Connect with us

রাজ্য

‘দিদিকে বলো’র পাল্টা সিপিএমের ‘দিদিকেই বলছি’

Published

on

TMC And CPIM

ওয়েবডেস্ক: গত সোমবারই নজরুল মঞ্চে তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চালু করেছেন ‘দিদিকে বলো’ প্রচারাভিযান। টোল ফ্রি নম্বর অথবা ওয়েবসাইটের মাধ্যমে নিজের প্রশ্ন মমতার উদ্দেশে তুলে ধরতে পারবেন ভোটাররা। ২৪ ঘণ্টা পার না-হতেই সিপিএমের নেটিজেনরা তৈরি করে ফেললেন নতুন ক্যাম্পেন-‘দিদিকেই বলছি’।

সিপিএম সমর্থকরা ‘দিদিকেই বলছি’ ক্যাম্পেনে তুলে ধরছেন প্রশ্ন। সঙ্গে উঠে আসছে অতীতের ঘটনাবহুল বেশ কিছু মিম-ও। এক নজরে দেখে নেওয়া যাক, তেমনই কিছু প্রশ্ন-

প্রশ্ন ১: ২০১১-এ সরকারে আসার প্রথম ২০০ দিনের মধ্যে কী কী করা হবে তার ভিশন ডকুমেন্ট তৈরি হয়। সেখানে বলা হয়, রাজ্যজুড়ে ‘শিল্পনগরী শৃঙ্খল’ গড়ে তোলা হবে, বন্ধ রাষ্ট্রায়ত্ত কারখানা পুনরায় চালু হবে। ৮ বছরে ফল উল্টো। ৪৬টি রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা বন্ধ। কেন?

প্রশ্ন ২: ২০১১সালে সরকারের ঋণভারের পরিমান ছিল ১ লক্ষ ৯২ হাজার টাকা কোটি টাকা। ২০১৯-২০-র মাঝামাঝিতে তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩ লক্ষ ৯৫ হাজার কোটি টাকা। কী ভাবে? কেন?

প্রশ্ন ৩: বছরে ২ লক্ষ কর্মসংস্থানের কী হল ? এএসসি থেকে টেট লিস্টে নাম উঠছে মন্ত্রী কন্যা থেকে নেতার আত্মীয়দের। কাজ চাই, কাজ কোথায় বলুন?

প্রশ্ন ৪: আদালত থেকে রাজ্যপাল, সবার গলাতেই আইনশৃঙ্খলা নিয়ে এমন উদ্বেগ কেন? কেন পুলিসকে টেবিলের তলায় লুকোতে হয়? কেন এ রাজ্যে নির্বাচন ও নির্বাচন পরবর্তী সংঘর্ষ সবচেয়ে বেশি? কেন ৮বছরে ২১৮জন বাম কর্মীকে খুন হতে হয়?

প্রশ্ন ৫: ২১ জুলাই আপনি গণতন্ত্র ফেরানোর ডাক দিয়েছেন, পশ্চিমবঙ্গে গণতন্ত্র ফেরানো দায়িত্ব কার? ২০১৮ সালের পঞ্চায়েত ভোটে এত হিংসা হল কেন?কেন বামেদের মনোনয়ন জমা দিতে বাধা?

৬. দিদি, আপনি কি সত্যিই ২০১৩-র পয়লা বৈশাখের আগে সারদার কথা জানতেন না? ২০১২ সালে কালিম্পঙের ডেলোতে সারদা কর্তা সুদীপ্ত সেন আর রোজভ্যালি কর্তা গৌতম কুণ্ডুর সঙ্গে বৈঠক করেননি?

প্রশ্ন ৭: মানুষের টাকা লুঠে নেওয়া চিটফান্ডের কর্তারা ছাড়া আপনার আঁকা ছবি আর কেউ কেনেননি কেন দিদি?

প্রশ্ন ৮: ২০১৬-তে নারদা ফুটেজ প্রকাশের পর দিদি আপনি বলেছিলেন, ‘আগে জানলে প্রার্থী করতাম না।’ উনিশের ভোটে তাঁদেরই ( সৌগত রায়, কাকলি ঘোষ দস্তিদার, অপরূপা পোদ্দার সহ অন্যান্য ) প্রার্থী করলেন কেন?

প্রশ্ন ৯: আপনি বলছেন সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে? কী করে আপনার জমানাতেই বাংলায় আরএসএস-এর এত শাখা বাড়ল?

প্রশ্ন ১০: গত আট বছরে এরাজ্যে ধুলাগড় থেকে কাঁকিনাড়া, আসানসোল থেকে বসিরহাট-সর্বত্র সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষে কেন বিজেপি’র পাশাপাশি আপনাদের দলের বাহিনীর বিরুদ্ধে হানাহানিতে যুক্ত থাকার অভিযোগ?

*প্রশ্নগুলি সংগৃহীত

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

রাজ্য

কলকাতা ও পড়শি জেলায় কোভিড পরিস্থিতি স্থিতিশীল, বেশি উদ্বেগ এখন পশ্চিম মেদিনীপুরকে ঘিরে

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ৪৫,২২৯টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। রাজ্যে মোট ২৬ লক্ষ ৯৯ হাজার ২৯৯টি নমুনা পরীক্ষা হল। রাজ্যে বর্তমানে প্রতি দশ লক্ষ মানুষে ২৯,৯৯২ জনের করোনা পরীক্ষা হচ্ছে।

Published

on

coronavirus
রাজ্যে সুস্থতার হার বর্তমানে ৮৬.৮৬ শতাংশ।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রাজ্যের কোভিড (Covid 19) পরিস্থিতির বিশেষ কোনো বদল নেই শুক্রবার। আক্রান্তের সংখ্যা অল্প একটু কমেছে। তবে টেস্টের সংখ্যাও অল্প কমেছে। তাই সংক্রমণের হার মোটের ওপরে স্থিতিশীল রয়েছে। তবে এ দিনও তিন হাজারের কাছাকাছি মানুষ করোনামুক্ত হয়েছেন, যার ফলে সুস্থতার হার অল্প একটু বেড়েছে।

রাজ্যের কোভিড-তথ্য

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে কোভিডে (Covid 19) আক্রান্ত হয়েছেন ৩,১৯২ জন। এর ফলে রাজ্যে এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২ লক্ষ ১৮ হাজার ৭৭২। গত ২৪ ঘণ্টায় ৫৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর ফলে রাজ্যে এখন মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪,২৪২। রাজ্যে মৃত্যুহার বর্তমানে রয়েছে ১.৯৩ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে সুস্থ হয়েছেন ২,৯৬০ জন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১ লক্ষ ৯০ হাজার ২১ জন। রাজ্যে বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ২৪,৫০৯। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে সক্রিয় রোগী বেড়েছে ১৭৩ জন। রাজ্যে সুস্থতার হার আরও কিছুটা বেড়ে ৮৬.৮৬ শতাংশ হয়েছে।

সংক্রমণের হারে বিদেশ বদল নেই

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ৪৫,২২৯টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। রাজ্যে মোট ২৬ লক্ষ ৯৯ হাজার ২৯৯টি নমুনা পরীক্ষা হল। রাজ্যে বর্তমানে প্রতি দশ লক্ষ মানুষে ২৯,৯৯২ জনের করোনা পরীক্ষা হচ্ছে।

প্রতি দিন যে সংখ্যক মানুষের পরীক্ষা হচ্ছে, তার মধ্যে যত শতাংশের কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ আসছে, সেটাকে বলা হচ্ছে ‘পজিটিভিটি রেট’ বা সংক্রমণের হার। শুক্রবার রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণের হার ছিল ৭.০৫ শতাংশ। অন্যদিকে রাজ্যে সামগ্রিক সংক্রমণের হারটি এ দিন ৮.১০ শতাংশ হয়েছে। এই সংক্রমণের হার জাতীয় গড়ের থেকে বেশ কিছুটা কম রয়েছে।

কলকাতায় নতুন আক্রান্ত পাঁচশোর কম

দু’ দিন পর কলকাতায় সক্রিয় কোভিডরোগীর সংখ্যা বাড়লেও নতুন আক্রান্তের সংখ্যাটি পাঁচশোর নীচেই রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় কলকাতায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪৯৩ জন। অন্য দিকে সুস্থ হয়েছেন ৪৬৩ জন। মৃত্যু হয়েছে ১৪ জনের।

শহরে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪৯,০৭০। সুস্থ হয়ে গিয়েছেন ৪৩,২৬৫ জন। শহরে মোট মৃতের সংখ্যা ১,৫৫১। বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৪,২৫৪।

পড়শি চার জেলার পরিস্থিত অপরিবর্তিত

কলকাতার পড়শি চারটি জেলায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যায় বিশেষ পরিবর্তন হয়নি। মোটের ওপরে পরিস্থিতি স্থিতিশীলই রয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় উত্তর ২৪ পরগণায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫০২ জন। সুস্থ হয়ে ছাড়া পেয়েছেন ৫২৯ জন। অন্য দিকে দক্ষিণ ২৪ পরগণায় আক্রান্ত হয়েছেন ২২২ জন, ছাড়া পেয়েছেন ২৪৬ জন। হাওড়ায় ১৭১ জন নতুন করে কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন আর সুস্থ হয়েছেন ১৪৭ জন। অন্য দিকে হুগলিতে ১৪২ জন আক্রান্ত হয়েছেন আর ছাড়া পেয়েছেন ১১৬ জন।

পশ্চিম মেদিনীপুর-সহ কয়েকটি জেলা উদ্বেগের কারণ

পশ্চিম মেদিনীপুরে কোভিড-আক্রান্তের সংখ্যার ঊর্ধ্বগামী যাত্রা বহাল থাকল শুক্রবারও। নতুন করে এ দিন ২৩০ জন কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন এই জেলায়। এর ফলে এই জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা ৮০০০-এর গণ্ডি ছাড়িয়েছে।

এই জেলাটি ছাড়াও নতুন আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে আরও কয়েকটি জেলা শুক্রবার উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়াল। সে গুলি হল পশ্চিম বর্ধমান (১৩১), নদিয়া (১১৯), দার্জিলিং (১১৮), বাঁকুড়া (১০৯) আলিপুরদুয়ার (১০২), পুরুলিয়া (৯৪), জলপাইগুড়ি (৯৪)। ঝাড়গ্রামে নতুন আক্রান্তের সংখ্যাটি (২৫) বাকি সব জেলার থেকে কম হলেও গত কয়েকদিন ধরে এই বৃদ্ধিটা এই জেলার ক্ষেত্রে খুব চমকপ্রদ।

স্বস্তির বার্তা দিচ্ছে যে যে জেলা

পূর্ব মেদিনীপুরে (১৪৫) নতুন আক্রান্তের সংখ্যা অনেকটা বেশি হলেও এই জেলা স্বস্তি দিচ্ছে। এর কারণ, কয়েক সপ্তাহ আগে টানা দ্বিশতাধিক আক্রান্তের খোঁজ মিলছিল এই জেলায়, সেটা এখন অনেকটাই কমেছে। একই সঙ্গে, নতুন আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে এ দিন আরও কয়েকটি জেলায় স্বস্তির কারণ হয়েছে।

সেই জেলাগুলি হল, পূর্ব বর্ধমান, বীরভূম, মুর্শিদাবাদ, কালিম্পং, মালদা, উত্তর দিনাজপুর, দক্ষিণ দিনাজপুর আর কোচবিহার।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

রেকর্ড বর্ষণে বিপর্যস্ত পশ্চিমাঞ্চলের তিন জেলা, জমা জলে নাজেহাল দুর্গাপুর

Continue Reading

পশ্চিম বর্ধমান

রেকর্ড বর্ষণে বিপর্যস্ত পশ্চিমাঞ্চলের তিন জেলা, জমা জলে নাজেহাল দুর্গাপুর

পুরুলিয়া, পশ্চিম বর্ধমান আর বীরভূমে রেকর্ড বৃষ্টি হয়েছে।

Published

on

Durgapur Rain
দুর্গাপুরে ১০০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রেকর্ড ভাঙা বর্ষণে বিপর্যস্ত রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চলের তিন জেলা। অবিরাম বর্ষণে জলমগ্ন হয়ে পড়েছে পশ্চিম বর্ধমান, বীরভূম আর পুরুলিয়ার একাধিক জায়গা। সব থেকে বেশি নাজেহাল অবস্থা হয়েছে দুর্গাপুরের (Durgapur)।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে আবহাওয়া ভালোই ছিল। দুপুরের পর থেকে আচমকা পরিস্থিতি বদলে যায়। তৈরি হয় একের পর এক বজ্রগর্ভ মেঘ। সেই থেকেই নামে প্রবল বৃষ্টি। বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত বৃষ্টি চলতে থাকে।

জানা গিয়েছে, আট ঘণ্টার মধ্যে একশো মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে দুর্গাপুরে। এর জেরে শহরের সমস্ত নিকাশিনালা কানায় কানায় ভরতি হয়ে যায়। শহরের একাধিক নিচু জায়গা জলমগ্ন।

দুর্গাপুর শিল্পাঞ্চলের মেন গেট সংলগ্ন এলাকাটি সব থেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানা যায়। মেনগেট বস্তির পাশ দিয়ে বয়ে চলা তামলা নালার জল উপচে গিয়ে আশেপাশের অঞ্চল ভাসিয়ে দেয়। এর ফলে বহু মানুষকে উঁচু জায়গায় আশ্রয় নিয়েছেন।

Condition of Durgapur after Rain on Mahalaya. Images from Different parts of #Durgapur city like Amarabati, Benachity, 54 Foot etc

Posted by DurgapurInfo on Friday, September 18, 2020

বৃহস্পতিবার বিশ্বকর্মা পুজোয় মেতে থাকার কথা ছিল শিল্পাঞ্চলের। কিন্তু দুপুর পর থেকে সেটা আর সম্ভব হয়নি।

তবে গত ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণবঙ্গে সব থেকে বেশি বৃষ্টি হয়েছে পশ্চিম বর্ধমানের মাইথনে। সেখানে দেড়শো মিলিমিটার বৃষ্টি রেকর্ড করা হয়। এর পর রয়েছে পুরুলিয়া। সেখানে ১৪০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। বীরভূমের রামপুরহাটে ১২০ আর হেতমপুরে ১১০ মিলিমিটার বৃষ্টি রেকর্ড করা হয়েছে।

একশো মিলিমিটারের কম হলেও গত ২৪ ঘণ্টায় জোর বৃষ্টি হয়েছে বাঁকুড়া, পশ্চিম মেদিনীপুরেও। এই প্রবল বর্ষণের ফলে দক্ষিণবঙ্গে কত কয়েক দিন ধরে বৃষ্টির যে ঘাটতি চলছিল, তা অনেকটাই কমেছে।

এ দিকে বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়ার নিম্নচাপের ফলে রবিবার সন্ধ্যা থেকে মঙ্গলবার পর্যন্ত দক্ষিণবঙ্গের ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

৬ মাস বন্ধ থাকার পর খুলছে পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত চিড়িয়াখানা ও জঙ্গল পর্যটন

Continue Reading

ভ্রমণ

৬ মাস বন্ধ থাকার পর খুলছে পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত চিড়িয়াখানা ও জঙ্গল পর্যটন

Published

on

চিড়িয়াখানা। প্রতিনিধিত্বমূলক ছবি

কলকাতা: প্রায় ছ’মাস বন্ধ থাকার পর ফের খুলছে রাজ্যের সমস্ত চিড়িয়াখানা এবং অভয়ারণ্য। শুক্রবার নবান্নের তরফে এই ঘোষণা করেন বনমন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।

মন্ত্রী বলেন, আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর থেকে খুলে যাচ্ছে রাজ্যের সমস্ত অভয়ারণ্য। অন্য দিকে অক্টোবর মাসের ২ তারিখ থেকে খুলে যাচ্ছে রাজ্যের সমস্ত চিড়িয়াখানা। সমস্ত বুকিং হবে অনলাইনে। সমস্ত ক্ষেত্রেই অবশ্যই কোভিডবিধি মানতে হবে পর্যটকদের। 

চতুর্থ পর্যায়ের আনলক-এ ধীরে ধীরে পর্যটন শিল্পকে স্বাভাবিকত্বে ফেরানোর উদ্যোগ নিচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। সম্প্রতি রাজ্যের হোটেল এবং লজগুলি খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য। ইতিমধ্যেই দিঘা এবং শান্তিনিকেতনের মতো পর্যটনকেন্দ্রগুলিতে হোটেল খুলে গিয়েছে। একই ভাবে উত্তরবঙ্গেও পর্যটন শিল্পের পথচলা ফের শুরু হতে চলেছে রাজ্যের সাম্প্রতিক সিদ্ধান্তে।

এমনিতে বর্ষা শেষ হলেই উত্তরবঙ্গের জঙ্গলগুলিতে সাফারি শুরু হয়ে যায়। তার পরেই থাকে দুর্গাপুজোর ছুটিতে জঙ্গলভ্রমণের পালা। এ বার করোনাভাইরাস সংক্রমণের জেরে স্থিমিত হয়েছে আয়োজন। তবে পুজোর মুখে পর্যটনে নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ায় খুশি স্থানীয় ব্যবসায়ীরা। এই সময় জঙ্গল খুলে গেলে মার খাওয়া ব্যবসা কিছুটা ঘুরে দাঁড়াতে পারে বলে মনে করছেন তাঁরা।

চিড়িয়াখানা অথব্য পার্কগুলিতে প্রবেশের সময় বেশ কিছু বিধিনিষেধ জারি করেছে রাজ্য। ঢোকার সময় প্রত্যেকের থার্মাল স্ক্রিনিং, স্যানিটাইজার ব্যবহার নিশ্চিত করার কথা বলা হয়েছে।

আরও পড়তে পারেন: কোভিড-১৯: স্কুল খোলার আগে নিজের সন্তানকে এই ৫টি তথ্য অবশ্যই জানাবেন

এ ছাড়া চিড়িয়াখানায় যেমন প্রতিদিন সর্বোচ্চ দর্শক সংখ্যা বেঁধে দেওয়া হবে, তেমনই জঙ্গলে সাফারির ক্ষেত্রেও শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পর্যটকদের অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। চিড়িয়াখানা খোলার আগে জীবাণুমুক্ত করতে হবে। একই সঙ্গে স্বাস্থ্যসুরক্ষা বিধি মেনে, বোটিং কিংবা পার্কে কোনো প্রমোদমূলক সামগ্রী ব্যবহারের ক্ষেত্রে স্যানিটাইজার সবসময় ব্যবহার করতে হবে। করোনা আবহে স্বাস্থ্যসুরক্ষা বিধি সঠিক ভাবে মেনে চলা হচ্ছে কি না, তা উপর নজরদারি চালাতে হবে কর্তৃপক্ষকে।

Continue Reading
Advertisement
press conference by hindu mahajot
দুর্গা পার্বণ2 hours ago

দুর্গোৎসব বাংলাদেশে: সাংবাদিক বৈঠক ও মানববন্ধন করে ৩ দিন ছুটির দাবি

বিদেশ3 hours ago

টিকটক, উইচ্যাট নিয়ে কঠোর সিদ্ধান্ত আমেরিকার

coronavirus
রাজ্য3 hours ago

কলকাতা ও পড়শি জেলায় কোভিড পরিস্থিতি স্থিতিশীল, বেশি উদ্বেগ এখন পশ্চিম মেদিনীপুরকে ঘিরে

দেশ5 hours ago

সোমবার থেকে স্কুল খোলা বাধ্যতামূলক নয়, দেখে নিন কোন রাজ্য কী সিদ্ধান্ত নিল?

দেশ5 hours ago

ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দির পরিদর্শনে বিএসএফ-এর ডিজি রাকেশ আস্থানা

Durgapur Rain
পশ্চিম বর্ধমান5 hours ago

রেকর্ড বর্ষণে বিপর্যস্ত পশ্চিমাঞ্চলের তিন জেলা, জমা জলে নাজেহাল দুর্গাপুর

ভ্রমণ6 hours ago

৬ মাস বন্ধ থাকার পর খুলছে পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত চিড়িয়াখানা ও জঙ্গল পর্যটন

Shreyas Iyer
ক্রিকেট6 hours ago

আইপিএলের অন্যতম সেরা বোলিং লাইনআপ কি দিল্লি ক্যাপিটাল্‌সের?

দেশ14 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৯৬৪২৪, সুস্থ ৮৭৮৭২

অরন্ধন
ব্র্ত-উৎসব2 days ago

অরন্ধনে নানা বিধ পদ রান্না করে নিবেদন করা হয় মা মনসাকে

covid in kolkata
কলকাতা2 days ago

আগস্টের তুলনায় সেপ্টেম্বরের প্রথম ১৫ দিনে কলকাতায় কমেছে নতুন কোভিডরোগীর সংখ্যা

শিল্প-বাণিজ্য10 hours ago

এসবিআই এটিএমে টাকা তোলার নিয়ম বদলে গেল! দেখে নিন ওটিপি-ভিত্তিক পদ্ধতির খুঁটিনাটি বিষয়

Covid situation kolkata
দেশ3 days ago

সক্রিয় কোভিডরোগীর নিরিখে পশ্চিমবঙ্গের অবস্থান কেরল, ওড়িশা, অসমেরও নীচে

Muthaiah Muralidaran
ক্রিকেট2 days ago

মাঁকড়ীয় আউটের বিকল্প বাতলে দিলেন মুতাইয়া মুরলীধরন

Parliament
দেশ2 days ago

নতুন সংসদ ভবন নির্মাণের বরাত পেল টাটা

কলকাতা1 day ago

কোভিড রুখতে অনলাইন মাধ্যমকে হাতিয়ার করছে কলকাতার একাধিক পুজো

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 days ago

ঘরের জায়গা বাঁচাতে চান? এই জিনিসগুলি খুবই কাজে লাগবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ঘরের মধ্যে অল্প জায়গায় সব জিনিস অগোছালো হয়ে থাকে। এই নিয়ে বারে বারেই নিজেদের মধ্যে ঝগড়া লেগে...

কেনাকাটা1 week ago

রান্নাঘরের জনপ্রিয় কয়েকটি জরুরি সামগ্রী, আপনার কাছেও আছে তো?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরের এমন কিছু সামগ্রী আছে যেগুলি থাকলে কাজ করাও যেমন সহজ হয়ে যায়, তেমন সময়ও অনেক কম খরচ...

কেনাকাটা1 week ago

ওজন কমাতে ও রোগ প্রতিরোধশক্তি বাড়াতে গ্রিন টি

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ওজন কমাতে, ত্বকের জেল্লা বাড়াতে ও করোনা আবহে যেটি সব থেকে বেশি দরকার সেই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা...

কেনাকাটা2 weeks ago

ইউটিউব চ্যানেল করবেন? এই ৮টি সামগ্রী খুবই কাজের

বহু মানুষকে স্বাবলম্বী করতে ইউটিউব খুব বড়ো একটি প্ল্যাটফর্ম।

কেনাকাটা3 weeks ago

ঘর সাজানোর ও ব্যবহারের জন্য সেরামিকের ১৯টি দারুণ আইটেম, দাম সাধ্যের মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘর সাজাতে কার না ভালো লাগে। কিন্তু তার জন্য বাড়ির বাইরে বেরিয়ে এ দোকান সে দোকান ঘুরে উপযুক্ত...

কেনাকাটা4 weeks ago

শোওয়ার ঘরকে আরও আরামদায়ক করবে এই ৮টি সামগ্রী

খবর অনলাইন ডেস্ক : সারা দিনের কাজের পরে ঘুমের জায়গাটা পরিপাটি হলে সকল ক্লান্তি দূর হয়ে যায়। সুন্দর মনোরম পরিবেশে...

kitchen kitchen
কেনাকাটা4 weeks ago

রান্নাঘরের এই ৮টি জিনিস কাজ অনেক সহজ করে দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজকাল রান্নাঘরের প্রত্যেকটি কাজ সহজ করার জন্য অনেক উন্নত ব্যবস্থা এসে গিয়েছে। তা হলে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কষ্ট...

care care
কেনাকাটা1 month ago

চুল ও ত্বকের বিশেষ যত্নের জন্য ১০০০ টাকার মধ্যে এই জিনিসগুলি ঘরে রাখা খুবই ভালো

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পার্লার গিয়ে ত্বকের যত্ন নেওয়ার সময় অনেকেরই নেই। সেই ক্ষেত্রে বাড়িতে ঘরোয়া পদ্ধতি অনেকেই অবলম্বন করেন। বাড়িতে...

কেনাকাটা1 month ago

ঘর ও রান্নাঘরের সরঞ্জাম কিনতে চান? অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ৫০% পর্যন্ত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্ক : অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ঘর আর রান্না ঘরের একাধিক সামগ্রিতে প্রচুর ছাড়। এই সেলে পাওয়া যাচ্ছে ওয়াটার...

কেনাকাটা1 month ago

এই ১০টির মধ্যে আপনার প্রয়োজনীয় প্রোডাক্টটি প্রাইম ডে সেলে কিনতে পারেন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : চলছে অ্যামাজনের প্রাইমডে সেল। প্রচুর সামগ্রীর ওপর রয়েছে অনেক ছাড়। ৬ ও ৭  তারিখ চলবে এই সেল।...

নজরে