Connect with us

দার্জিলিং

ফের বদলাচ্ছে দার্জিলিং পাহাড়ের রাজনৈতিক সমীকরণ?

Published

on

দার্জিলিং: এনআরসি, এনপিআর আর সিএএ ইস্যুকে কেন্দ্র করে কি পাহাড়ের রাজনৈতিক সমীকরণ ফের বদলাতে শুরু করেছে? গত কয়েক দিনের ঘটনাপ্রবাহ কিন্তু সেই দিকেই ইঙ্গিত করছে।

গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা (বিনয়পন্থী) আর জিএনএলএফ, পাহাড়ের রাজনীতিতে দুই মেরুতে থাকা দু’টি দল। বিনয়পন্থী মোর্চা তৃণমূলঘনিষ্ঠ। অন্য দিকে বিজেপির সঙ্গে জোটে রয়েছে জিএনএলএফ। কিন্তু এখন দুই দলই কাছাকাছি এসে গিয়েছে।

নাগরিকত্ব আইন রুখতে পাহাড়ে আইএলপি (ইনারলাইন পারমিট) চালুর দাবিতে সরব হয়েছিল গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা (বিনয়পন্থী)। মঙ্গলবার জিএনএলএফ এই আইন রুখতে সামনে আনল ষষ্ঠ তফশিলের দাবি।

নাগরিকপঞ্জি নিয়ে দলের স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠকের পরে জিএনএলএফ মুখপাত্র মহেন্দ্র ছেত্রী জানিয়েছেন, নাগরিকত্ব আইন নিয়ে আতঙ্কিত গোর্খারা। কারণ এই আইন খতিয়ে দেখার পর তাঁদের মনে হয়েছে এই আইন লাগু হলে নিজেদের নাগরিকত্ব প্রমাণে অসুবিধায় পড়বেন তাঁরা।

তিনি আরও বলেন, “এনআরসির প্রাথমিক পর্যায়ে এনপিআর নোটিস জারি হলে, সরকারি কর্মীরা ঘরে ঘরে গিয়ে প্রত্যেকের বাবা-মার জন্মস্থান জানতে চাইলে তার উত্তর নেই গোর্খাদের অনেকের কাছেই। তাই আগে ষষ্ঠ তফশিল চালু করে গোর্খাদের নিরাপত্তা দেওয়া হোক। তার পর বাকি কথা হবে।”

জিএনএলএফের এই বক্তব্যের সঙ্গে তাঁরা সম্পূর্ণ সহমত বলে জানান গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার (বিনয়পন্থী) নেতা কেশব পোখরেল। তিনি বলেন, “আমরা তো প্রথম থেকেই বলছি, এনআরসি চালু হলে গোর্খাদের ভালো হবে না। এই লড়াইয়ে ওঁরাও আমাদের পাশে থাকুক।”

এমনকি পাহাড়ের বিজেপি নেতৃত্বকেও এই লড়াইয়ে পাশে থাকার বার্তা দিয়েছেন পোখরেল।

আরও পড়ুন স্কুলের প্রার্থনায় পড়তেই হবে সংবিধানের প্রস্তাবনা, নির্দেশিকা জারি এক রাজ্যে

এমনিতে পাহাড়ের বিভিন্ন জায়গায় নানা রকম পোস্টার পড়েছে। কোনো পোস্টারে দাবি করা হয়েছে সিএএর আওতা থেকে পাহাড়কে বাইরে রাখা। আবার কোথাও দাবি উঠেছে ১৯৯০ সালে বাতিল হওয়া ইনার লাইন পারমিট (আইএলপি) ফের চালু করা। এই আইএলপি চালু থাকলে সেই ভূখণ্ডে নাগরিকত্ব আইন লাগু করা যায় না।

উল্লেখ্য, গত লোকসভা নির্বাচনের সময়েই দার্জিলিং কেন্দ্রে বিধানসভা উপনির্বাচন হয়। দু’টি ভোটেই বিজেপির সঙ্গে জোট করেছিল জিএনএলএফ। সঙ্গে ছিল জনমুক্তি মোর্চার গুরুংপন্থী শাখা। সাংসদ এবং বিধায়ক, দু’টিই হয়েছে জোট প্রার্থীরা।

কিন্তু নাগরিকপঞ্জি আর নাগরিকত্ব আইনকে কেন্দ্র করে তৈরি হওয়ার পরিস্থিতিতে পাহাড়ে রাজনৈতিক সমীকরণ আবার বদলে যাওয়ারই ইঙ্গিত দিচ্ছে।

দার্জিলিং

মেলেনি সদর্থক ইঙ্গিত, কর্মবিরতির মেয়াদ বাড়াল জিটিএ-র কর্মী সংগঠন

২৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত কঠোর ভাবে কর্মবিরতি চালিয়ে যাবে কর্মী সংগঠন।

Published

on

দার্জিলিং: লাগাতার আন্দোলনেও জিটিএ (GTA) কর্তৃপক্ষ কোনো সদর্থক পদক্ষেপ না নেওয়ায় টানা কর্মবিরতিতে শামিল হয়েছে ইউনাইটেড এমপ্লয়িজ অ্যাসোসিয়েশন (UEA)। শনিবার সংগঠনের তরফে জানানো হল, আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত কঠোর ভাবে কর্মবিরতি চালিয়ে যাওয়া হবে।

জিটিএ-র গ্রুপ ‘সি’ এবং গ্রুপ ‘ডি’ চুক্তিভিত্তিক কর্মীদের নিয়মিতকরণ এবং মাপকাঠি বজায় রেখে অন্যান্য সুযোগসুবিধার দাবিতে লাগাতার আন্দোলনে নেমেছে ইউইএ। গত ১ সেপ্টেম্বর থেকে চলছে অফিসে উপস্থিত হয়ে কর্মবিরতি কর্মসূচি।

এ দিন সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটি একটি বৈঠকের আয়োজন করে। যেখানে মহকুমা কমিটি এবং ব্লক কমিটির সঙ্গে আন্দোলনের কর্মসূচি নিয়ে আলোচনা করা হয়। প্রতিবাদ আন্দোলনের বিভিন্ন দিক এবং ভবিষ্যৎ নিয়েও বিস্তারিত আলোচনা হয়।

সংগঠনের নেতৃত্ব জানান, তাদের দাবিগুলি নিয়ে এখনও পর্যন্ত জিটিএ কর্তৃপক্ষ অথবা পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের তরফে কোনো সাড়া মেলেনি।

একই সঙ্গে ইউইএ নেতৃত্ব বলেন, গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার সভাপতি বিনয় তামাং কলকাতা সফরকালে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে তাঁদের দাবিদাওয়াগুলি উত্থাপন করবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন।

তবে এখনও পর্যন্ত কোনো মহল থেকেই কোনো রকমের সদর্থক ইঙ্গিত না মেলায়, সংগঠন কর্মবিরতির মেয়াদ বাড়িয়ে ২৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

প্রসঙ্গত, সংগঠনের অভিযোগ, নতুন প্রশাসন গঠিত হলেও জিটিএ-র নির্দিষ্ট শ্রেণির কর্মীরা পড়ে রয়েছেন অন্ধকারেই। ২০ বছরেরও বেশি সময় ধরে কর্মরত থাকলেও নির্দিষ্ট শ্রেণির কর্মীরা বঞ্চিত প্রাপ্য সুযোগ থেকে। একাধিক বার রাজ্য সরকারের তরফে এ বিষয়ে অনুমোদন মেলার পরেও উদাসীন জিটিএ কর্তৃপক্ষ। বিস্তারিত পড়ুন এখানে: জিটিএর-র চুক্তিভিত্তিক কর্মীদের নিয়মিতকরণ-সহ একাধিক দাবিতে লাগাতার আন্দোলেন কর্মী সংগঠন

Continue Reading

দার্জিলিং

আন্দোলন তীব্র হতেই অস্থায়ী কর্মীদের নিয়মিতকরণে মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চেয়ে জিটিএ চেয়ারম্যানের চিঠি

যত দ্রুত সম্ভব অস্থায়ী কর্মীদের নিয়মিতকরণের আর্জি।

Published

on

দার্জিলিং: অস্থায়ী কর্মচারীদের স্থায়ীকরণের বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি লিখেছেন জিটিএ চেয়ারম্যান।

লাগাতার আন্দোলনেও জিটিএ (GTA) কর্তৃপক্ষ কোনো সদর্থক পদক্ষেপ না নেওয়ায় গত মঙ্গলবার থেকে কর্মবিরতিতে যায় ইউনাইটেড এমপ্লয়িজ অ্যাসোসিয়েশন। জিটিএ-র গ্রুপ ‘সি’ এবং গ্রুপ ‘ডি’ চুক্তিভিত্তিক কর্মীদের নিয়মিতকরণ এবং মাপকাঠি বজায় রেখে অন্যান্য সুযোগসুবিধার দাবিতে টানা ১০ দিনের এই কর্মবিরতির দ্বিতীয় দিনেই প্রকাশ্যে এল জিটিএ কর্তৃপক্ষের ওই চিঠি।

জিটিএ-র চেয়ারম্য়ান অনিত থাপা জটিলতা কাটাতে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হস্তক্ষেপ প্রার্থনা করেছেন। ওই চিঠিতে তিনি জানিয়েছেন, জিটিএ (পূর্বতন ডিজিএইচসি)-তে এখনও পর্যন্ত ৩১০ জন গ্রুপ এ, ৫২১ জন গ্রুপ বি, ২৫২৫ জন গ্রুপ সি এবং ৭৭৫ জন গ্রুপ ডি কর্মী কর্মরত রয়েছেন। বর্তমানে এই গ্রুপ-গুলিতে যথাক্রমে শূন্যপদের সংখ্যা ৩০৩, ৩৪৫, ১৭৮৩ এবং ১৮৪৮টি।

এই কর্মীরা প্রত্যেকেই পূর্বতন দার্জিলিং গোর্খা হিল কাউন্সিল (ডিজিএইচসি)-তেও কর্মরত ছিলেন। নতুন পর্ষদ গঠিত হওয়ার পর ওই কর্মীরাও নতুন প্রশাসনে অন্তর্ভুক্ত হন। কিন্তু অস্থায়ী কর্মীদের স্থায়ীকরণের জটিলতা রয়ে গিয়েছে।

এ ব্যাপারে ইউনাইটেড এমপ্লয়িজ অ্যাসোসিয়েশনের আন্দোলনের কথা উল্লেখ করে জিটিএ চেয়ারম্যান চিঠিতে মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশে লিখেছেন, “যত দ্রুত সম্ভব ওই অস্থায়ী কর্মীদের নিয়মিতকরণের জন্য আপনার হস্তক্ষেপ প্রার্থনা করছি”।

তাঁর কথায়, “এ বিষয়ে ইতিবাচক সিদ্ধান্ত নেওয়া হলে জিটিএ-র ওই দরিদ্র কর্মী এবং তাঁদের পরিবার উপকৃত হবে। কয়েক দশক ধরে ওই সুবিধাবঞ্চিত কর্মীরা এই ইস্যুতে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন”।

তবে চেয়ারম্যানের এই চিঠির কথা প্রকাশ্যে আসার পরেও নিজেদের অবস্থানে অনড় ইউনাইটেড এমপ্লয়িজ অ্যাসোসিয়েশনের। সংগঠনের পক্ষে জানানো হচ্ছে, একাধিক বার রাজ্য সরকারের তরফে এ বিষয়ে অনুমোদন মেলার পরেও উদাসীন থেকেছেন কর্তৃপক্ষ। ফলে প্রকৃত সুরাহা না হওয়া পর্যন্ত আন্দোল চলবে।

Continue Reading

দার্জিলিং

টানা ১০ দিনের কর্মবিরতির ডাক দিলেন জিটিএ কর্মীরা

আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে অফিসে উপস্থিত হয়ে কর্মবিরতিতে যোগ দেবেন সংগঠনের সদস্যরা।

Published

on

দার্জিলিং: লাগাতার আন্দোলনেও জিটিএ (GTA) কর্তৃপক্ষ কোনো সদর্থক পদক্ষেপ না নেওয়ায় টানা ১০ দিনের কর্মবিরতিতে যাচ্ছে ইউনাইটেড এমপ্লয়িজ অ্যাসোসিয়েশন। জিটিএ-র গ্রুপ ‘সি’ এবং গ্রুপ ‘ডি’ চুক্তিভিত্তিক কর্মীদের নিয়মিতকরণ এবং মাপকাঠি বজায় রেখে অন্যান্য সুযোগসুবিধার দাবিতে লাগাতার আন্দোলনে নেমেছে সংগঠন।

শনিবার সংগঠনের কোর কমিটির বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, কর্তৃপক্ষ হেলদোল না দেখানোয় দার্জিলিং এবং কালিম্পং জেলার প্রত্যেকটি জিটিএ কার্যালয়ে এই কর্মসূচি পালন করা হবে। আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে অফিসে উপস্থিত হয়ে কর্মবিরতিতে যোগ দেবেন সংগঠনের সদস্যরা।

১ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হওয়া ওই কর্মবিরতি চলবে আগামী ১০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বেলা সাড়ে চারটে পর্যন্ত কর্মবিরতি চলবে। অংশ নেবেন কয়েক হাজার কর্মী। তার পরেও যদি জিটিএ কর্তৃপক্ষ কোনো ইতিবাচক সিদ্ধান্তের কথা না ঘোষণা করেন, তা হলে পরিস্থিতি বিবেচনা করে পরবর্তী প্রতিবাদ কর্মসূচি নেওয়া হবে।

একই সঙ্গে সংগঠন জানায়, এই সময়কালে সরকারি ছুটিতেও কোনো অফিসে কাজ করতে দেওয়া হবে না। তবে স্বাস্থ্য এবং জনস্বাস্থ্য কারিগরি বিভাগকে কর্মবিরতির আওতার বাইরে রাখা হবে।

প্রসঙ্গত, সংগঠনের অভিযোগ, নতুন প্রশাসন গঠিত হলেও নির্দিষ্ট শ্রেণির কর্মীরা পড়ে রয়েছেন অন্ধকারেই। ২০ বছরেরও বেশি সময় ধরে কর্মরত থাকলেও নির্দিষ্ট শ্রেণির কর্মীরা বঞ্চিত প্রাপ্য সুযোগ থেকে। একাধিক বার রাজ্য সরকারের তরফে এ বিষয়ে অনুমোদন মেলার পরেও উদাসীন জিটিএ কর্তৃপক্ষ। বিস্তারিত পড়ুন এখানে: জিটিএর-র চুক্তিভিত্তিক কর্মীদের নিয়মিতকরণ-সহ একাধিক দাবিতে লাগাতার আন্দোলেন কর্মী সংগঠন

Continue Reading
Advertisement
Narendra Modi
দেশ3 hours ago

২০১৫ থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিদেশ সফরে খরচ হয়েছে প্রায় ৫১৮ কোটি টাকা

দেশ4 hours ago

অর্থনীতিতে নতুন হাতছানি বাংলাদেশ-ভারত পণ্যবাহী রেল চলাচল

IPL rajasthan Royals
ক্রিকেট5 hours ago

রানের বন্যা শেষে চেন্নাই-জয় রাজস্থান রয়্যালসের

Sherpa Ang Rita
অ্যাডভেঞ্চার7 hours ago

অক্সিজেন সিলিন্ডার ছাড়াই ১০ বার মাউন্ট এভারেস্ট বিজয়ী আং রিটা প্রয়াত

রাজ্য8 hours ago

পর পর তিন দিন দৈনিক মৃতের সংখ্যা ৬০-এর উপরে, তবে ঊর্ধ্বমুখী সুস্থতার হার

Currency
শিল্প-বাণিজ্য9 hours ago

জল জীবন মিশনের আওতায় ৫০ লক্ষ টাকা জেতার সুযোগ দিচ্ছে কেন্দ্র, তবে উৎরাতে হবে আইসিটি গ্র্যান্ড চ্যালেঞ্জে

কেনাকাটা10 hours ago

মহিলাদের পোশাকের পুজোর ১০টি কালেকশন, দাম ৮০০ টাকার মধ্যে

দেশ11 hours ago

এ বার আলু, পেঁয়াজ, চাল, ডাল, ভোজ্য তেল অত্যাবশ্যক পণ্য নয়, বিল পাশ রাজ্যসভায়

দেশ18 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৭৫০৮৩, সুস্থ ১০১৪৬৮

দেশ2 days ago

সোমবার থেকে স্কুল খোলা বাধ্যতামূলক নয়, দেখে নিন কোন রাজ্য কী সিদ্ধান্ত নিল

দেশ3 days ago

ব্যথার কারণ খুঁজতে হল এক্স-রে, বন্দির মলদ্বারে হদিশ মিলল চারটি মোবাইলের

coronavirus west bengal
দেশ18 hours ago

এই প্রথম ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ কোভিডরোগীর সংখ্যা এক লক্ষ ছাড়াল

রাজ্য3 days ago

জাতীয় গড়ের তুলনায় রাজ্যে সুস্থতার হার অনেকটাই বেশি, কেন্দ্রের প্রশংসা

mamata banerjee
রাজ্য3 days ago

সোমবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উত্তরবঙ্গ সফর স্থগিত

corona
দেশ2 days ago

৫টি রাজ্যেই মোট সক্রিয় কোভিডরোগীর ৬০ শতাংশ!

coronavirus west bengal
রাজ্য2 days ago

রাজ্যের চার জেলার কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে বিশেষ ভাবে উদ্বিগ্ন স্বাস্থ্য দফতর

কেনাকাটা

কেনাকাটা10 hours ago

মহিলাদের পোশাকের পুজোর ১০টি কালেকশন, দাম ৮০০ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পুজো তো এসে গেল। অন্যান্য বছরের মতো না হলেও পুজো তো পুজোই। তাই কিছু হলেও তো নতুন...

কেনাকাটা4 days ago

সংসারের খুঁটিনাটি সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে এই জিনিসগুলির তুলনা নেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিজের ও ঘরের প্রয়োজনে এমন অনেক কিছুই থাকে যেগুলি না থাকলে প্রতি দিনের জীবনে বেশ কিছু সমস্যার...

কেনাকাটা6 days ago

ঘরের জায়গা বাঁচাতে চান? এই জিনিসগুলি খুবই কাজে লাগবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ঘরের মধ্যে অল্প জায়গায় সব জিনিস অগোছালো হয়ে থাকে। এই নিয়ে বারে বারেই নিজেদের মধ্যে ঝগড়া লেগে...

কেনাকাটা2 weeks ago

রান্নাঘরের জনপ্রিয় কয়েকটি জরুরি সামগ্রী, আপনার কাছেও আছে তো?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরের এমন কিছু সামগ্রী আছে যেগুলি থাকলে কাজ করাও যেমন সহজ হয়ে যায়, তেমন সময়ও অনেক কম খরচ...

কেনাকাটা2 weeks ago

ওজন কমাতে ও রোগ প্রতিরোধশক্তি বাড়াতে গ্রিন টি

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ওজন কমাতে, ত্বকের জেল্লা বাড়াতে ও করোনা আবহে যেটি সব থেকে বেশি দরকার সেই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা...

কেনাকাটা2 weeks ago

ইউটিউব চ্যানেল করবেন? এই ৮টি সামগ্রী খুবই কাজের

বহু মানুষকে স্বাবলম্বী করতে ইউটিউব খুব বড়ো একটি প্ল্যাটফর্ম।

কেনাকাটা4 weeks ago

ঘর সাজানোর ও ব্যবহারের জন্য সেরামিকের ১৯টি দারুণ আইটেম, দাম সাধ্যের মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘর সাজাতে কার না ভালো লাগে। কিন্তু তার জন্য বাড়ির বাইরে বেরিয়ে এ দোকান সে দোকান ঘুরে উপযুক্ত...

কেনাকাটা1 month ago

শোওয়ার ঘরকে আরও আরামদায়ক করবে এই ৮টি সামগ্রী

খবর অনলাইন ডেস্ক : সারা দিনের কাজের পরে ঘুমের জায়গাটা পরিপাটি হলে সকল ক্লান্তি দূর হয়ে যায়। সুন্দর মনোরম পরিবেশে...

kitchen kitchen
কেনাকাটা1 month ago

রান্নাঘরের এই ৮টি জিনিস কাজ অনেক সহজ করে দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজকাল রান্নাঘরের প্রত্যেকটি কাজ সহজ করার জন্য অনেক উন্নত ব্যবস্থা এসে গিয়েছে। তা হলে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কষ্ট...

care care
কেনাকাটা1 month ago

চুল ও ত্বকের বিশেষ যত্নের জন্য ১০০০ টাকার মধ্যে এই জিনিসগুলি ঘরে রাখা খুবই ভালো

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পার্লার গিয়ে ত্বকের যত্ন নেওয়ার সময় অনেকেরই নেই। সেই ক্ষেত্রে বাড়িতে ঘরোয়া পদ্ধতি অনেকেই অবলম্বন করেন। বাড়িতে...

নজরে