kolkata weather
নিজস্ব চিত্র

কলকাতা: ঘূর্ণিঝড় ‘গজা’র পরোক্ষ প্রভাব পড়তে শুরু করেছে দক্ষিণবঙ্গে। এর ফলে কলকাতা এবং পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা কিছুটা বেড়েছে। আকাশে মেঘ থাকায় উত্তুরে হাওয়ার জোরও বুধবার অনেকটাই কম।

বুধবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২০.২ ডিগ্রি। তাপমাত্রাটি স্বাভাবিক হলেও, ভাইফোঁটার পর থেকে এই প্রথম কুড়ির ওপরে উঠল কলকাতার পারদ। অন্য দিকে পারদ বেড়েছে উপকূলবর্তী অঞ্চলেও। তবে পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতে এখনও পারদ স্বাভাবিকের থেকে বেশ কিছুটা কমই রয়েছে। বুধবার বাঁকুড়ার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৬.৮ ডিগ্রি। বোলপুর এবং আসানসোলে পারদ ছিল যথাক্রমে ১৬.১ এবং ১৬.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়া বিশেষজ্ঞদের মতে, ঘূর্ণিঝড় ‘গজা’ এই মুহূর্তে বঙ্গোপসাগরের ওপরে অবস্থান করায় তার প্রভাবেই কিছু মেঘ ঢুকছে দক্ষিণবঙ্গের বায়ুমণ্ডলে। ঘূর্ণিঝড়টি স্থলভাগে ঢুকে গেলে মেঘ সরে যাবে। এর প্রভাবে দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির সম্ভাবনা বিশেষ নেই বলে জানানো হয়েছে। তবে উত্তরবঙ্গে আগামী কয়েক দিন হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে।

আরও পড়ুন রাজ্যের নাম বদল ইস্যুতে সরব মুখ্যমন্ত্রী

অন্য দিকে উত্তর ভারতে হানা দেওয়া পশ্চিমী ঝঞ্ঝাও কিছুটা দায়ী দক্ষিণবঙ্গের পারদ পতন বন্ধ করার জন্য। এর প্রভাবে এক দিকে যেমন কাশ্মীর ও হিমাচলে বৃষ্টি এবং তুষারপাত হয়েছে, তেমনই বন্ধ হয়েছে উত্তুরে হাওয়া। তবে খুশির খবর এই যে, ঝঞ্ঝাটি বিদায় নিতে শুরু করেছে।

উত্তরে ঝঞ্ঝা এবং দক্ষিণে ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাব কাটলেই আবার বইতে শুরু করবে উত্তুরে হাওয়া। নামতে শুরু করবে দক্ষিণবঙ্গের পারদ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here