যাদবপুরে সিপিএম প্রার্থী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্যকে সমর্থন ভাঙড়ের জমি কমিটি ও সিপিআই (এম-এল) রেডস্টারের

0
CPIML redstar
প্রেস ক্লাবের বৈঠকে সিপিআই (এম-এল) রেডস্টার নেতৃত্ব

ওয়েবডেস্ক: এ বারের লোকসভা নির্বাচনে কেন্দ্রের বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ সরকারকে উৎখাতের ডাক দিয়ে ভাঙড়ের জমি জীবিকা বাস্তুতন্ত্র ও পরিবেশ রক্ষা কমিটি রাজ্যের ছ’টি আসনে প্রার্থী দিচ্ছে এবং সিপিআই (এম-এল) রেডস্টার তাদের সর্বতো ভাবে সহযোগিতা করছে। বুধবার কলকাতা প্রেস ক্লাবে সাংবাদিক বৈঠকে ওই ছয় কেন্দ্রে প্রার্থী ঘোষণার পাশাপাশি যাদবপুর কেন্দ্রে বামফ্রন্ট মনোনীত সিপিএম প্রার্থী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্যকে জয়ী করার আহ্বান জানালেন সিপিআই (এম-এল) রেডস্টারের রাজ্য নেতৃত্ব।

এ দিনের সাংবাদিক বৈঠকে কেন্দ্রের পাঁচ বছরের বিজেপি সরকারের একাধিক কেলেঙ্কারি এবং পুঁজিপতি তোষণের বিরুদ্ধে প্রবল সমালোচনা করা হয়। একই সঙ্গে রাজ্যের বামফ্রন্ট সরকারের ৩৪ বছরের শাসনে ঘটে চলা সিঙ্গুর-নন্দীগ্রাম কাণ্ডেরও তীব্র সমালোচনায় মুখর হন বক্তারা। দলের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য কমিটির সম্পাদক অলীক চক্রবর্তী সাংবাদিক বিবৃতি দিয়ে জানান, ভাঙড়ের জমি-জীবিকা আন্দোলন প্রমাণ করেছে, সাধারণ মানুষ ঐক্যবদ্ধ হলে এবং সংগ্রাম গড়ে তুললে অধিকার প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব।

একই সঙ্গে বামফ্রন্টের সমালোচনা করলেও সাংবাদিক বিবৃতি দিয়ে এ দিন জানানো হয়েছে, কমিটি স্থির করেছিল যাদবপুর কেন্দ্রেও প্রার্থী দেওয়া হবে। কিন্তু সেখানে যেহেতু ভাঙড় জমি আন্দোলনের অন্যতম সহযোগী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য বামফ্রন্টের হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন, সে কারণে কমিটি ওই কেন্দ্রে তাঁকেই সমর্থন করবে। যে ছ’টি আসনে প্রার্থী দিচ্ছে কমিটি, সেগুলি হল-

১. বালুরঘাট- মানস চক্রবর্তী

২. বিষ্ণুপুর- জীতেন রায়

৩. বাঁকুড়া- সুখচাঁদ সোরেন

৪. ব্যারাকপুর- হায়দার আলি

৫. দমদম- শংকর দাস

৬. বারাসত- আলি মহম্মদ মল্লিক

[ আরও পড়ুন: আরাবুলকে ভয় পাচ্ছে না ভাঙড়ের মানুষ, আরাবুলই ভয় পাচ্ছেন ভাঙড়কে: বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য ]

উল্লেখ্য, এ দিন সিপিএম প্রার্থী বিকাশবাবু জানান, ভাঙড়ের রাজনৈতিক সমীকরণ আমূল বদলে গিয়েছে। সাধারণ মানুষ জীবন-জীবিকার তাগিদে বামপন্থীদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here