রাতভর ভারী তুষারপাতে বিপর্যস্ত সান্দাকফু

0

দার্জিলিং: শুক্রবার বিকেল সাড়ে চারটে থেকে শুরু হওয়া তুষারপাত এখনও চলছে সান্দাকফুতে। ভারী তুষারপাতের জেরে সান্দাকফুতে ফুট তিনেক বরফ জমে গিয়েছে বলে স্থানীয় সূত্রে খবর। এর ফলে আটকে পড়েছেন পর্যটকরা।

পশ্চিমী ঝঞ্ঝার প্রভাবে শুক্রবার বিকেল থেকে তুষারপাত শুরু হয় সান্দাকফুতে। তখন হালকা তুষারপাত হলেও ধীরে ধীরে তার তেজ বাড়তে থাকে। রাতভর বরফ পড়েছে গোটা সিঙ্গালিলা অঞ্চলে।

শনিবার সকাল হতেই দেখা যায়, পুরো বরফের চাদরে মুড়ে গিয়েছে সান্দাকফু। শনিবার সকালেই এই তুষারপাত বন্ধ হয়নি।

Posted by Om Gurung on Friday, December 13, 2019

শুধু সান্দাকফুই নয়, টংলু, টুমলিংয়ের মতো তুলনায় নিচু জায়গাগুলিও বরফে ঢেকে গিয়েছে। হালকা তুষারপাত হচ্ছে মানেভঞ্জনের কাছে ধোতরেতে।

আরও পড়ুন পশ্চিমী ঝঞ্ঝা বৃষ্টি নামাল দক্ষিণবঙ্গেও, আকাশ পরিষ্কার হলেই জাঁকিয়ে শীত

তবে দার্জিলিংয়ে তুষারপাত হয়নি আর তেমন সম্ভাবনাও আপাতত নেই। কারণ তুষারপাতের অনুকূল নয় দার্জিলিং শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। যদিও শনিবারই ছিল দার্জিলিংয়ের শীতলতম দিন। এ দিন শৈলশহরে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৪.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

অন্য দিকে উত্তরবঙ্গের সমতলে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে। ফলে সেখানে কার্যত শীত উধাও। শিলিগুড়ি, জলপাইগুড়িতে তাপমাত্রা ১৫ ডিগ্রিতে উঠে গিয়েছে। যদিও আকাশ পরিষ্কার হলেই আবার হুহু করে নামবে তাপমাত্রা। জোরদার ঠান্ডা পড়বে গোটা উত্তরবঙ্গ জুড়েই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.