Connect with us

দঃ দিনাজপুর

সুন্দরবনে উম্পুন-দুর্গত মানুষের কাছে ত্রাণ পৌঁছে দিল ‘সহমর্মী’

খবর অনলাইন ডেস্ক: ঘূর্ণিঝড় ‘উম্পুন’-এ (amphan) দুর্গত মানুষদের কাছে ত্রাণসামগ্রী নিয়ে ছুটে গেল গড়িয়ার ‘সহমর্মী’ (Sahamarmi)। মঙ্গলবার তারা গোসাবার মন্মথনগরে (Manmathanagar) ঘূর্ণিঝড়ে বিপর্যস্ত ৪০০ জন অসহায় আত্মজনের হাতে পৌঁছে দিল ত্রাণ।

ত্রাণ পৌঁছোনোর আগে থেকেই দুর্গত মানুষের ভিড়।

সংস্থার সাধারণ সম্পাদক সুব্রত গোস্বামী জানান, সুন্দরবন (Sundarban) থেকে যতটুকু খবর তাঁরা পাচ্ছেন, তাতে বোঝা যাচ্ছে সেখানকার বিস্তীর্ণ এলাকায় যথেষ্ট ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। অনেক জায়গার সঙ্গে এখনও যোগাযোগ করা যাচ্ছে না। ফলে ক্ষয়ক্ষতি ঠিক কতটা এখনও পরিষ্কার বোঝা যাচ্ছে না। তবে ঝড়ের তাণ্ডবেই স্পষ্ট, ভালো রকম ক্ষতি হয়েছে সুন্দরবনের।

ত্রাণসামগ্রী নিয়ে গোসাবার উদ্দেশে।

ক্ষয়ক্ষতির প্রাথমিক খবর পাওয়ামাত্র গড়িয়ার ‘সহমর্মী’ দুর্গত এলাকায় ছুটে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় বলে জানান সুব্রতবাবু। তিনি বলেন, করোনার রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে, ভোরের আলো ফোটার সঙ্গে সঙ্গেই তাঁরা রওনা দেন গোসাবার উদ্দেশে। নদীর অবস্থা খুব খারাপ। তবু তাঁরা নিরাপদেই পৌঁছে যান পৌঁছে যান মন্মথনগরে।

‘সহমর্মী’ অকুস্থলে পৌঁছে যাওয়ার আগে থেকেই ত্রাণ নেওয়ার জন্য অসহায় মানুষের দীর্ঘ লাইন পড়ে গিয়েছিল। এদের হাতে সামান্য কিছু ত্রাণ তুলে দিতে দিতে সুব্রতবাবুদের মনে পড়ছিল সেই বিখ্যাত গান ‘মানুষ মানুষের জন্য’।

অবশেষে বিতরণ।

যাঁদের ছাড়া ‘সহমর্মী’র পক্ষে এই কাজ করা সম্ভব হত না, তাঁরা হলেন ভাঙড় কলেজের এনসিসি ক্যাডেটরা। তাঁরা সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ায় অভিভূত সুব্রতবাবু। তিনি বলেন, কী অক্লান্ত পরিশ্রম করে যে তাঁরা এই পরিকল্পনা সফল করে তুললেন তা ভাষায় প্রকাশ করা যাবে না। এঁদের কাছে ‘সহমর্মী’ কৃতজ্ঞ।

দঃ দিনাজপুর

আর দু’দিন নয়, হাওড়া-বালুরঘাট এক্সপ্রেস চলবে সপ্তাহে পাঁচ দিন

বালুরঘাট: আর দু’দিন নয়, এ বার থেকে সপ্তাহে পাঁচ দিন চলবে হাওড়া-বালুরঘাট এক্সপ্রেস। বালুরঘাটবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি মেনে এই ট্রেনটির যাত্রার দিন বাড়াতে চলেছে রেল।

বৃহস্পতিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারি এই পরিবর্তন আসতে চলেছে। বর্তমানে, ট্রেনটি সপ্তাহে দু’দিন, অর্থাৎ সোমবার আর মঙ্গলবার চলে।

ট্রেনটিকে সপ্তাহে পাঁচ দিন করার জন্য দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন চলছিল বালুরঘাটে। বিভিন্ন সংগঠনের পাশাপাশি এলাকার সাংসদ সুকান্ত মজুমদার নিজেও উদ্যোগী হয়েছিলেন। রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েলের সঙ্গে দেখা করে, দাবি জানিয়ে এসেছিলেন।

লোকসভার বিরোধী দলনেতা অধীররঞ্জন চৌধুরীও এ বিষয়ে রেলমন্ত্রীর কাছে একাধিক বার দরবার করেছিলেন। তার প্রেক্ষিতেই গত জানুয়ারি মাসে রেলবোর্ড হাওড়া-বালুরঘাট এক্সপ্রেসটিকে সপ্তাহে পাঁচ দিন চালানোর অনুমতি দেয়।

আরও পড়ুন ভোট-পরবর্তী হিংসা দিল্লিতেও, অজ্ঞাতপরিচয়ের গুলিতে নিহত আপ কর্মী, কোনোমতে বাঁচলেন বিধায়ক

ইউপিএ সরকারের আমলে, অধীর চৌধুরী রেলমন্ত্রকের দায়িত্বে থাকাকালীন বালুরঘাট-হাওড়া এক্সপ্রেস ট্রেন চালু করেছিলেন। ট্রেনটি হাওড়া থেকে সোম ও মঙ্গলবার সকালে ছেড়ে সন্ধ্যায় বালুরঘাটে পৌঁছোয়। উলটো দিকে, বালুরঘাট থেকে সোম ও মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টায় ট্রেনটি ছেড়ে পরদিন সকালে তা হাওড়া স্টেশনে পৌঁছোয়।

ট্রেনটি সপ্তাহে পাঁচ দিন চালু হলে বালুরঘাট ও তার আশপাশের এলাকার মানুষজনের যেমন সুবিধা হবে, ঠিক তেমনি এলাকায় যোগাযোগের ক্ষেত্রেও বিপ্লব ঘটবে বলে মনে করেন বালুরঘাটের সাংসদ।

উল্লেখ্য, বালুরঘাট এক্সপ্রেস ছাড়াও, কলকাতা থেকে বালুরঘাট যাওয়ার আরও দু’টো ট্রেন রয়েছে। একটি তেভাগা এক্সপ্রেস আর গৌড় এক্সপ্রেস।

Continue Reading

দঃ দিনাজপুর

নাগরিকপঞ্জীর প্রতিবাদে দলবদল দুই নেতার, চাপে পড়ল বিজেপি

BJP

বালুরঘাট ও দার্জিলিং: নাগরিকপঞ্জী আর নাগরিকত্ব আইন নিয়ে চাপে পড়ল বিজেপি। এই ইস্যুকে কেন্দ্র করেই বিজেপি থেকে তৃণমূলে যোগ দিলেন রাজ্যের দুই জেলার শীর্ষস্থানীয় দুই নেতা।

রবিবার বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেন দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা পরিষদের সভাধিপতি লিপিকা রায়। বালুরঘাটে তৃণমূল জেলা কাযার্লয়ে তাঁর হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন জেলা তৃণমূল সভানেত্রী তথা জেলার প্রাক্তন সাংসদ অর্পিতা ঘোষ।

এই দলবদলের ফলে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা পরিষদটি পুরোপুরি ভাবে তৃণমূলের ক্ষমতায় চলে এল বলে মনে করা হচ্ছে।

একই সঙ্গে এ দিন দার্জিলিংয়ে বিজেপির হিল জেলা কমিটির নেতা সন্তবাহাদুর গুরুংও দল ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। তবে সন্তবাহাদুরের দলত্যাগকে গুরুত্ব দিতে নারাজ জেলার বিজেপি নেতারা। তবে লিপিকা রায়ের দলত্যাগে তাঁরা যে বেশ বেকায়দায় পড়েছেন সেটা অবশ্য দলের উত্তরবঙ্গের নেতাদের আচরণেই স্পষ্ট।

[ঝাড়খণ্ড নির্বাচনের সর্বশেষ ফলাফল জানতে ক্লিক করুন এখানে]

নাগরিকত্ব আইনের জেরেই যে তিনি বিজেপির উপরে বিশ্বাস হারালেন, দলত্যাগের পরে তা স্পষ্ট করে জানিয়েছেন লিপিকা। তিনি বলেন, “বিজেপির আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়েই যোগ দিয়েছিলাম। কিন্তু এখন আর তাদের ওপরে কোনো ভরসা রাখতে পারছি না।’

উল্লেখ্য, লিপিকা রায় বিজেপিতে থাকায় দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা পরিষদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারানোর পরেও বিজেপি বেশ চাপে রাখতে পেরেছিল তৃণমূলকে। তৃণমূলের সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্যের মতামতকে গুরুত্ব না দিয়েই তিনি নিজের মতো করে জেলা পরিষদ চালানোর চেষ্টা করছিলেন। ফলে বিপাকে পড়ে গিয়েছিলেন জেলা প্রশাসনের কর্তারাও। বিষয়টি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীও।

এ বার অ্যাডভ্যান্টেজ পেয়ে গেল তৃণমূলই। জেলা পরিষদ চালাতে আর কোনো সমস্যা রইল না তাদের।

Continue Reading
Advertisement
কলকাতা10 hours ago

শর্ট সার্কিট থেকে আগুন, বেহালায় পুড়ে মৃত্যু মা-মেয়ের

দেশ10 hours ago

করোনা মহামারিতে ‘ফুচকা’র জন্য গলা শুকোচ্ছে? এসে গেল ‘এটিএম’

দেশ11 hours ago

‘আত্মনির্ভর ভারত অ্যাপ ইনোভেশন চ্যালেঞ্জ’ চালু করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

রাজ্য11 hours ago

দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যায় নতুন রেকর্ড রাজ্যে, সুস্থতাতেও রেকর্ড

দেশ11 hours ago

১৫ আগস্ট? করোনা ভ্যাকসিনের দিনক্ষণ বেঁধে দেওয়া নিয়ে অবস্থান স্পষ্ট করল আইসিএমআর

ক্রিকেট12 hours ago

করোনা পিছু ছাড়ছে না মাশরাফি বিন মুর্তজার

দেশ12 hours ago

পাশের আসনে বসা নেতা করোনা আক্রান্ত! বিহারের মুখ্যমন্ত্রীকে নিয়ে উদ্বেগ

LPG
প্রযুক্তি14 hours ago

রান্নার গ্যাসের ভরতুকির টাকা অ্যাকাউন্টে ঢুকেছে কি না, কী ভাবে দেখবেন?

দেশ21 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ২২,৭৭১, সুস্থ ১৪,৩৩৫

দেশ2 days ago

দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যায় নতুন রেকর্ড, সুস্থতাতেও রেকর্ড

ক্রিকেট3 days ago

চলে গেলেন ‘থ্রি ডব্লু’-এর শেষ জন স্যার এভার্টন উইকস, শেষ হল একটা অধ্যায়

কলকাতা19 hours ago

কলকাতায় অতিসংক্রমিত ১৬টি অঞ্চলকে পুরোপুরি সিল করে দেওয়ার প্রস্তুতি

ক্রিকেট3 days ago

২০১১ বিশ্বকাপ কাণ্ড: জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করা হল কুমার সঙ্গকারা, মাহেলা জয়বর্ধনকে

SBI ATM
শিল্প-বাণিজ্য2 days ago

এসবিআই এটিএমে টাকা তোলার নিয়ম বদলে গেল

দেশ2 days ago

‘সবার টিকা লাগবে না, আর পাঁচটা রোগের মতোই চলে যাবে করোনা’, আশ্বাস অক্সফোর্ডের বিজ্ঞানীর

wfh
ঘরদোর1 day ago

ওয়ার্ক ফ্রম হোম করছেন? কাজের গুণমান বাড়াতে এই পরামর্শ মেনে চলুন

নজরে