দার্জিলিং: লাগাতার আন্দোলনেও জিটিএ (GTA) কর্তৃপক্ষ কোনো সদর্থক পদক্ষেপ না নেওয়ায় টানা ১০ দিনের কর্মবিরতিতে যাচ্ছে ইউনাইটেড এমপ্লয়িজ অ্যাসোসিয়েশন। জিটিএ-র গ্রুপ ‘সি’ এবং গ্রুপ ‘ডি’ চুক্তিভিত্তিক কর্মীদের নিয়মিতকরণ এবং মাপকাঠি বজায় রেখে অন্যান্য সুযোগসুবিধার দাবিতে লাগাতার আন্দোলনে নেমেছে সংগঠন।

শনিবার সংগঠনের কোর কমিটির বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, কর্তৃপক্ষ হেলদোল না দেখানোয় দার্জিলিং এবং কালিম্পং জেলার প্রত্যেকটি জিটিএ কার্যালয়ে এই কর্মসূচি পালন করা হবে। আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে অফিসে উপস্থিত হয়ে কর্মবিরতিতে যোগ দেবেন সংগঠনের সদস্যরা।

১ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হওয়া ওই কর্মবিরতি চলবে আগামী ১০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বেলা সাড়ে চারটে পর্যন্ত কর্মবিরতি চলবে। অংশ নেবেন কয়েক হাজার কর্মী। তার পরেও যদি জিটিএ কর্তৃপক্ষ কোনো ইতিবাচক সিদ্ধান্তের কথা না ঘোষণা করেন, তা হলে পরিস্থিতি বিবেচনা করে পরবর্তী প্রতিবাদ কর্মসূচি নেওয়া হবে।

একই সঙ্গে সংগঠন জানায়, এই সময়কালে সরকারি ছুটিতেও কোনো অফিসে কাজ করতে দেওয়া হবে না। তবে স্বাস্থ্য এবং জনস্বাস্থ্য কারিগরি বিভাগকে কর্মবিরতির আওতার বাইরে রাখা হবে।

প্রসঙ্গত, সংগঠনের অভিযোগ, নতুন প্রশাসন গঠিত হলেও নির্দিষ্ট শ্রেণির কর্মীরা পড়ে রয়েছেন অন্ধকারেই। ২০ বছরেরও বেশি সময় ধরে কর্মরত থাকলেও নির্দিষ্ট শ্রেণির কর্মীরা বঞ্চিত প্রাপ্য সুযোগ থেকে। একাধিক বার রাজ্য সরকারের তরফে এ বিষয়ে অনুমোদন মেলার পরেও উদাসীন জিটিএ কর্তৃপক্ষ। বিস্তারিত পড়ুন এখানে: জিটিএর-র চুক্তিভিত্তিক কর্মীদের নিয়মিতকরণ-সহ একাধিক দাবিতে লাগাতার আন্দোলেন কর্মী সংগঠন

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন