Mamata Banerjee and surya kanta mishra

কলকাতা:  আগামী ডিসেম্বরে রাজ্যে ৩টি রথযাত্রা করতে চলেছে বিজেপি। ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে দলীয় প্রচারের উদ্দেশে সংগঠনকে মজবুত করতে এই কর্মসূচি বলে জানিয়েছে রাজ্য বিজেপি। কিন্তু ধর্মনিরপেক্ষ দলগুলির দাবি, রামমন্দির নির্মাণের স্লোগানকে শক্ত করতেই ওই রথযাত্রার আয়োজন। যার নজির অতীতেও রয়েছে। তবে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস নির্বাচনীযুদ্ধে ঘোর বিজেপি-বিরোধিতা করলেও রথযাত্রা নিয়ে দলীয় ভাবে এখনও পর্যন্ত কোনো কড়া প্রতিক্রিয়া জানায়নি। হয়তো বা সেই নীরবতাকে লক্ষ্য করেই সিপিএম সাধারণ সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র রথ-রুখতে তৃণমূলের উদ্দেশে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন।

“বিজেপির রথের চাকায় রক্তের দাগ। তাই এ রাজ্যের মেহনতী মানুষকে বিজেপির রথের সামনে পাঁচিল গড়ে তুলতে হবে, যাতে সেই রথ ভ্রাতৃঘাতী দাঙ্গা না বাঁধাতে পারে”। গত সোমবার সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সে সিবিআই দফতরের সামনে সভা থেকে এমন ভাষাতেই বিজেপির রথযাত্রা কর্মসূচিকে বিঁধে ছিলেন সূর্যকান্ত মিশ্র। মঙ্গলবার ফের একই ইস্যুতে সরব হয়ে তিনি এ বার চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন তৃণমূলনেত্রী তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

পেট্রোল-ডিজেলের লাগাতার মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে রাজ্যের বিভিন্ন পেট্রোল পাম্পের সামনে মঙ্গলবার বিকেলে বিক্ষোভ সভা করে সিপিএম। গড়িয়াহাটের এমনই একটি সভায় যান সূর্যবাবু। সেখানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশে রীতিমতো চ্যালেঞ্জ জানান।

রামমন্দির নির্মাণে এ বার তৃণমূলের দ্বারস্থ গেরুয়া শিবির!

এ দিন সূর্যবাবু বলেন, “পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির রথযাত্রাকে শান্তিশৃঙ্খলার স্বার্থে রুখে দেওয়ার হিম্মত দেখান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রামমন্দির নির্মাণের নামে লালকৃষ্ণ আদবানির এমন ধরনের রথকে বিহারে আটকে দিয়ে বিজেপি’র ওই ডাকসাইটে নেতাকে গ্রেফতার করার হিম্মত দেখিয়েছিলেন সে রাজ্যের তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী লালুপ্রসাদ যাদব। সৎ সাহস থাকলে আমাদের মুখ্যমন্ত্রী সেই হিম্মত দেখান”।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here