কলকাতা: করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় নিত্যনতুন রেকর্ড দেখে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যে দিন বলছেন, “করোনাকে হালকা ভাবে নেওয়া উচিত নয়”, সে দিনই তাঁর দলের এক উচ্চপর্যায়ের নেতা বলছেন, “করোনা চলে গিয়েছে”! আসলে কে সঠিক বলছেন?

বিজেপি রাজ্য সভাপতি এবং দলের সাংসদ দিলীপ ঘোষ বৃহস্পতিবার দাবি করেছিলেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শুধুমাত্র আগামী বছর নির্বাচনের আগে বিজেপির সমাবেশকে বাধা দিয়েছেন উদ্দেশ্যে লকডাউন চাপিয়ে দিয়েছেন”। একই সঙ্গে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে ফের বেঁফাস মন্তব্য করে আবার এক বার বিতর্কে জড়ালেন দিলীপ।

রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন আর মাত্র কয়েক মাস বাকি। পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচনে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় করোনাভাইরাসকে প্রচারের কাজে ব্যবহার করছেন বলে দাবি করেছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি।

বৃহস্পতিবার হুগলির ধনেখালির একটি ভরা জনসভায় তিনি ঘোষণা করেন, করোনা তো চলে গিয়েছে। দিদিমণি লকডাউন করছেন যাতে আমরা কোনও মিটিং, মিছিল না করতে পারি। কিন্তু জেনে রাখুন, এ ভাবে আমাদের আটকানো যাবে না”।

দেশে নিত্য দিন যখন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা নতুন নতুন রেকর্ড গড়ছে, তখন বিজেপি নেতার এই মন্তব্য নিয়েই বিতর্ক তৈরি হয়েছে।

উল্লেখ্য, এ দিন দৈনিক রেকর্ড গড়ে ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৯৬ হাজার ৫৫১ জন। মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ২০৯ জনের। অন্য দিকে পশ্চিমবঙ্গে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৩ হাজার ৭০০।

এই পরিস্থিতিতে বৃহস্পতিবারই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দেশবাসীর উদ্দেশে আবেদন জানান, করোনাভাইরাসকে হালকা ভাবে নেবেন না। মুখে মাস্ক পরা এবং শারীরিক দূরত্ব প্রত্যেককে মেনে চলতে হবে।

কিন্তু তাঁরই দলের এক উচ্চপর্যায়ের নেতার মুখে ‘করোনা চলে গিয়েছে‘ গোছের মন্তব্য নতুন করে সমালোচনার সৃষ্টি করেছে।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন