Connect with us

দার্জিলিং

চৈত্রে তুষারপাত বাংলায়! সাদা চাদরে মুড়ল সান্দাকফু

গত কয়েকদিন ধরেই উত্তরবঙ্গে প্রবল ঝড়বৃষ্টি হয়ে চলেছে।

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: পূর্ব হিমালয়ে ডিসেম্বর-জানুয়ারিতে যতটা তুষারপাত হয়, তার থেকে অনেকটাই বেশি হয় ফেব্রুয়ারি থেকে এপ্রিলের মধ্যে। এ বার এমনিতেও পূর্ব হিমালয়ে তুষারপাত হয়েছে কমই। তাই অনেকেই ভেবে ছিলেন মরশুমে আর হয়তো বরফ পড়বে না পশ্চিমবঙ্গের সব থেকে উঁচু স্থান সান্দাকফুতে।

কিন্তু সবাইকে কার্যত চমকে দিয়ে বরফ পড়ল। শুধু পড়লই না, রীতিমতো ভারী তুষারপাত হল। সাদা চাদরে মুড়ে গেল সাদাকফু-ফালুটের চারপাশ। ল্যান্ডরোভার-বোলেরোর বোনেটেও পুরু বরফ জমে গিয়েছে।

Loading videos...

সান্দাকফুর সেই তুষারপাতের কিছু ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন স্থানীয় বাসিন্দা ওম গুরুং। সেই ছবিগুলো দেখলে চোখ জুড়িয়ে যায়। মনে হচ্ছে যেন রূপকথার দেশ।

উল্লেখ্য, গত কয়েকদিন ধরেই উত্তরবঙ্গে প্রবল ঝড়বৃষ্টি হয়ে চলেছে। উত্তরবঙ্গের সমতলে বেশ কয়েকটি ভারী কালবৈশাখী হয়েছে। সেই সঙ্গে হয়েছে শিলাবৃষ্টিও। পাহাড়েও শিলাবৃষ্টি হয়েছে। সেই সঙ্গে উঁচু স্থানে এ বার তুষারপাত হল।

তবে দার্জিলিংয়ের আফসোস রয়ে গেল। এই মরশুমে সেখানে বরফ পড়ল না। আর এখন যা পরিস্থিতি তাতে এই মরশুমে আর বরফ পড়বে না। তবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

Weather Update: ক্ষণিকের স্বস্তি উধাও, মঙ্গলবার থেকে ফের চড়বে পারদ

কালিম্পং

Bengal Polls 2021: বদলে গেল রাজনৈতিক সমীকরণ, বিমল গুরুংয়ের থেকে মুখ ফিরিয়ে নিল পাহাড়

পাহাড়ে অপ্রাসঙ্গিক হয়ে যাচ্ছেন গুরুং।

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: মাত্র কয়েক বছর আগেও তাঁর ডাকে পাহাড়ে বাঘে গোরুতে এক ঘাটে জল খেত। সেই বিমল গুরুংই দেখলেন কী ভাবে পাহাড়ে তাঁর রাজনৈতিক জমিটা নড়বড়ে হয়ে গেল। পাহাড়ের তিন বিধানসভা আসনেই মুখ থুবড়ে পড়ল গুরুং সমর্থনকারী প্রার্থীরা। মূল লড়াইটা হল বিজেপি এবং বিনয় তামাং গোষ্ঠীর মধ্যে।

পাহাড়ের তিনটে বিধানসভা কেন্দ্র- দার্জিলিং, কালিম্পং এবং কার্শিয়াং। এই তিন আসনেই রমরমা ছিল আঞ্চলিক দলগুলির, কখনও জিএনএলএফ বা কখনও গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা। কিন্তু এ বার দু’টো আসনেই ফুটল পদ্ম। অর্থাৎ খাতা খুলল কোনো জাতীয় দল।

Loading videos...

২০১৯-এর বিধানসভা উপনির্বাচনে দার্জিলিং কেন্দ্রে জয়ী হয়েছিলেন বিজেপির নিরজ জিম্বা। এ বার তিনি তাঁর আসন ধরে রেখেছেন। কিন্তু বিনয় তামাং গোষ্ঠী যথেষ্ট লড়াই করেছে। বিনয় সমর্থিত প্রার্থী কেশব রাজ শর্মাকে ২১ হাজার ২৭৪ ভোটে হারিয়ে দার্জিলিং থেকে জিতেছেন নিরজ।

অন্য দিকে, কার্শিয়াংও পদ্ম ফুটেছে। সেখানে বিনয় গোষ্ঠীর প্রার্থীকে ১৫ হাজার ৫১৫ ভোটে হারিয়ে জয়ী হয়েছেন বিজেপির বিষ্ণু প্রসাদ শর্মা। তবে কালিম্পং বিনয় গোষ্ঠীর মুখে হাসি ফুটিয়েছে। এই কেন্দ্রে জিতেছেন রুডেন সাডা লেপচা। দ্বিতীয় স্থানে বিজেপি।

তিনটে আসনেই তৃতীয় স্থানে নেমে গিয়েছেন গুরুং সমর্থিত প্রার্থীরা। রাজনৈতিক কারবারিদের অনেকেরই ধারণা সুভাষ ঘিসিং যে ভাবে অপ্রাসঙ্গিক হয়ে গিয়েছিলেন পাহাড়ে, ঠিক সে ভাবেই গুরুংও অপ্রাসঙ্গিক হয়ে যাওয়ার পথে।

রাজ্য সরকার গঠিত তামাং, লেপচা, ভুটিয়া, লিম্বু, মুঙ্গের, খাম্বুরাই, ভুজেল, কামি, দামাই, নেওয়ার, থামি, খাস এবং গুরুং গোষ্ঠীর উন্নয়ন বোর্ডগুলির সমর্থনের জোরেই বিনয়-অনিকরা তাঁদের প্রাক্তন নেতা বিমলকে পিছনে ফেললেন বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের একাংশ।

আরও পড়তে পারেন Bengal Polls 2021: জঙ্গলমহলে ফিকে হল গেরুয়া, জুটল মাত্র দুটি আসন

Continue Reading

দার্জিলিং

Bengal Polls 2021: বদলে গিয়েছে পরিস্থিতি, সকাল সকাল ভোট দিয়ে ‘দিদির জয়’ চাইলেন বিমল গুরুং

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: তিন বছরে সব বদলে গিয়েছে। আগে কম করে পঞ্চাশ জন বডিগার্ড ঘিরে রাখত তাঁকে। এখন তিনি প্রায় একা। সেই তেজ কমেছে অনেকটাই, কিন্তু লক্ষ্যে তিনি অবিচল। বিজেপির সঙ্গে ১৪ বছরের সম্পর্কে পাট চুকিয়ে বিমল গুরুংয়ের মুখে আজ ‘দিদির’ জয়গান।

শনিবার সক্কালেই দার্জিলিংয়ের পাতলেবাসের বুথে ভোট দিলেন বিমল গুরুং। চোখেমুখে দেখা গেল সেই চেনা আত্মবিশ্বাস। বললেন, “জয় নিশ্চিত আমাদের। পাহাড়ের মানুষের সঙ্গে বিজেপি বিশ্বাসঘাতকতা করেছে। আমাদের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে।”

Loading videos...

পরিসংখ্যান বলছে, ২০১৯ সালের উপনির্বাচনে দার্জিলিংয়ে যেতে বিজেপি। এমনকি লোকসভাতেও তিনটি আসনেই এগিয়ে ছিল বিজেপি। কিন্তু সেখানে আদতে গুরুংয়েরই প্রভাব ছিল। দার্জিলিং পাহাড়ে এখনও গুরুংয়ের প্রভাব যথেষ্ট। তিনি যে পথে চলতে বলবেন, সেই পথেই পাহাড়ের অধিকাংশ ভোটার চলবেন।

সেই কারণেই বিজেপি নয়, রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মত,‌ গুরুং-সমর্থিত মোর্চা প্রার্থীরাই জিতবেন পাহাড়ের তিনটে আসনে। এ দিকে গুরুংও এ দিন বলেন,  “মানুষ পাহাড়ে শান্তি আর উন্নয়নের জন্য ভোট দেবেন। দিদি সরকার গঠন করবে।”

পাহাড়ের ভোট পরিস্থিতি এ বার কিছুটা ভিন্ন। গুরুংপন্থী মোর্চার বিরুদ্ধে নির্দল প্রার্থী নামিয়েছে বিনয়পন্থী মোর্চাও। অন্য দিকে এই দুই শিবিরের মূল প্রতিপক্ষ বিজেপি। তাদের সঙ্গে হাত মিলিয়েছে জিএনএলএফ এবং সিপিআরএম। কিন্তু মূল লড়াইটা গুরুংপন্থী এবং বিনয়পন্থী মোর্চার মধ্যেই। দুই শিবিরই তৃণমূলের সঙ্গে সমঝোতা করে চলতে চাইছে।

তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সর্বান্তকরণে চেয়েছিলেন দুই মোর্চা যাতে এক হয়ে যায়। তা হয়নি। মুখ্যমন্ত্রী অবশ্য আশ্বাস দিয়েছেন যে জিতবে সে দলের সঙ্গে কাজ করবেন তিনি। তবে এ বার পাহাড়ের লড়াই নিয়ে একটা কৌতূহল রয়েছে অবশ্যই। আগেকার মতো এখন আর আন্দাজই করা যাচ্ছে না কোন দল জিতবে। সেটার জন্য ২ মে পর্যন্ত অপেক্ষা করা ছাড়া আর কোনো উপায় নেই।

পঞ্চম দফার ভোটের সব লাইভ আপডেট দেখুন এখানে ক্লিক করে।

Continue Reading

দার্জিলিং

Bengal Polls 2021: এনআরসি নিয়ে বড়ো ঘোষণা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের

গোর্খা ভোট টানতেই এমনটা ঘোষণা করতে হল শাহকে।

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: বাংলার ভোট বড়ো বালাই। আর সে কারণে ঘোষিত নীতি থেকেও পিছিয়ে আসতে হচ্ছে বিজেপিকে। এই যেমন মঙ্গলবার দার্জিলিং সভায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সাফ জানিয়ে দিলেন এখনই দেশে এনআরসি করার কোনো পরিকল্পনা নেই।

নাগরিকপঞ্জি বা এনআরসি (NRC) নিয়ে গোর্খাদের মধ্যে যে ভীতির সঞ্চার হয়েছে, তা দূর করতে তাঁদের যথাসম্ভব আশ্বস্ত করলেন শাহ। এ দিন তিনি জানান, “এখনই এনআরসির কোনো পরিকল্পনা নেই। আর যদি ভবিষ্যতে এনআরসি হয়ও, তাতেও গোর্খাদের চিন্তার কোনো কারণ নেই।”

Loading videos...

উল্লেখ্য, নাগরিকপঞ্জি বিজেপির বহুদিনের ঘোষিত কর্মসূচি। বিজেপি সরকার ইতিমধ্যেই সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন পাশ করিয়ে দিয়েছে। যা কিনা এনআরসির আগের ধাপ হিসেবেই মনে করছেন অনেকে। এমনকি অসমেও তাঁরা সংশোধিত এনআরসি করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ভোট করিয়েছে।

কিন্তু এ রাজ্যের নির্বাচনে যে এনআরসির প্রতিশ্রুতি বুমেরাং হতে পারে সেটা ভালো মতোই জানেন শাহ। একে তো গোর্খা ইস্যু, তার উপর আগামী কয়েক দফায় বাংলায় যে যে জেলায় নির্বাচন, সেই জেলাগুলিতে সংখ্যালঘুদের আধিক্য। এনআরসির আতঙ্কে এই দুটি ফ্যাক্টরই যেতে পারে বিজেপির বিরুদ্ধে। আর সেটা বুঝেই সম্ভবত আগেভাগে জাতীয় নাগরিকপঞ্জি এখনই না করার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করে দিলেন শাহ।

তবে শুধু এনআরসি নয়, এ দিনের সভায় পাহাড়ের রাজনৈতিক সমস্যারও স্থায়ী সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন শাহ। জানিয়ে দিয়েছেন, রাজ্যে ক্ষমতায় এলে গোর্খা সমস্যার স্থায়ী সমাধান করবে বিজেপি। বিজেপির জন্য পাহাড়ের তিনটি আসন গুরুত্বপূর্ণ। এতদিন পাহাড়ে গোর্খাদের সঙ্গে যে অন্যায় হয়েছে, তা এবার বন্ধ করবে বিজেপি। তবে সেই রাজনৈতিক সমাধানটি কী, সে ব্যাপারে কিছু খোলসা করেননি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

বালিতে প্রচণ্ড শব্দে ভাঙল বাসের কাচ, পাথর না গুলি? চলছে তদন্ত

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
দেশ15 mins ago

অমিত শাহকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না? দিল্লি পুলিশে ‘নিখোঁজ ডায়েরি’

ক্রিকেট1 hour ago

ভারতের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজে হার কেন? অদ্ভুত যুক্তি দিলেন টিম পেইন

মুর্শিদাবাদ1 hour ago

অনাস্থার আগেই মুর্শিদাবাদের জেলা সভাধিপতির পদ থেকে পদত্যাগ শুভেন্দু-ঘনিষ্ঠর

রাজ্য2 hours ago

কোভিডে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত মরণোত্তর দেহ ও অঙ্গদান আন্দোলনের পথিকৃৎ ব্রজ রায়

Coronavirus Delhi
দেশ2 hours ago

Coronavirus Second Wave: সংক্রমণের হার ১৪ শতাংশে, সংক্রমণ নামল ১০ হাজারে, অভাবী রাজ্যগুলিকে অক্সিজেন দিয়ে সাহায্য করতে চায় দিল্লি

delhi pollution
পরিবেশ2 hours ago

পরিবেশগত ভাবে সব থেকে ঝুঁকিপূর্ণ বিশ্বের ২০ শহরের মধ্যে ১৩টি ভারতে

ধর্মকর্ম3 hours ago

Religious Places in Bengal: কালীক্ষেত্র কালীঘাট

দেশ4 hours ago

Corona Lockdown: বিহারে লকডাউনের মেয়াদ বেড়ে ২৫ মে, ঘোষণা নীতীশ কুমারের

Madhyamik examination west bengal
শিক্ষা ও কেরিয়ার2 days ago

Madhyamik 2021: আপাতত সম্ভব নয় মাধ্যমিক পরীক্ষা, সরকারের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় পর্ষদ

বিজ্ঞান2 days ago

জানেন কি, কোভিড থেকে সুস্থ হওয়ার পর অ্যান্টিবডিগুলি কত দিন পর্যন্ত রক্তে থেকে যায়

দেশ2 days ago

Covid Crisis: সংক্রমণের ধার কমাতে একটি বিশেষ ওষুধে ছাড়পত্র দিল গোয়া, খেতে হবে সবাইকে

বিজ্ঞান2 days ago

রক্তের গ্রুপের উপর কি কোভিড আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে, গবেষণায় জানাল সিএসআইআর

প্রযুক্তি2 days ago

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের কোভিড অ্যাপ, সহজে জানা যাবে যাবতীয় তথ্য

শরীরস্বাস্থ্য1 day ago

করোনার এই দুঃসহ সময়ে অক্সিজেন বিপর্যয়ের সহজ সমাধান দিলেন বিজ্ঞানী ড. বিজন কুমার শীল

দেশ2 days ago

Corona Update: দৈনিক সংক্রমণকে ছাপিয়ে গেল সুস্থতা, দু’মাস ধরে টানা বৃদ্ধির পর অবশেষে কমল সক্রিয় রোগী

বিনোদন2 days ago

‘রাধে’র বক্স অফিস কালেশন হতো ‘জিরো’, হল মালিকদের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী সলমন খান

ভিডিও

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 months ago

বাজেট কম? তা হলে ৮ হাজার টাকার নীচে এই ৫টি স্মার্টফোন দেখতে পারেন

আট হাজার টাকার মধ্যেই দেখে নিতে পারেন দুর্দান্ত কিছু ফিচারের স্মার্টফোনগুলি।

কেনাকাটা3 months ago

সরস্বতী পুজোর পোশাক, ছোটোদের জন্য কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সরস্বতী পুজোয় প্রায় সব ছোটো ছেলেমেয়েই হলুদ লাল ও অন্যান্য রঙের শাড়ি, পাঞ্জাবিতে সেজে ওঠে। তাই ছোটোদের জন্য...

কেনাকাটা3 months ago

সরস্বতী পুজো স্পেশাল হলুদ শাড়ির নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই সরস্বতী পুজো। এই দিন বয়স নির্বিশেষে সবাই হলুদ রঙের পোশাকের প্রতি বেশি আকর্ষিত হয়। তাই হলুদ রঙের...

কেনাকাটা4 months ago

বাসন্তী রঙের পোশাক খুঁজছেন?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই আসছে সরস্বতী পুজো। সেই দিন হলুদ বা বাসন্তী রঙের পোশাক পরার একটা চল রয়েছে অনেকের মধ্যেই। ওই...

কেনাকাটা4 months ago

ঘরদোরের মেকওভার করতে চান? এগুলি খুবই উপযুক্ত

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘরদোর সব একঘেয়ে লাগছে? মেকওভার করুন সাধ্যের মধ্যে। নাগালের মধ্যে থাকা কয়েকটি আইটেম রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার...

কেনাকাটা4 months ago

সিলিকন প্রোডাক্ট রোজের ব্যবহারের জন্য খুবই সুবিধেজনক

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন সামগ্রী এখন সিলিকনের। এগুলির ব্যবহার যেমন সুবিধের তেমনই পরিষ্কার করাও সহজ। তেমনই কয়েকটি কাজের সামগ্রীর খোঁজ...

কেনাকাটা4 months ago

আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজ রইল আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার সময় যে দাম ছিল...

কেনাকাটা4 months ago

রান্নাঘরের এই সামগ্রীগুলি কি আপনার সংগ্রহে আছে?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরে বাসনপত্রের এমন অনেক সুবিধেজনক কালেকশন আছে যেগুলি থাকলে কাজ অনেক সহজ হয়ে যেতে পারে। এমনকি দেখতেও সুন্দর।...

কেনাকাটা4 months ago

৫০% পর্যন্ত ছাড় রয়েছে এই প্যান্ট্রি আইটেমগুলিতে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: দৈনন্দিন জীবনের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলির মধ্যে বেশ কিছু এখন পাওয়া যাচ্ছে প্রায় ৫০% বা তার বেশি ছাড়ে। তার মধ্যে...

কেনাকাটা4 months ago

ঘরের জন্য কয়েকটি খুবই প্রয়োজনীয় সামগ্রী

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যদিনের প্রয়োজনীয় ও সুবিধাজনক বেশ কয়েকটি সামগ্রীর খোঁজ রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদনটি লেখার সময় যে দাম ছিল তা-ই...

নজরে