তিস্তার ভাঙনে বিপর্যস্ত করোনেশন সেতুর ভিত, চিন্তায় তরাই-ডুয়ার্স

0

সেবক: অর্ধ শতাব্দীর বেশি পুরোনো করোনেশন সেতুর ভিত তিস্তার ভাঙনের জন্য ক্রমে দুর্বল হয়ে যাচ্ছে। এর জেরে তরাই ও ডুয়ার্সের মানুষের কপালে এখন চিন্তার ভাঁজ। সেবকে বিকল্প সেতুর কথা বলা হলেও এখনও সেই সেতুর কাজ শুরু না হওয়ায় উদ্বেগ ক্রমশ বাড়ছে।

করোনেশন সেতুর দুর্দশার ছবিটি তুলে ধরেছে ফেসবুকের একটি পেজ। ওই পেজে বলা হয়েছে, “তিস্তায় ভাঙনের জন্য সেতুর পিলারের নীচের অংশটি ভীষণ ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। যে কোনো দিন ভয়াবহ কোনো দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে।”

উল্লেখ্য, ১৯৪০ সালে তৈরি এই সেতুটির ভার বহনের ক্ষমতা এমনিতেই কমছে। ২০১১ সালে সিকিমে ভূমিকম্পের সময়ে সেতুটিতে ফাটল ধরা পড়ে। তখন বিশেষজ্ঞদের দিয়ে পূর্ত দফতর তা পরীক্ষাও করায়।

DANGER : See the pathetic condition of our heritage Coronation bridge at Sevoke. Due to erosion, the lower part of the…

Posted by The Voice of Siliguri on Wednesday, February 12, 2020

তার পর থেকে করোনেশন সেতুর উপর দিয়ে ১০ টনের উপরে কোনো ভারী যান চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়। ফলে এই সেতু নিয়ে ডুয়ার্সের বাসিন্দাদের উদ্বেগের শেষ নেই। উদ্বিগ্ন রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় সরকারও। দু’পক্ষই চায় সেবক রেলসেতুর আগেই নতুন একটি কংক্রিটের সেতু তৈরি করে সেবকের পাহাড়ি এলাকাকে এড়িয়ে নতুন রাস্তা তৈরির জন্য। রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে এই ব্যাপারে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকার ওই প্রস্তাব সমর্থনও করেছে।

আরও পড়ুন উদ্ধব ঠাকরের ওপরে বেজায় চটেছেন শরদ পাওয়ার

সেবকে ধসের কারণেও প্রায়ই ডুয়ার্সের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে শিলিগুড়ি। তখন গজোলডোবা হয়ে ঘুরপথে আসতে হয় ডুয়ার্সের বাসিন্দাদের। এর কারণেই দ্বিতীয় সেতুটি অত্যন্ত প্রয়োজন।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.