সমীর মাহাত, ঝাড়গ্রাম: তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ব্রিগেড সভাকে “উদ্ধত্যের”, “খরচের “,”বাহানা”র সভা বলে কটাক্ষ করলেন সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী। রবিবার, সিপিএমের ঝাড়গ্রাম জেলা কমিটির আয়োজনে বলাকা মঞ্চে “প্রথম সুকুমার সেনগুপ্ত স্মারক বক্তৃতা ” অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এসে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে, এমনই মন্তব্য তিনি করেন।

উল্লেখ্য, ঝাড়গ্রামের বিভিন্ন সভায় এসে শাসক দলের শীর্ষ নেতৃত্বে অনেকেই দাবি করেন যে, সিপিএমের লোকজন এখন বিজেপির হয়ে রং বদলেেছে। তার উত্তরে সুজনবাবু এ দিন বলেন, “সিপিএমের লোক বিজেপিতে মিশছে, এই ঘটনা সত্য নয়। তৃণমূলের যে সমস্ত লোক তৃণমূলের উপর বিরক্ত, তাঁরা খড়কুটোর মতো অবলম্বন খুঁজছে। মানুষের জন্য বামপন্থীরাই একমাত্র মূল শক্তি। ”

Loading videos...

[ আরও পড়ুন: সামাজিক বনসৃজন প্রকল্পের গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য কুলতলিতে ]

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, ঝাড়গ্রাম জেলা তথা জঙ্গল মহলে বামের অস্তিত্ব ধরে রাখতে পারেনি। গত পঞ্চায়েত নির্বাচনের প্রতিপক্ষ হিসেবে বিজেপির বাড়বাড়ন্ত সামনে আসে। বিক্ষিপ্ত ভাবে বিজেপির দলীয় সভা ছাড়া অন্যান্য দলের সভা সে ভাবে ঝাড়গ্রাম জেলাতে হয়নি।

তবুও সুজনবাবু ঝাড়গ্রামে এসে আশার আলো দেখতে পেয়েছেন। তিনি এ দিন এও বলেন, ” এর পর মোদী ফোন করে মুখ্যমন্ত্রীকে বলবেন, আপনি ঠিকই করেছেন’। কালকে যা শো করেছেন, আপনি খরচা করেছেন, লোক জোগাড় করতে পারেননি। আমাদের ৩ তারিখ সভা হবে, সাধারণ মানুষের সভা। ঝাড়গ্রাম থেকে প্রচুর লোক মানুষ যাবেন। ”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.