফতর

কেনাকাটা

কেনাকাটা18 hours ago

মহিলাদের পোশাকের পুজোর ১০টি কালেকশন, দাম ৮০০ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পুজো তো এসে গেল। অন্যান্য বছরের মতো না হলেও পুজো তো পুজোই। তাই কিছু হলেও তো নতুন...

কেনাকাটা4 days ago

সংসারের খুঁটিনাটি সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে এই জিনিসগুলির তুলনা নেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিজের ও ঘরের প্রয়োজনে এমন অনেক কিছুই থাকে যেগুলি না থাকলে প্রতি দিনের জীবনে বেশ কিছু সমস্যার...

কেনাকাটা7 days ago

ঘরের জায়গা বাঁচাতে চান? এই জিনিসগুলি খুবই কাজে লাগবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ঘরের মধ্যে অল্প জায়গায় সব জিনিস অগোছালো হয়ে থাকে। এই নিয়ে বারে বারেই নিজেদের মধ্যে ঝগড়া লেগে...

কেনাকাটা2 weeks ago

রান্নাঘরের জনপ্রিয় কয়েকটি জরুরি সামগ্রী, আপনার কাছেও আছে তো?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরের এমন কিছু সামগ্রী আছে যেগুলি থাকলে কাজ করাও যেমন সহজ হয়ে যায়, তেমন সময়ও অনেক কম খরচ...

কেনাকাটা2 weeks ago

ওজন কমাতে ও রোগ প্রতিরোধশক্তি বাড়াতে গ্রিন টি

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ওজন কমাতে, ত্বকের জেল্লা বাড়াতে ও করোনা আবহে যেটি সব থেকে বেশি দরকার সেই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা...

কেনাকাটা2 weeks ago

ইউটিউব চ্যানেল করবেন? এই ৮টি সামগ্রী খুবই কাজের

বহু মানুষকে স্বাবলম্বী করতে ইউটিউব খুব বড়ো একটি প্ল্যাটফর্ম।

কেনাকাটা4 weeks ago

ঘর সাজানোর ও ব্যবহারের জন্য সেরামিকের ১৯টি দারুণ আইটেম, দাম সাধ্যের মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘর সাজাতে কার না ভালো লাগে। কিন্তু তার জন্য বাড়ির বাইরে বেরিয়ে এ দোকান সে দোকান ঘুরে উপযুক্ত...

কেনাকাটা1 month ago

শোওয়ার ঘরকে আরও আরামদায়ক করবে এই ৮টি সামগ্রী

খবর অনলাইন ডেস্ক : সারা দিনের কাজের পরে ঘুমের জায়গাটা পরিপাটি হলে সকল ক্লান্তি দূর হয়ে যায়। সুন্দর মনোরম পরিবেশে...

kitchen kitchen
কেনাকাটা1 month ago

রান্নাঘরের এই ৮টি জিনিস কাজ অনেক সহজ করে দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজকাল রান্নাঘরের প্রত্যেকটি কাজ সহজ করার জন্য অনেক উন্নত ব্যবস্থা এসে গিয়েছে। তা হলে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কষ্ট...

care care
কেনাকাটা1 month ago

চুল ও ত্বকের বিশেষ যত্নের জন্য ১০০০ টাকার মধ্যে এই জিনিসগুলি ঘরে রাখা খুবই ভালো

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পার্লার গিয়ে ত্বকের যত্ন নেওয়ার সময় অনেকেরই নেই। সেই ক্ষেত্রে বাড়িতে ঘরোয়া পদ্ধতি অনেকেই অবলম্বন করেন। বাড়িতে...

নজরে