Currency

কলকাতা: হাইকোর্টের রায়ে মহার্ঘ ভাতা (ডিএ)-র উপর রাজ্য সরকারি কর্মীদের আইনি অধিকার স্বীকৃতি পেয়েছে। তবে এই মামলার সঙ্গে সম্পৃক্ত আরও দু’টি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের মীমাংসা ঝুলে রইল স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইবুনাল বা স্যাটের সিদ্ধান্তের উপরই।
এ দিন হাইকোর্টের কাছে মূলত তিনটি প্রশ্নের উত্তর পাওয়ার আশা করেছিলেন করছিলেন রাজ্য সরকারি কর্মীরা।

প্রথমত, ডিএ কি রাজ্য সরকারের দয়ার দান, না কি আইনি অধিকার?
দ্বিতীয়ত, কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের সমান বেতন কি পাবে রাজ্য সরকারি কর্মী?
তৃতীয়ত, চেন্নাই বা দিল্লির মতো রাজ্যের বাইরে কর্মরত পশ্চিমবঙ্গ সরকারের কর্মীরা কোন নিয়মে ডিএ পাবেন? কারণ তাঁরা সংশ্লিষ্ট রাজ্যের নিয়ম মতোই ডিএ পেয়ে থাকেন। ফলে একই পদে থাকা সত্ত্বেও ডিএ-র বৈষম্য তৈরি হচ্ছে।

এই তিনটি প্রশ্নের মধ্যে প্রথমটির উত্তর স্পষ্ট করে বলেছে বিচারপতি দেবাশিস করগুপ্ত ও শেখর ববি শরাফের ডিভিশন বেঞ্চ। বাকি দু”টিকে ফেরত পাঠানো হয়েছে স্যাটের কাছে। বলা হয়েছে, এই দুই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের মীমাংসা স্যাট আগামী দু’মাসের মধ্যে করবে।


আরও পড়ুন: ডিএ মামলার রায় ঘোষণা করল কলকাতা হাইকোর্ট

এ কথা ঠিক, রায়ের প্রথম অংশটি ছিল সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ। হাইকোর্ট রোপা আইনের কথা উল্লেখ করে সেই আবেদনে সিলমোহর দিতেই এই রায়কে ঐতিহাসিক বলে মনে করছেন মামলাকারীরা। কিন্তু পরবর্তী দু’টি ধাপ কাটিয়ে সেই নিয়ম বলবৎ হতে এখনও অপেক্ষা দু’মাসের। তার পরে স্যাটের প্রস্তাব হাইকোর্টে জমা পড়লে পরবর্তী পদক্ষেপ। সেটাও যে কতটা মসৃণ হবে, প্রশ্ন তো একটা থেকে যেতেই পারে!

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন