purulia-2

শুভদীপ চৌধুরী, আদ্রা:  ১৭ মে পঞ্চায়েত ভোটের ফলাফল নিয়ে টানটান উত্তেজনা ছিল সবার মধ্যে। পুরুলিয়া জেলার বিভিন্ন ভোটগণনা কেন্দ্রগুলিতে রয়েছে কড়া নিরাপত্তা। প্রশাসন ব্লকওয়াড়ি ফলাফল প্রকাশ করলে দেখা যায় জেলার ২০টি ব্লকের মধ্যে আটটির দখল নিয়েছে বিজেপি। তিন-চারটি দখলে যেতে পারে বাম-কংগ্রেসের হাতে। এমনকী তৃণমূলের জমানায় পরিষেবায় দৃষ্টান্ত গড়েও কাশীপুর ব্লকের বেকো গ্রাম পঞ্চায়েত হাতছাড়া হতে চলেছে সিপিএমের।

বিজেপির দাবি, গত ১৪ মে ভোটের দিন ছাপ্পা ভোট, ব্যালট বাক্স লুঠের পর অনেকেই আশা করছিলেন তৃণমূল গ্রাম পঞ্চায়েতে ভালো ফল করবে । কিন্তু ফলাফল ঘোষণার দিন তৃণমূলকে সমানে টক্কর দিয়ে অসংখ্য আসনে জয়লাভের পথে বিজেপি এগিয়ে গিয়েছে।

আরও পড়ুন: পরিষেবার বহরেই তৃণমূলকে ‘আশাহত’ করেছে পুরুলিয়ার বেকো গ্রাম পঞ্চায়েত!

অন্যদিকে কাশীপুর ব্লকের বেকো গ্রাম পঞ্চায়েতের সিপিআই(এম) প্রার্থী কাজল ভট্টাচার্য জানান, তিনি আশা করেন এ বছরও তিনি জয়ী হবেন। যদিও এ দিন বিকেল পর্যন্ত ভোটের ফলাফল: তৃণমূল- ৪, বিজেপি-২, সিপিএম- ২। কাজলবাবু আরও জানান, এ দিন ভোটগণনা কেন্দ্রে যাওয়ার সময় তাঁদের উপর শাসক দলের পক্ষ থেকে আক্রমণ চালায়। সিপিএমের দু’জন এজেন্টের খবর তখনও পাওয়া যায়নি, এ ছাড়াও কাশীপুরের সিপিএমের ব্লক অফিস শাসক দলের পক্ষ থেকে জ্বালিয়ে দেওয়া হয় ও আহত হন বিজেপি ও কংগ্রেসের জেলা সভাপতি।

জানা যায়, এ দিন কাশীপুরে গণনা কেন্দ্রের ১০০ মিটারের মধ্যেই সকল বিরোধী প্রার্থীদের উপর জোরদারভাবে চড়াও হয় শাসক দল।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন