বাতিল নোট নিচ্ছেন সোনাগাছির যৌনকর্মীরা, কোটি টাকার ব্যবসা চার দিনে

0

কেন্দ্রের মোদী সরকার ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট বাতিল করায় সাধারণ মানুষ ও ব্যবসায়ীরা সমস্যায় পড়েছেন। কিন্তু তার প্রভাব পড়ল না কলকাতার সবচেয়ে বড় রেডলাইট এলাকা সোনাগাছিতে। যৌনকর্মীরা গ্রাহকদের থেকে অনায়াসেই নিচ্ছেন ৫০০ আর হাজারের পুরোনো নোট। আর তা জমা করে দিচ্ছেন সোনাগাছির সমবায় ‘উষা’তে। বিগত চারদিনে উষা’তে মোট জমা পরা টাকার অঙ্কের পরিমান ১ কোটি ওপর এমনটি খবর দুর্বার সূত্রে। সারা দেশে বুধবার ব্যাঙ্ক পরিষেবা বন্ধ থাকলেও সেদিন খোলা ছিল উত্তর কলকাতার যৌনপল্লির সমবায় ‘উষা’। সেদিন টাকা জমা করেছেন সব বয়েসের মোট ১২০ জন যৌনকর্মী। বৃহস্পতিবার টাকা জমা করিয়েছেন ২০০ জনের কাছাকাছি।  শুক্রবার প্রায় ২৬৫ জন যৌনকর্মী এবং শনিবার জমা করেছেন প্রায় ১৮০ জন যৌনকর্মী।

sonagachhi-2

দুর্বার মহিলা সমন্বয় কমিটির  চিফ মেন্টর ভারতী দে জানিয়েছেন, নোট বাতিলের প্রভাব সোনাগাছিতে পড়েনি। কারণ, এখানকার যৌনকর্মীরা এখনও ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট নিচ্ছেন। তাঁরা চলতি মাসের শেষপর্যন্ত এই নোট নেবেন বলে খবর। কারন যৌনপল্লিতে নগদেই লেনদেন হয়। তাই আচমকা নোট বাতিলের ঘোষণায় সোনাগাছিতে বড়সড় প্রভাব পড়ার আশঙ্কা ছিল। কিন্তু তার কোন আঁচ এখানে পড়েনি তা এই সংখ্যক টাকা জমা পড়া থেকে স্পষ্ট।

উষা সূত্রে খবর এখন যে সব যৌনকর্মীদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট নেই, তাঁরা সমস্যায় পড়তে পারেন , তাদের জন্য ব্যাঙ্কের সঙ্গে কথা বলে টাকা জমা নেওয়ার ব্যাপারে কোনও সমাধান সূত্র খুঁজে পাওয়া যাবে বলেও আশা করছেন বাংলার সর্ব বৃহৎ সমবায় উষা।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন